বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে কটূক্তি: সমালোচনায় ভাসছেন গাজীপুরের মেয়র

গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনের মেয়র মো. জাহাঙ্গীর আলম

গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনের মেয়র মো. জাহাঙ্গীর আলম

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও মহান মুক্তিযুদ্ধ নিয়ে কটূক্তি করার অভিযোগ উঠেছে গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনের মেয়র এবং মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর আলমের বিরুদ্ধে। 

গত ২১ সেপ্টেম্বর মঙ্গলবার সকালে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে একটি ভিডিও ছড়িয়ে পড়লে মুহূর্তের মধ্যে তা সমালোচনায় পরিণত হয়। ওই ভিডিওতে শোনা যায়, মেয়র মুক্তিযুদ্ধে শহীদের সংখ্যা নিয়ে সংশয় প্রকাশ করেছেন, বঙ্গবন্ধুর দেশ স্বাধীন করার উদ্দেশ্য নিয়েও প্রশ্ন তুলেছেন। 

তবে, গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনের মেয়র মো. জাহাঙ্গীর আলমের দাবি, ভিডিও কারসাজি করা হয়েছে। যেসব কথা শোনা যাচ্ছে, সেগুলো সুপার এডিট করা।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমের সেই ভাইরাল হওয়া চার মিনিটের ভিডিওতে দেখা যায়, বঙ্গবন্ধু শেখ মজিবুর রহমান প্রসঙ্গ ছাড়াও গাজীপুর মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি আজমত উল্লাহ খান, যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী জাহিদ আহসান রাসেল, হেফাজতের প্রয়াত নেতা জুনায়েদ বাবুনগরীর সাথে তার সখ্য ও রাষ্ট্রীয় দুটি সংস্থা নিয়ে নানা আপত্তিকর মন্তব্য করার কথাও শুনতে পাওয়া যায় ওই ভিডিওতে। 

বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হওয়া ভিডিওটি নিয়ে সমালোচনার ঝড় তুলে আমজনতা। পরে বুধবার সকালে থেকে আওয়ামী লীগ, শ্রমিকলীগ, যুবলীগ, ছাত্রলীগসহ আওয়ামী লীগের অন্যান্য সংগঠনের নেতাকর্মীরা গাজীপুর মহানগর আওয়ামী লীগে সাধারণ সম্পাদক থেকে মেয়র জাহাঙ্গীর আলমকে বহিষ্কারের দাবিতে মহাসড়ককে বিক্ষোভ করেন। এসময় মেয়র জাহাঙ্গীর আলমকে উগ্রবাদী ও জামায়াত নেতা বলেও আখ্যা দেন নেতা-কর্মীরা। 

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমসহ সকল আমজনতার মাঝে আলোচনা-সমালোচনার সৃষ্টি হলে, গত বৃহস্পতিবার দুপুরে গাজীপুর সিটি মেয়র জাহাঙ্গীর আলমে ব্যক্তিগত ফেজবুক থেকে একটি ভিডিও আপলোড করেন যেখানে বলা হয়েছে, বিভিন্ন ইউটিউব, ফেজবুক বা প্রচার মাধ্যমে আমার জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মজিবুর রহমানের নামে এবং আমার নাম সেখানে জড়িয়ে বিভিন্ন ধরনের মিথ্যা বানোয়াট ভিডিও ছেড়েছে একটি মহল। আওয়ামী লীগের মন্ত্রী, সংসদ সদস্য ও আওয়ামী লীগের সভাপতি এবং বিভিন্ন গোয়েন্দা সংস্থার নাম ধারণ করে আমাকে কিভাবে ছোট কা যায় বা প্রশ্নবিদ্ধ করা যায় সেই কৌশল হিসেবে আমার প্রতিপক্ষরা বিভিন্ন কথা এডিট করে প্রচার মাধ্যম- ইউটিউব ও ফেজবুকে ছেড়েছে। এজন্য আমি দুঃখের সাথে বলছি, এসব অপকর্মের সাথে যারা জড়িত, আওয়ামী লীগকে ও আমাদের নেতৃত্বকে প্রশ্নে ফেরার জন্য অপকৌশল করেছে সেজন্য এর তীব্র নিন্দা জানাই। 

যারা যারা এ অন্যায় কাজ করেছে আমি আইনের সহায়তা নিয়ে আইনগত ব্যবস্থা নিব বলেও জানান সিটি মেয়র। 

তার এ বক্তব্যের পর গাজীপুর গাজীপুর মহানগরের বিভিন্ন স্থানে দলীয় নেতাকর্মীরা মহাসড়ক অবরোধ ও টঙ্গী রেল লাইনেও মেয়র জাহাঙ্গীর আলমের প্রতিচ্ছবিতে কুশপুত্তলিকা দিয়ে বিক্ষোভ করেন। 

বিক্ষোভে ফেটে পড়া নেতা কর্মীরা বলেন, যতক্ষণ পর্যন্ত জাহাঙ্গীর আলমকে গাজীপুর মহানগল আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদকের পদ থেকে বহিষ্কার না করা হবে ততক্ষণ পর্যন্ত বিক্ষোভ চলবেই।

মন্তব্য করুন

Epaper

সাপ্তাহিক সাম্প্রতিক দেশকাল ই-পেপার পড়তে ক্লিক করুন

Logo

ঠিকানা: ১০/২২ ইকবাল রোড, ব্লক এ, মোহাম্মদপুর, ঢাকা-১২০৭

© 2021 Shampratik Deshkal All Rights Reserved. Design & Developed By Root Soft Bangladesh

// //