পিয়াস মজিদের একগুচ্ছ কবিতা

এভাবেই

লোকাল বাসে উঠলে
বিতিকিচ্ছিরি রোদ গায়ে লাগার সম্ভাবনা সত্ত্বেও
জানালার পাশের সিটে বসা ভালো।

সিট না পাওয়া, ঘামতে থাকা যাত্রীদের
ক্ষোভ আর হৈচৈয়ের আগুন
পাশের সিটিং যাত্রীর চেয়ে আপনাকে
খানিকটা কম টাচ করবে।
এগিয়ে যাওয়া মানে
সব সময় সামনে চলা বুঝলেও
লোকাল বাসে উঠে সিট না পেয়ে
সামনের দিকে দাঁড়ালে
আপনি হেল্পারের বিপ্লবী ভয়েসে শুনতে পাবেন,
‘আগান আগান। যান, একটু পিছে আগান।’
ভরভরন্ত বাসটা আরও কিছু যাত্রীর আশায়
কোনো স্টপেজে একটু সময় নিয়ে দাঁড়ালেই
উচ্চকিত ভিন্ন ভিন্ন যাত্রীর যুগপৎ বিদ্রোহী স্বর,
‘বাসা থেকে লোক ডেকে এনে উঠাবা নাকি মামা?’
তারপর যে যার গন্তব্যে নেমে গিয়ে
শান্তিকামী যাত্রী-ভাগিনারা
বাসে জন্ম নেয়া বিপ্লব আর বিদ্রোহের গায়ে
পানি ঢালতে ঢালতে
আগামীকালের আরও
আগুন গরম এপিসোডের অপেক্ষায় থাকে।

মেঘলা মোহাম্মদপুরে

এই মেঘ
মোহাম্মদপুরের মেঘ,
মিশে আছে
কিছুটা মোগল মেঘও।
(আর কিছুর মতো মেঘও যেহেতু মৌলিক না)
মেঘলা লাশের জমিনে বৃষ্টি বুনেছিলাম;
ভিজতে ভিজতে রসুনের কথা ভুলে গেছি বেমালুম।
অথচ শুক্রবার দুপুর আসলে
আমাদের নাকের ঠিক মনে পড়ে
গরুর মাংসের গন্ধমাতাল
নিম্নমধ্যবিত্ত সপ্তাহ!
মাংসবিত্ত আজকাল
নিজের মাংস নিজেই খাই
(এইটা এখনও খাওয়ার কেউ নাই)
ঘরে ঘরে শিল্পের শহিদ,
শাদির শহিদ
অথবা জিন্দা লাশের শ্বাস
নাক কিন্তু ০১ টাই!!
আমার সীমাবদ্ধ
ঘ্রাণেন্দ্রিয়ের গোডাউনে এতকিছুর .
ঠিকঠাক জায়গা হবে তো মাবুদ?

গানখেত থেকে

সুর শেষ
উপবাসী গায়িকা
গানের খেতে খোঁজে
ধানের নূপুর।
চিটার বাস্তবের পিছে
গোলার স্মৃতি;
ভবিষ্যৎ গেরস্তের পালা মুরগি
যতটুকু না হলেই নয়
সীমাবদ্ধ ততটুকু কক কক কক!

ঘুরেফিরে

ট্রাভেলগ লিখি না
বুঝে আসে না
সুন্দর শর্ষে কী করে
পায়ের তলায় থাকে!
পথের ০৫ পাশটা যে মুখস্থ করে
সে আমি
না আমার পাঠপ্রতিনিধি?
০৪ দিক যখন পাতানো সবুজ,
অর্গানিক আত্মা নিয়ে
ফের কখনও কোথাও
স্বাস্থ্যপ্রদ সফরের কথা ভাবতে ভাবতে
মানুষ তো অতি-আগামীর
সংক্ষিপ্ত ট্যুর প্ল্যান করে।
অভিজ্ঞতা বলে,
কাউকে দেখা হলে ০১ দিনেই ০১টা বড়ো শহর
দেখা হয়ে যেতে পারে।

জার্নি বাই নাইট

যেকোনো প্রলম্বিত রাতের যাত্রাই
গন্তব্যের আগে
ভোর নামিয়ে ফেলে।
বাসের জানালায়
জমাট ভৈঁরো’তে
কান পেতে ঘ্রাণ পাই;
তীব্রতুমুল গরমেও লোকালিটি
ঘুমের বৃষ্টিতে ভিজে হায়।
যাত্রীর কাজ শুধু
নিদ্রানগরে কোনোমতে
জেগে থাকা বাঁচিয়ে রাখা।
অবশ্য জাগরণের অহেতু গানে
কী আর হয়?
চোরচোট্টারা সব সুর লুটে নিয়ে
ধুমধাড়াক্কা ড্যান্স দ্যায়!
যাত্রাবিরতিতে কেউ কেউ
বাসেই ঘুমায়
অনেকে চোখের
নবজাতক কেতর মুছে
বিড়ি-সিগ্রেট টানে, চা-কফি খায়।
ঢাকা থেকে ছেড়ে আসা
০১টা গাড়ি
ক্রমশ রাজশাহী ঢুকে যায়...

সাম্প্রতিক দেশকাল ইউটিউব চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন

Ad

মন্তব্য করুন

Epaper

সাপ্তাহিক সাম্প্রতিক দেশকাল ই-পেপার পড়তে ক্লিক করুন

Logo

ঠিকানা: ১০/২২ ইকবাল রোড, ব্লক এ, মোহাম্মদপুর, ঢাকা-১২০৭

© 2022 Shampratik Deshkal All Rights Reserved. Design & Developed By Root Soft Bangladesh

// //