আদালতের রায়ে অশান্ত হয়ে উঠছে যুক্তরাষ্ট্র

ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

যুক্তরাষ্ট্রের উইসকনসিনে পুলিশি নির্যাতন ও বর্ণবাদবিরোধী বিক্ষোভে তিনজনের ওপর গুলি চালানোর অভিযোগ থেকে কিশোর কাইল রিটেনহাউজকে খালাস দেওয়ার রায় নিয়ে অশান্ত হয়ে উঠতে শুরু করেছে যুক্তরাষ্ট্রের পরিস্থিতি। 

শুক্রবার (১৯ নভেম্বর) বিকেল থেকে বেশ কয়েকটি শহরে বিক্ষোভ হয়েছে। নিহতদের পরিবার ও পুলিশ সদস্যরা সবাইকে শান্ত থাকার আহ্বান জানিয়েছেন।

গত বছরের আগস্টে উইসনকনসিনে শ্বেতাঙ্গ পুলিশের গুলিতে জ্যাকব ব্লেক নামে এক কৃষ্ণাঙ্গ আহত হয়। এ ঘটনার জের ধরে উইসকনসিন অশান্ত হয়ে ওঠে। অগ্নিসংযোগ, দাঙ্গা ও লুটতরাজের ঘটনা ঘটে। ২৫ অগাস্ট বর্ণবাদবিরোধী বিক্ষোভে তিন জনকে গুলি করে করেন রিটেনহাউজ। এদের মধ্যে দুজন মারা যায়। রিটেনহাউজের দাবি, নিজের জীবন বাঁচাতে বাধ্য হয়েই গুলি ছুড়তে হয়েছিল তাকে। শুক্রবার পাঁচটি অভিযোগের সবকয়টি থেকে তাকে খালাস দেয় আদালত।

এই রায়ের প্রতিবাদে শুক্রবার বিকেলে পোর্টল্যান্ডে বিক্ষোভ শুরু হলে পুলিশ নগরীতে দাঙ্গা পরিস্থিতি ঘোষণা করেছে। বিক্ষোভকারীরা বাড়িঘরের জানালা ভাঙচুর করেছে। তারা স্থানীয় আদালত জ্বালিয়ে দেওয়ার হুমকিও দিয়েছে।

রায়ের প্রতিবাদে নিউ ইয়র্ক ও শিকাগোতে বিক্ষোভ হয়েছে। তবে এই দুটি শহরে সহিংসতার ঘটনা ঘটেনি। 

রায়ের পর সবাইকে শান্ত থাকার আহ্বান জানিয়ে বাদীপক্ষের আইনজীবীরা বলেছেন, ‘আমাদের এই মুহূর্তে বিচার প্রয়োজন, আরও সহিংসতা নয়।

রায় নিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন খোদ প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন। তিনি বলেছেন, ‘রায় নিয়ে ক্ষুব্ধ ও উদ্বিগ্ন’ ছিলেন তিনি। কিন্তু জুরি তাদের রায় দিয়েছে।

ক্যালিফোর্নিয়ার গভর্নর গ্যাভিন নিউসব টুইটারে লিখেছেন, ‘আজকের আমেরিকা ছ আপনি আইন ভাঙতে পারবেন, সামরিক বাহিনীর জন্য তৈরি অস্ত্র নিয়ে আপনি ঘুরতে পারবেন, মানুষকে গুলি ও হত্যা করতে পারবেন এবং পার পেয়ে যাবেন।

রায়ে অবশ্য উচ্ছাস প্রকাশ করেছেন সাবেক প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। তিনি বলেছেন, ‘আত্মরক্ষার স্বাধীনতা না থাকলে কিছুই থাকলো না।’

মন্তব্য করুন

Epaper

সাপ্তাহিক সাম্প্রতিক দেশকাল ই-পেপার পড়তে ক্লিক করুন

Logo

ঠিকানা: ১০/২২ ইকবাল রোড, ব্লক এ, মোহাম্মদপুর, ঢাকা-১২০৭

© 2021 Shampratik Deshkal All Rights Reserved. Design & Developed By Root Soft Bangladesh

// //