ইসলামী আন্দোলনও সংলাপে যাবে না

নির্বাচন কমিশন (ইসি) গঠন নিয়ে চলমান রাষ্ট্রপতির সংলাপে অংশ না নেওয়ার ঘোষণা দিয়েছে ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ।

শনিবার (১ জানুয়ারি) দুপুরে রাজধানীর পুরানো পল্টনে দলটির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে এ ঘোষণা দেন দলের আমির মুফতি সৈয়দ মুহাম্মদ রেজাউল করীম।

২০১২ ও ২০১৭ সালের সংলাপে অংশ নিয়ে আমরা চরমভাবে হতাশ জানিয়ে তিনি বলেন, ২০১২ সালের সংলাপে গঠিত ইসি ২০১৪ সালে ক্ষমতাসীনদের ইচ্ছার প্রতিফলন ঘটাতে একতরফা নির্বাচনের আয়োজন করেছে। ২০১৭ সালের সংলাপের পর গঠিত কমিশন ১০১৮ সালে একটি চরম বিতর্কিত ও অগ্রহণযোগ্য নির্বাচন করেছে, যাকে অনেকেই মধ্যরাতের নির্বাচন বলে আখ্যায়িত করে।

ইসলামী আন্দোলনের আমির বলেন, এসব কলঙ্কময় নির্বাচনের জন্য কমিশনকে রাষ্ট্রপতির জবাবদিহিতার আওতায় না আনায় আমরা হতাশ। তাদের বিরুদ্ধে রাষ্ট্রপতি কোনো রকম শাস্তিমূলক ব্যবস্থা গ্রহণ করেননি। তাছাড়া অতীতের দুটি সংলাপে সুষ্ঠু ও গ্রহণযোগ্য নির্বাচনের স্বার্থে রাষ্ট্রপতির কাছে আমাদের গঠনমূলক প্রস্তাবগুলো মূল্যায়ন করা হয়নি। চলমান সংলাপেও এর ব্যতিক্রম কিছু হবে না। তাই এমন একটি আবেদনহীন ও তাৎপর্যহীন সংলাপে অংশ নেওয়াটা ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ সঙ্গত মনে করে না।

সংবাদ সম্মেলনে ৭ দফা দাবি তুলে ধরেন ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের আমির। সেগুলো হলো-
১. নির্বাচন কমিশন গঠন নিয়ে আইন অবশ্যই করত হবে। তবে সেটি করতে হবে সকল রাজনৈতিক দল ও সমাজের স্টেকহোল্ডারদের সমন্বয়ে সাংবিধানিক কাউন্সিল গঠনের মাধ্যমে।
২. দলীয় সরকারের অধীনে সুষ্ঠু নির্বাচন সম্ভব নয়, এ জন্য নির্বাচনের সময় অবশ্যই অন্তর্বর্তীকালীন জাতীয় সরকার গঠন করতে হবে।
৩. বিচারপতি অপসারণের মতো করে নির্বাচন কমিশনের সদস্যদেরও অপসারণের ব্যবস্থা থাকতে হবে।
৪. নির্বাচনকালীন জনপ্রশাসন, আইন, স্বরাষ্ট্র ও তথ্য মন্ত্রণালয়কে নির্বাচন কমিশনের হাতে ন্যস্ত করতে হবে।
৫. নির্বাচন কমিশনের বাজেট, সচিবালয় ও পরিচালনা নির্বাহী বিভাগ থেকে সম্পূর্ণ স্বাধীন করে দিতে হবে।
৬. নির্বাচনের সময় সহিংসতার প্রতিটি অপরাধের বিচার নিশ্চিত করার দায়িত্ব ইসিকে নিতে হবে।
৭. নির্বাচনের সময় স্থানীয় কর্মকর্তাদের দলীয় লেজুড়বৃত্তির অভিযোগ এলে তাদের চিহ্নিত করে তাকে দায়িত্ব থেকে সরিয়ে দিতে হবে।

এর আগে বিএনপি, বাংলাদেশের সমাজতান্ত্রিক দল (বাসদ) এবং মোস্তফা মহসীন মন্টুর নেতৃত্বাধীন গণফোরামও রাষ্ট্রপতির সংলাপে অংশ না নেওয়ার ঘোষণা দিয়েছে।

মন্তব্য করুন

Epaper

সাপ্তাহিক সাম্প্রতিক দেশকাল ই-পেপার পড়তে ক্লিক করুন

Logo

ঠিকানা: ১০/২২ ইকবাল রোড, ব্লক এ, মোহাম্মদপুর, ঢাকা-১২০৭

© 2022 Shampratik Deshkal All Rights Reserved. Design & Developed By Root Soft Bangladesh

// //