চিরনিদ্রায় শায়িত মওদুদ আহমদ

সর্বস্তরের মানুষের শ্রদ্ধা ও ভালোবাসায় মা-বাবার কবরের পাশে চিরনিদ্রায় শায়িত হলেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ।

শুক্রবার (১৯ মার্চ) সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায় নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জ উপজেলার মানিকপুর গ্রামের পারিবারিক কবরস্থানে বাবা মাওলানা মমতাজ উদ্দিন ও মা আম্বিয়া খাতুনের পাশে তাকে শায়িত করা হয়।

এর আগে শুক্রবার দুপুর ২টা ৫০ মিনিটে তার মওদুদ আহমদের মরদেহ বহনকারী হেলিকপ্টারটি কবিরহাট সরকারি কলেজ মাঠে অবতরণ করে।

এ সময় সেখানে আগে থেকেই অবস্থান করছিলেন বিএনপির নেতাকর্মীসহ আপামর জনতা। প্রিয় নেতাকে একটি বারের জন্য কাছে গিয়ে দেখতে চেষ্টা করেন অনেকে।

কবিরহাট উপজেলা বিএনপির সভাপতি মোস্তাফিজুর রহমান মঞ্জু বলেন, ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদের প্রথম জানাজা কবিরহাট সরকারি ডিগ্রি কলেজ মাঠে অনুষ্ঠিত হয়। এরপর বিকেল সাড়ে ৪টায় জানাজা হয় উনার প্রিয় ক্যাম্পাস বসুরহাট সরকারি মুজিব কলেজ মাঠে এবং শেষ জানাজা হয় বিকেল সাড়ে ৫টায় তার গ্রামের বাড়ি মানিকপুরে। সেখানে জানাজা শেষে বাবা মাওলানা মমতাজ উদ্দিন ও মা আম্বিয়া খাতুনের পাশে তাকে দাফন করা হয়।

জানা গেছে, মৃত্যুর আগে তিনি বাবা-মায়ের কবরের পাশে সমাধিস্থ হওয়ার ইচ্ছা প্রকাশ করে গেছেন। তার ইচ্ছা অনুযায়ী পরিবারের পক্ষ থেকে সেই ব্যবস্থা করা হয়।

নোয়াখালী-৫ (কবিরহাট-কোম্পানীগঞ্জ) আসন থেকে তিনি পাঁচবার সংসদ সদস্য নির্বাচিত হয়েছিলেন। মওদুদ আহমদের মৃত্যুতে তার নির্বাচনী এলাকা কবিরহাট-কোম্পানীগঞ্জ এলাকার মানুষ শোকাহত।

এর আগে রাজধানীর নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদের তৃতীয় জানাজা হয়।  শুক্রবার সকাল ১১টার দিকে এ জানাজা হয়।

জানাজায় অংশ নেন বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরসহ মওদুদ আহমদের দীর্ঘদিনের রাজনৈতিক জীবনের সহযোদ্ধারা। জানাজার আগেই নয়াপল্টনের দলীয় কার্যালয়ের সামনের পুরো এলাকা দলীয় নেতাকর্মী ও সাধারণ জনগণে পরিপূর্ণ হয়ে যায়।

এর আগে আজ সকাল সোয়া ৯টার দিকে এভারকেয়ার হাসপাতাল থেকে মওদুদ আহমদের মরদেহ কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে পৌঁছায়। ব্যারিস্টার মওদুদের মরদেহ শহীদ মিনারে আসার আগে থেকে দলীয় নেতাকর্মীসহ সাধারণ মানুষ সেখানে অবস্থান করছিলেন। সকাল ১০টা পর্যন্ত মরহুমের মরদেহ রাখা হয় সেখানে। শ্রদ্ধা নিবেদন করেন বিএনপির নেতা-কর্মীদের পাশাপাশি বিভিন্ন দল ও সংগঠন। কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে শ্রদ্ধা নিবেদন শেষে মওদুদ আহমদের মরদেহ নেয়া হয় তাঁর দীর্ঘ দিনের কর্মস্থল সুপ্রিম কোর্টে প্রাঙ্গণে। সেখান থেকে মওদুদের মরদেহ তৃতীয় জানাজার জন্য বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে নেয়া হয়।

বসুরহাট ও কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা মাঠে বাদ আসর জানাজা শেষে পারিবারিক কবরস্থানে মা-বাবার কবরের পাশে দাফন করা হবে ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদকে।

এর আগে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদের মরদেহ গতকাল বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা ৬টা ৩ মিনিটে তাঁর মরদেহ ঢাকার হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে পৌঁছায়।

সিঙ্গাপুরের মাউন্ট এলিজাবেথ হাসপাতালে গত মঙ্গলবার সন্ধ্যা ৬টার দিকে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ। সেখানে প্রবাসীরা তাঁর প্রথম জানাজায় অংশ নেন।

মন্তব্য করুন

Epaper

সাপ্তাহিক সাম্প্রতিক দেশকাল ই-পেপার পড়তে ক্লিক করুন

Logo

ঠিকানা: ১০/২২ ইকবাল রোড, ব্লক এ, মোহাম্মদপুর, ঢাকা-১২০৭

© 2021 Shampratik Deshkal All Rights Reserved. Design & Developed By Root Soft Bangladesh