‘মাদ্রাসা বন্ধে আল্লাহ অসন্তুষ্ট, তাই বাড়ছে করোনা’

ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের নায়েবে আমির মুফতি সৈয়দ মুহাম্মদ ফয়জুল করীম।

ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের নায়েবে আমির মুফতি সৈয়দ মুহাম্মদ ফয়জুল করীম।

করোনাভাইরাস সংক্রমণের মধ্যে দেশে মাদ্রাসাগুলো বন্ধ থাকায় আল্লাহ ‘অসন্তুষ্ট’ হয়েছেন মন্তব্য করে ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের নায়েবে আমির মুফতি সৈয়দ মুহাম্মদ ফয়জুল করীম বলেছেন, এজন্যই দেশে করোনা সংক্রমণ ও মৃত্যুর হার বাড়ছে।

রবিবার (১৮ জুলাই) বিকেলে বরিশাল নগরীর চাঁদমারীতে ইসলামী আন্দোলনের দলীয় কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে এসব কথা বলেন তিনি।

ফয়জুল করীম বলেন, দেশের মাদ্রাসাগুলো বন্ধ করে দেয়ায় সেখানে কোরআন তেলওয়াত-দোয়া হচ্ছে না। এ কারণে আল্লাহ অসন্তুষ্ট হওয়ায় করোনার তৃতীয় ঢেউয়ে দেশে আক্রান্ত ও মৃত্যুর সংখ্যা অনেক বেশি হচ্ছে।

করোনাভাইরাস সংক্রমণের মধ্যে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ রাখার সমালোচনা করে তিনি বলেন, স্কুল বন্ধ রেখে জাতিকে মূর্খ করে ফেলছে সরকার। একটি মূর্খ জাতি সৃষ্টির চেয়ে করোনায় মৃত্যুবরণ করা শ্রেয়। শিশুরা খেলার মাঠ, হাটবাজার সর্বত্র যেতে পারলেও তাদের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ রেখে একটি মূর্খ জাতি সৃষ্টি করার দুরভিসন্ধিমূলক উদ্দেশ্য রয়েছে সরকারের।

ঈদুল আজহার পর শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খুলে দেয়া না হলে ‘বড় আন্দোলন’ করার হুমকি দেন দলটির নেতারা। এছাড়া আলেম-ওলামাদের নিঃশর্ত মুক্তি দাবি জানানো হয় সংবাদ সম্মেলনে। 

ফয়জুল করীম বলেন, ‘ডান্ডা, হামলা, মামলা করে মানুষকে আর দাবিয়ে রাখতে পারবে না এ সরকার।’

সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়, গত বছর করোনাভাইরাস সংক্রমণ শুরুর পর ‘চরমোনাই ভলান্টিয়ার সার্ভিস টিম’ গঠন করে ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের নেতাকর্মীরা করোনায় আক্রান্তদের চিকিৎসা ও খাদ্য সহায়তা দিচ্ছে। চাহিদা অনুযায়ী রোগীদের বাড়িতে অক্সিজেন পৌঁছে দিচ্ছে। মৃতদের দাফন এমনকি হিন্দু ধর্মালম্বীদের সৎকার করে দিচ্ছে ইসলামী আন্দোলনের নেতাকর্মীরা। 

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন ইসলামী আন্দোলনের নেতা সৈয়দ নাসির আহমেদ কাওছার, মাওলানা জাকারিয়া হামিদী, মাওলানা লুৎফর রহমান, আবদুল্লাহ আল মামুন টিটু প্রমুখ।

মন্তব্য করুন

Epaper

সাপ্তাহিক সাম্প্রতিক দেশকাল ই-পেপার পড়তে ক্লিক করুন

Logo

ঠিকানা: ১০/২২ ইকবাল রোড, ব্লক এ, মোহাম্মদপুর, ঢাকা-১২০৭

© 2021 Shampratik Deshkal All Rights Reserved. Design & Developed By Root Soft Bangladesh

// //