গাজায় হামাস নেতার বাড়িতে বোমা হামলা, নিহত বেড়ে ১৪৯

হামাসের গাজা ভূখণ্ডের রাজনৈতিক ও সামরিক প্রধানের বাড়িতে বোমা হামলা চালিয়েছে ইসরায়েল। রবিবার (১৬ মে) ভোররাতে ইয়াহিয়া আল সিনওয়ারের বাড়িতে হামলা হয় বলে হামাস পরিচালিত টেলিভিশন স্টেশন জানিয়েছে। সিনওয়ার ২০১৭ সাল থেকে গাজায় হামাসের রাজনৈতিক ও সামরিক শাখার প্রধান হিসেবে দায়িত্বপালন করে আসছিলেন। এই সংঘাতে এখন পর্যন্ত গাজায় প্রাণ গেছে অন্তত ১৪৯ জনের, আহত হয়েছেন আরো ৯৫০ জন।

এ হামলার জবাবে হামাসের যোদ্ধারা ইসরায়েলের বাণিজ্যিক রাজধানী তেল আবিবের দিকে এক পশলা রকেট ছোড়ে।

বার্তা সংস্থা রয়টার্স জানিয়েছে, দুই পক্ষের লড়াই সপ্তম দিনে গড়ালেও থামার কোনো লক্ষণ দেখা যাচ্ছে না।

ভূমধ্যসাগরের তীরবর্তী ফিলিস্তিনি ছিটমহলটিতে এদিন ইসরায়েলি হামলায় অন্তত তিন জন নিহত ও বহু আহত হয়েছেন বলে স্থানীয় স্বাস্থ্য কর্মকর্তারা জানিয়েছেন। ছিটমহলটিজুড়ে রাতভর ব্যাপক বোমাবর্ষণের শব্দ পাওয়া গেছে।

তেল আবিবের দিকে ছুটে আসা রকেটের জন্য বাজানো সাইরেনের শব্দে ইসরায়েলিরা হুড়োহুড়ি করে ভূগর্ভস্থ আশ্রয় কেন্দ্রের দিকে ছুটতে শুরু করেন, এ সময় ১০ জনের মতো লোক আহত হন বলে ইসরায়েলি চিকিৎসা কর্মীরা জানিয়েছেন। 

সোমবার ভোররাত থেকে শুরু হওয়া ইসরায়েলি হামলায় গাজায় এ পর্যন্ত ৪১টি শিশুসহ অন্তত ১৪৮ জন নিহত হয়েছেন বলে ফিলিস্তিনি স্বাস্থ্য কর্মকর্তারা জানিয়েছেন। অপরদিকে তাদের দিকে দুইটি শিশুসহ ১০ জন নিহত হয়েছেন বলে ইসরায়েল জানিয়েছে।

শান্তি ফিরিয়ে আনার চেষ্টায় যুক্তরাষ্ট্র, জাতিসংঘ ও মিশরের দূতরা কাজ করে যাচ্ছেন কিন্তু এখনও পর্যন্ত কোনো অগ্রগতির লক্ষণ দেখাতে পারেননি।

ইসরায়েল-ফিলিস্তিনের মধ্যে শুরু হওয়া কয়েক বছরের মধ্যে সবচেয়ে ভয়াবহ এ লড়াই নিয়ে রোববার জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদে বৈঠক হওয়ার কথা রয়েছে।

শনিবার গাজা সিটিতে ইসরায়েল ১২তলা একটি ভবন গুড়িয়ে দিয়েছে। আল জালা নামের এই ভবনটিতে যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক সংবাদমাধ্যম অ্যাসোসিয়েটেড প্রেস (এপি) ও কাতারভিত্তিক সম্প্রচারমাধ্যম আল-জাজিরার কার্যালয় ছিল।

এর পরদিন ইসরায়েল ও হামাস, উভয়েই পরস্পরের বিরুদ্ধে হামলা অব্যাহত থাকবে বলে জানিয়েছে।

ইসরায়েলের সামরিক বাহিনী জানিয়েছে, আল জালা ভবনে হামাসের সামরিক দপ্তর থাকায় এটি বৈধ একটি সামরিক লক্ষ্য ছিল আর হামলার আগে ভবনটি ছেড়ে চলে যাওয়ার জন্য বেসামরিকদের সতর্ক করা হয়েছিল।

মন্তব্য করুন

Epaper

সাপ্তাহিক সাম্প্রতিক দেশকাল ই-পেপার পড়তে ক্লিক করুন

Logo

ঠিকানা: ১০/২২ ইকবাল রোড, ব্লক এ, মোহাম্মদপুর, ঢাকা-১২০৭

© 2021 Shampratik Deshkal All Rights Reserved. Design & Developed By Root Soft Bangladesh