শীতে পা ও মোজার দুর্গন্ধ দূর করবেন যেভাবে

শীতে অনেকেরই পা ঘামে বিশেষ করে পায়ের মোজায় সৃষ্টি হয় তীব্র দুর্গন্ধ। এই গন্ধে অনেকেই কাছে ঘেঁসে না। অস্বস্তিকর এই পরিস্থিতি লজ্জারও কারণ হয়ে দাঁড়ায়।

তবে সহজ কিছু কৌশল অবলম্বন করলে এর থেকে পরিত্রাণ পাওয়া যায়।

  • প্রতিদিন একাধিকবার পা ধুয়ে নিন। হালকা গরম সাবানপানি দিয়ে ধোয়াই ভালো। এতে ত্বকে থাকা জীবাণুর সংখ্যা কমবে।
  • জুতা বা মোজা পায়ে দেওয়ার আগে পা ভালো করে শুকিয়ে নিন। জুতার ভেতর পা ভেজা ভেজা মনে হলে কিছুক্ষণ জুতা খুলে রাখুন।
  • চামড়ার বা কাপড়ের শু ব্যবহার করুন। এতে জুতার ভেতর বাতাস যাওয়া-আসা করতে পারবে। ফলে পা ঘামবে কম।
  • বাসায় ফিরে জুতা শুকাতে দিন। প্রয়োজনে রোদে শুকান।
  • এক লিটার হালকা গরম পানিতে আধা কাপ অ্যাপল সিডার ভিনেগার দিয়ে পা ১০ মিনিট ভিজিয়ে রাখুন।
  • পায়ের নখ ছোট ও পরিষ্কার রাখুন। তাহলে জীবাণুর লুকিয়ে থাকার জায়গা কমে যাবে।
  • দীর্ঘ সময় জুতা মোজা পরে থাকবেন না, সম্ভব হলে অফিসের জন্য আলাদা স্যান্ডেল রাখুন ।
  • বেকিং সোডার অ্যাসিডিক উপাদান পা পরিষ্কার রাখতে সহায়তা করে এবং পায়ে ব্যাকটেরিয়া জন্মাতে দেয় না। তাই পয়ের দুর্গন্ধ দূর করার কাজে প্রথমে পা দু’টো ভালো করে পরিষ্কার করে, পায়ে সামান্য বেকিং সোডা ভালো করে ঘষে নিন। কিছুক্ষণ এভাবে রেখে এবার মোজা পরুন। এতে ঘাম হবে না এবং দুর্গন্ধ থেকেও মুক্তি পাওয়া যাবে। 
  • সুতির মোজা ব্যবহার করুন। সুতি মোজা পায়ের ঘাম শোষণ করে। এতে ঘাম কম হবে। ফলে গন্ধ হবে না। প্রতিদিন বাড়ি ফিরে পা পরিস্কার করুন এবং রাতে ময়েশ্চারাইজার ব্যবহার করুন পায়ে। 
  • পরপর দুই দিন একই মোজা ব্যবহার করা থেকে বিরত থাকতে হবে। প্রতিদিনই পরিষ্কার মোজা ব্যবহার করুন।
  • পায়ের পাতায় ঘাম হওয়া থেকে মুক্তি পাওয়ার জন্য চা-পাতা ব্যবহার করতে পারেন। ফুটানো চা-পাতা দিয়ে প্রতিদিন ২০ মিনিট করে পা ভিজিয়ে রাখুন। এতে পা ঘামার পরিমাণ কমে যাবে। 
  • প্রতিদিন একবার অ্যান্টিফ্যাঙ্গাল ফুট স্প্রে ব্যবহার করলে পায়ে দুর্গন্ধ হওয়ার সমস্যা কমবে। স্প্রে করতে না চাইলে অ্যান্টিফ্যাঙ্গাল পাউডারও ব্যবহার করতে পারেন। পায়ে অ্যান্টিফাঙ্গাল স্প্রে করে বা পাউডার দিয়ে তারপরে মোজা পরে নিতে হবে। এতে পায়ে জীবাণুর বিস্তার কম হয়। ফলে দুর্গন্ধও হয় না।

মন্তব্য করুন

Epaper

সাপ্তাহিক সাম্প্রতিক দেশকাল ই-পেপার পড়তে ক্লিক করুন

Logo

ঠিকানা: ১০/২২ ইকবাল রোড, ব্লক এ, মোহাম্মদপুর, ঢাকা-১২০৭

© 2022 Shampratik Deshkal All Rights Reserved. Design & Developed By Root Soft Bangladesh

// //