ভারত থেকে করোনা নিয়ে বিপজ্জনক বার্তা পাচ্ছে বাংলাদেশ : কাদের

ওবায়দুল কাদের। ফাইল ছবি

ওবায়দুল কাদের। ফাইল ছবি

করোনাভাইরাসের ভারতীয় ধরন আরো বেশি ভয়ংকর, তাই সবাইকে সচেতন হওয়ার আহবান জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

তিনি বলেন, দেশে শনাক্ত হয়েছে করোনার ভয়ংকর ভারতীয় ধরন, সামান্যতম উদাসীনতায় বিপদজনক ভবিষ্যতেরই পূর্বাভাস, এমতাবস্থায় সবাইকে সচেতন হতে হবে। ভারত এখন করোনার তাণ্ডবে লণ্ডভণ্ড। ভারত থেকে বিপজ্জনক বার্তা পাচ্ছে বাংলাদেশ।

আজ রবিবার (৯ মে) সকালে কাকরাইলে আইডিইবি ভবনে বঙ্গবন্ধু ডিপ্লোমা প্রকৌশলী পরিষদ আয়োজিত ‘মুজিববর্ষ ও প্রাণঘাতী কোভিড-১৯ দুর্যোগ মোকাবেলায় করণীয়’ শীর্ষক আলোচনা ও দুঃস্থদের মাঝে ত্রাণ সহায়তা বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এই আহবান জানান। তিনি তার সরকারি বাসভবন থেকে ভার্চুয়ালি যুক্ত হন।

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, অক্সিজেন উৎপাদনে বিখ্যাত দেশ হওয়া সত্ত্বেও ভারত আজ চরম সংকটে অক্সিজেনের জন্য, সেখানে হাহাকার লেগেই আছে, ফুটপাতও এখন ভারতের শ্মশানঘাটে পরিণত হয়েছে। আবারো তৃতীয় ঢেউয়ের আভাস পাওয়া যাচ্ছে এবং ভারত থেকে বিপজ্জনক বার্তা পাচ্ছে বাংলাদেশ।

এদেশের জনগণ অতীতে অনেক প্রাকৃতিক ও মনুষ্যসৃষ্ট দুর্যোগ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে সফলতার সাথে মোকাবেলা করছে উল্লেখ করে তিনি বলেন, চলমান করোনা দুর্যোগেও শেখ হাসিনার নেতৃত্বে সফলভাবে মোকাবেলা করতে সক্ষম হবে বাংলাদেশ। তাই এখনই সকলকে সংযমী হতে হবে। এই মহামারি থেকে রক্ষা পেতে ঘরে ঘরে সচেতনতার দুর্গ গড়ে তুলতে হবে।

তিনি আরো বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার আহবানে সাড়া দিয়ে যার যার অবস্থানে থেকে ঈদ উৎযাপন করে এই প্রাণঘাতী করোনাকে প্রতিরোধ করাই এখন একমাত্র অবলম্বন।

অভিন্ন শত্রু  করোনাকে বাদ দিয়ে এখনো দেশে রাজনীতির ব্লেম গেইম চলমান উল্লেখ কাদের বলেন, যত দোষ কেবল নন্দ ঘোষ, শেখ হাসিনা ও তার সরকারের। অথচ বাংলাদেশ এখনো তুলনামূলক ভাবেভালো আছে শেখ হাসিনার মতো সাহসী, দুরদর্শী ও মানবিক নেতৃত্বের কারণে। জীবন ও জীবিকার মধ্যে সমন্বয় করে শেখ হাসিনা পরিস্থিতি অনেকটা নিয়ন্ত্রণে আনতে সমর্থ হয়েছেন, একথা তার নিন্দুকেরাও স্বীকার করেন।

সংগঠনের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা মো. খবির হোসেনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে জাতীয় সংসদের হুইপ ও আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আবু সাইদ আল মাহমুদ স্বপন, ইনস্টিটিউশন অব ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ার্স, বাংলাদেশের (আইডিইবি) সভাপতি এ কে এম এ হামিদ, আইডিইবির সাধারণ সম্পাদক মো. শামসুর রহমান, সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক বীর মুক্তিযোদ্ধা এ কে এম আব্দুল মোতালেব বক্তব্য রাখেন।

মন্তব্য করুন

Epaper

সাপ্তাহিক সাম্প্রতিক দেশকাল ই-পেপার পড়তে ক্লিক করুন

Logo

ঠিকানা: ১০/২২ ইকবাল রোড, ব্লক এ, মোহাম্মদপুর, ঢাকা-১২০৭

© 2021 Shampratik Deshkal All Rights Reserved. Design & Developed By Root Soft Bangladesh