ছিন্নমূল শিশুর পাশে খাবার নিয়ে বরিশালের গণমাধ্যমকর্মীরা

ছবি: বরিশাল প্রতিনিধি

ছবি: বরিশাল প্রতিনিধি

করোনাভাইরাসে কর্মহীন ও অসহায় মানুষ ও ছিন্নমূল শিশুদের পাশে খাবার নিয়ে আবারো দাঁড়িয়েছে বরিশালের গণমাধ্যমকর্মীরা। 

গত বছরও করোনায় বিধিনিষেধ শুরু হলে বরিশালের গণমাধ্যমকর্মীরা নদীবন্দরে থাকা ২০০ ছিন্নমূল শিশু ও অসহায়দের খাবারের ব্যবস্থা করেছিল।

গতকাল মঙ্গলবার (২০ এপ্রিল) রাত ৮টায় বরিশাল নদীবন্দরে এই কর্মসূচির ভার্চুয়ালি উদ্বোধন করেন বরিশাল সিটি করপোরেশনের মেয়র সেরনিয়াবাত সাদিক আবদুল্লাহ।

গত বছর ২৮ মার্চ এই কর্মসূচি নিয়ে প্রথম মাঠে নামেন বরিশাল প্রেসক্লাবের সহসভাপতি এসএম জাকির হোসেন। এক পর্যায়ে বরিশালের সব গণমাধ্যমকর্মী এই কর্মসূচির সাথে একাত্মতা প্রকাশ করেন। বিধিনিষেধ যতদিন চলেছে ততদিন তাদের এই উদ্যোগ অব্যাহত ছিল। নিজ নিজ গণমাধ্যমের বাইরে অতিরিক্ত দায়িত্ব হিসেবে প্রতিদিন ২০০ ছিন্নমূল শিশু ও অসহায়দের খাবারের ব্যবস্থা করেছিলেন তারা। পরবর্তী সময় কর্মসূচিতে সহযোগী হন বরিশাল সিটি করপোরেশন, বরিশালের জেলা প্রশাসন, পুলিশ প্রশাসনসহ বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার মানুষ।

এবছর পুনরায় বিধিনিষেধ শুরু হলে গণমাধ্যমকর্মীরা তাদের উদ্যোগ নিয়ে মাঠে নামার প্রস্তুতি নেয়। সেই প্রস্তুতির অংশ হিসেবে বরিশাল সিটি করপোরেশনের মেয়র সাদিক আবদুল্লাহকে জানানো হয়। এরপরই গতকাল আনুষ্ঠানিকভাবে কর্মসূচির সূচনা করা হয়।

বরিশাল নদীবন্দরে আনুষ্ঠানিকভাবে খাবার বিতরণে উপস্থিত ছিলেন- ইন্ডিপেনডেন্ট টেলিভিশনের বরিশাল ব্যুরো প্রধান মুরাদ আহম্মেদ, সমকাল বরিশাল ব্যুরো প্রধান পুলক চ্যাটার্জী, আজকের প্রথম সকালের সম্পাদক কাজী আল মামুন, সময় টেলিভিশনের ফিরদাউস সোহাগ, নিউজ-২৪এর রাহাত খান, প্রেসক্লাবের সাবেক সহ-সাধারণ সম্পাদক মিজানুর রহমান, বর্তমান সহ-সাধারণ সম্পাদক এম মোফাজ্জেল, পাঠাগার সম্পাদক খান রুবেল, চ্যানেল-২৪ এর প্রাচুর্য রানা, কালের কণ্ঠের মইনুল ইসলাম সবুজ, বাংলা নিউজ-২৪ এর মুশফিক সৌরভ, ঢাকা পোস্টের সৈয়দ মেহেদী হাসান, নিউজ বাংলার তন্ময় তপু, বরিশাল নিউজ এডিটরস কাউন্সিলের সভাপতি আরিফিন তুষার, সাধারণ সম্পাদক রিপন হাওলাদার, ভোরের আলোর বার্তা সম্পাদক তন্ময় কুমার নাথ, বরিশাল ফটো সাংবাদিক পরিষদের সিনিয়র সহ-সভাপতি সাইফুল ইসলামসহ বরিশালের গণমাধ্যমকর্মীরা।

কর্মসূচি উদ্বোধন করতে গিয়ে মেয়র সাদিক বলেন, গণমাধ্যমকর্মীদের এটা একটা ব্যতিক্রমী উদ্যোগ। কর্মহীন ও অসহায় মানুষের পাশে তারা খাবার নিয়ে সহযোগী হয়েছেন। তাদের এই উদ্যোগ অব্যাহত থাকুক। আমরা সবাই মিলে করোনার এই মহামারি মোকাবেলা করবো।

এই কর্মসূচির মূল উদ্যোক্তা জাকির বলেন, গণমাধ্যমকর্মীরা সব দুর্যোগে মানুষের পাশে দাঁড়ায়। গত বছর প্রায় দেড় মাসেরও বেশি সময় ধরে খাদ্য সহায়তা নিয়ে পাশে থেকে কাজ করেছেন তারা। আমরা বরিশাল নদীবন্দরে থাকা ছিন্নমূল শিশু ও অসহায়দের জন্য রাতের খাবারের ব্যবস্থা করার চেষ্টা করছি। এর কারণ হচ্ছে নৌবন্দরে থাকা এই ছিন্নমূল শিশুরা ঢাকা-বরিশাল নৌপথের লঞ্চগুলো ও হোটেলের অবশিষ্ট খাবার খেয়ে রাত পার করতো। বর্তমানে হোটেল ও লঞ্চ সার্ভিস বন্ধ থাকায় তাদের খাবার সংকট দেখা দেয়। 

তিনি আরো বলেন, আমরা গত বছরের মতো এবারো প্রশাসনের সহযোগিতা কামনা করছি। একই সাথে সমাজের বিত্তবানরাও এই কর্মসূচির সাথে যোগ দিতে পারেন।

মন্তব্য করুন

Epaper

সাপ্তাহিক সাম্প্রতিক দেশকাল ই-পেপার পড়তে ক্লিক করুন

Logo

ঠিকানা: ১০/২২ ইকবাল রোড, ব্লক এ, মোহাম্মদপুর, ঢাকা-১২০৭

© 2021 Shampratik Deshkal All Rights Reserved. Design & Developed By Root Soft Bangladesh