শুরু থেকে ১৮ বছর পাঠকপ্রিয়তা ধরে রেখেছে সমকাল: তথ্যমন্ত্রী

তথ্য ও সম্প্রচারমন্ত্রী এবং আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ বলেছেন, দৈনিক সমকাল শুরুতেই পাঠকপ্রিয়তা অর্জন করেছে এবং ১৮ বছর পাঠকপ্রিয়তা ধরে রেখেছে।

আজ শনিবার (৭ অক্টোবর) রাজধানীর তেজগাঁও শিল্প এলাকায় টাইমস মিডিয়া ভবনে দৈনিক সমকাল পত্রিকার ১৯তম বর্ষে পদার্পণ উপলক্ষে পত্রিকার পক্ষ থেকে আয়োজিত অনুষ্ঠানে মন্ত্রী তার শুভেচ্ছা বার্তায় একথা বলেন। পত্রিকার সম্পাদক আলমগীর হোসেন, নগর সম্পাদক শাহেদ চৌধুরী, প্রধান প্রতিবেদক লোটন একরাম, পত্রিকার সকল সদস্য ও অতিথিবৃন্দ এসময় উপস্থিত ছিলেন।

সমকালের জন্য শুভ কামনা জানিয়ে মন্ত্রী বলেন, আমি আশা করবো, সমকাল শতবর্ষী হোক এবং পত্রিকাটি শুধু সমাজের দর্পণ হিসেবেই নয়, সমাজ গঠনেও কাজ করবে। দায়িত্বশীল সমালোচনা করবে, একই সাথে দেশ, সমাজ ও রাষ্ট্রের গৌরব গাথাও তুলে ধরবে।

সমকালতার ভবিষ্যতের পথচলায় মুক্তিযুদ্ধের চেতনাকে ধারণ করে স্বপ্নের বাংলাদেশ বিনির্মাণে ভূমিকা রাখবে, প্রত্যাশা ব্যক্ত করে হাছান মাহমুদ বলেন, ‘আজকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হাত ধরে বাংলাদেশ যেভাবে অদম্য গতিতে এগিয়ে চলেছে, আশা করি সেই অগ্রযাত্রায় সমকাল পত্রিকা সারথি হবে।’

সংবাদপত্রের সাথে ছেলেবেলার স্মৃতিচারণ করে তথ্যমন্ত্রী বলেন, ‘বাল্যকালে আমি ছোটদের পাতায় লিখতাম। যেদিন আমার কোনো লেখা বা কবিতা ছাপা হতো, সেদিন আমার কি যে আনন্দ হতো! বড়দের কাছে গিয়ে সেটি দেখাতাম। সেসব এখনো আমার স্মৃতিতে জ্বলজ্বল করছে।’

‘এখন অনেক পত্রিকা ছোটদের পাতা বের করে না, কিন্তু এই ধরনের পাতা প্রকাশের জন্য সমকালসহ সকল পত্রিকার প্রতি আমার আহ্বান থাকবে’ উল্লেখ করেন মন্ত্রী।

এদিকে, ১৮ বছর পূর্তিতে সমকাল তার এক সম্পাদকীয়তে লিখেছে  সমকালের এই অর্জনের পথ কুসুমাস্তীর্ণ ছিল না। প্রথমেই বলিতে হয় ডিজিটাল মিডিয়ার বাড়বাড়ন্তের যুগে মুদ্রণমাধ্যমের ক্রমবর্ধমান চ্যালেঞ্জের সম্মুখীন হইবার কথা। সেইখানে যখনই ঘটনা তখনই খবর হয়। কিন্তু তথ্যের সত্যতা ও বয়ানের সততা পাঠককে অন্তত ঘটনার উৎস ও কার্যকারণ জানিতে অপেক্ষার প্রহর গুনিতে হয় না। তদুপরি রহিয়াছে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ভুয়া সংবাদের ছড়াছড়ি। এই সময়ে কাগজসহ প্রকাশনা উপকরণের অব্যাহত মূল্যবৃদ্ধি, অন্যদিকে তীব্র প্রতিযোগিতায় বিজ্ঞাপনের বাজারের মধ্য দিয়া চলিতে হইতেছে সকল ছাপা পত্রিকাকে।

সমকাল লিখেছে, প্রতিকূলতার বিরুদ্ধে অবিচল থাকাই সাংবাদিকতার নীতি। সেই নীতিতেই অটল থাকিবে সমকাল। গণতন্ত্র, মানবাধিকার এবং মুক্তিযুদ্ধের আদর্শ সমুন্নত রাখিবার পাশাপাশি অসাম্প্রদায়িক ও মুক্তবুদ্ধির বাংলাদেশ গঠনের পক্ষে ভূমিকা রাখা আমাদের সম্পাদকীয় নীতির অবিচ্ছেদ্য অংশ; নারী, ধর্মীয় ও জাতিগত সংখ্যালঘু তথা নিপীড়িত মানুষের পাশে আগামী দিনগুলিতেও সমকাল থাকিবে। আমাদের প্রত্যাশা, এই পথচলায়ও পাঠক, লেখক, বিজ্ঞাপনদাতা ও শুভানুধ্যায়ীগণের সমর্থন অব্যাহত থাকবে।

সাম্প্রতিক দেশকাল ইউটিউব চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন

মন্তব্য করুন

Epaper

সাপ্তাহিক সাম্প্রতিক দেশকাল ই-পেপার পড়তে ক্লিক করুন

Logo

ঠিকানা: ১০/২২ ইকবাল রোড, ব্লক এ, মোহাম্মদপুর, ঢাকা-১২০৭

© 2023 Shampratik Deshkal All Rights Reserved. Design & Developed By Root Soft Bangladesh

// //