রিমান্ড শেষে কারাগারে কাদের-নোমানী

আহমদ আবদুল কাদের ও নুরুজ্জামান নোমানী।

আহমদ আবদুল কাদের ও নুরুজ্জামান নোমানী।

২০১৩ সালে রাজধানীর পল্টন থানার দায়ের করা নাশকতার মামলায় হেফাজতে ইসলামের নেতা আহমদ আবদুল কাদের ও নুরুজ্জামান নোমানীকে রিমান্ড শেষে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

শুক্রবার (৩০ এপ্রিল) ঢাকার মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট ইয়াসমিন আরা তাদের কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন।

গত ২৪ এপ্রিল সন্ধ্যায় ঢাকার আগারগাঁও থেকে গ্রেফতার করা হয় আহমদ আব্দুল কাদেরকে। ২৫ এপ্রিল তাকেকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য পাঁচ দিনের রিমান্ড আবেদন মঞ্জুর করেন অপর একটি আদালত। সেই রিমান্ড শেষে শুক্রবার তাকে আদালতে হাজির করে মামলার তদন্ত শেষ না হওয়া পর্যন্ত জেলহাজতে আটক রাখার আবেদন করেন তদন্ত কর্মকর্তা ডিবির পরিদর্শক তাজুল ইসলাম। শুনানি শেষে বিচারক তাকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন।  

অন্যদিকে, গত ২৬ এপ্রিল নুরুজ্জামান নোমানীকে মিরপুরের বাসা থেকে গ্রেফতার করা হয়। ২৭ এপ্রিল নুরুজ্জামান নোমানীর দুই দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন অপর একটি আদালত। সেই রিমান্ড শেষে শুক্রবার তাকে আদালতে হাজির করে তদন্ত শেষ না হওয়া পর্যন্ত জেলহাজতে রাখার আবেদন তদন্ত কর্মকর্তা। আসামিপক্ষে আইনজীবী জামিন আবেদন করেন। শুনানি শেষে বিচারক তাকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন।

২০১৩ সালের ৫ মে ঢাকার ছয়টি প্রবেশমুখে অবরোধ কর্মসূচি দেয় হেফাজতে ইসলাম। অবরোধ কর্মসূচি শেষে হেফাজতের নেতা-কর্মীরা মতিঝিলের শাপলা চত্বরে অবস্থান নেয়। সেদিন শাপলা চত্বরে ওই অবস্থান ঘিরে দিনভর পুলিশের সঙ্গে হেফাজতকর্মীদের সংঘর্ষ চলে। মতিঝিল, পল্টন ও আশপাশ এলাকায় ফুটপাতের শত শত দোকান ভাঙচুর-অগ্নিসংযোগ করে কওমি মাদ্রাসার শিক্ষার্থীরা। তাণ্ডবের শিকার হয় আশপাশের অনেক সরকারি-বেসরকারি স্থাপনা। সেসব ঘটনায় হেফাজতের নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে পল্টন, মতিঝিলসহ বিভিন্ন থানায় মামলা দায়ের করে পুলিশ।

মন্তব্য করুন

Epaper

সাপ্তাহিক সাম্প্রতিক দেশকাল ই-পেপার পড়তে ক্লিক করুন

Logo

ঠিকানা: ১০/২২ ইকবাল রোড, ব্লক এ, মোহাম্মদপুর, ঢাকা-১২০৭

© 2021 Shampratik Deshkal All Rights Reserved. Design & Developed By Root Soft Bangladesh