বিজ্ঞানীকে হত্যা: ইরানকে সংযত থাকার আহ্বান জাতিসংঘের

মোহসিন ফাখরিজাদেহ

মোহসিন ফাখরিজাদেহ

ইরানের শীর্ষ পরমাণু বিজ্ঞানী মোহসিন ফাখরিজাদেহকে হত্যার পর মধ্যপ্রাচ্যে উত্তেজনা বেড়ে যাওয়ার প্রেক্ষাপটে জাতিসংঘ সংযত থাকার আহ্বান জানিয়েছে।

গত শুক্রবার ইরানের বিজ্ঞানীকে হামলা চালিয়ে হত্যা করা হয়। ইরান এ হত্যাকাণ্ডের জন্যে ইসরাইলকে দায়ী করে প্রতিশোধ নেয়ার অঙ্গীকার করে।

গতকাল শনিবার (২৯ নভেম্বর) জাতিসংঘের এক মুখপাত্র বলেন, আমরা সংযত থাকার ও ওই অঞ্চলে উত্তেজনা বাড়ার মতো যেকোনো কাজ থেকে বিরত থাকার আহ্বান জানাচ্ছি। আমরা বিচারবহির্ভূতসহ যেকোনো হত্যাকাণ্ডের নিন্দা জানাচ্ছি।

এদিকে বিশ্লেষকরা বলছেন, এই হত্যাকাণ্ডের ফলে কেবল এই অঞ্চলে তীব্র অস্থিরতা সৃষ্টি হবে না, এরফলে ইরানের সাথে যুক্তরাষ্ট্রের নতুন নির্বাচিত প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের পুনরায় সংলাপের পরিকল্পনা ব্যাপক জটিলতার মধ্যে পড়বে। 

ইরান অভিযোগ করেছে, তাদের চিরশত্রু  ইসরাইল ৫৯ বছরের ফখরিজাদেহকে হত্যার মাধ্যমে ‘বিশৃঙ্খলা’ বপন করার চেষ্টা করছে ও জোরালোভাবে প্রতীয়মান হচ্ছে মার্কিন আশীর্বাদ নিয়ে ইহুদি রাষ্ট্র ইসরাইল এই হত্যাকাণ্ড ঘটিয়েছে।

ওয়াশিংটন আনুষ্ঠানিকভাবে এই অভিযান সম্পর্কে কোনো মন্তব্য করেনি। তবে ইরানের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় বলেছে, বন্দুকধারীরা তেহরানের বাইরে একটি সড়কে ফখরিজাদেহর গাড়ি লক্ষ্য করে গুলি চালায়।

তবে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প এই বিষয়ে অন্যের মন্তব্য পুনরায় টুইট করে বলেছেন, এই বিজ্ঞানী ‘বহু বছর ধরে ইসরাইলি গোয়েন্দা সংস্থা মোসাদের ওয়ান্টেড তালিকায় ছিল।

ইরানের সাথে বহুজাতিক পরমাণু চুক্তি থেকে ২০১৮ সালে ট্রাম্প যুক্তরাষ্ট্রকে প্রত্যাহার করে নেয়ার পর থেকে ইরানের ওপর সর্বাধিক চাপ প্রয়োগের নীতি গ্রহণ করেন ও জানুয়ারিতে হোয়াইট হাউস ছাড়ার আগ পর্যন্ত সেটিতে অব্যাহত থাকবেন বলে প্রতিশ্রুতি ব্যক্ত করেন। মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাইক পম্পেও সম্প্রতি ইসরাইল সফর করেছেন, তিনি শুক্রবার ইরানের ক্ষেপণাস্ত্র কর্মসূচিতে সহযোগিতার জন্য চীন ও রাশিয়ার কিছু কোম্পানির বিরুদ্ধে নতুন করে অর্থনৈতিক অবরোধ আরোপের ঘোষণা দিয়েছেন। -এএফপি

মন্তব্য করুন

Epaper

সাপ্তাহিক সাম্প্রতিক দেশকাল ই-পেপার পড়তে ক্লিক করুন

Logo

© 2021 Shampratik Deshkal All Rights Reserved. Design & Developed By Root Soft Bangladesh