ক্ষমতাসীনরা নির্বাচনব্যবস্থাকে কলুষিত করছে: জিএম কাদের

ক্ষমতা ও কালো টাকার খেলায় দেশের নির্বাচনব্যবস্থা কলুষিত হয়েছে। স্বাধীনতার ৫০ বছরেও নির্বাচন কমিশন গঠন আইন না হওয়া লজ্জাজনক। এক সময়ের উৎসবমুখর নির্বাচন এখন ভয় আর আতঙ্কের নাম বলে জানিয়েছেন জাতীয় পার্টি (জাপা) চেয়ারম্যান গোলাম মোহাম্মদ (জিএম) কাদের।

শনিবার (১ জানুয়ারি) রাজধানীর ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশন, বাংলাদেশ (আইইবি) মিলনায়তনে জাপার ৩৬তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে আয়োজিত আলোচনা সভা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে তিনি এ কথা বলেন।

জিএম কাদের বলেন, ‘দেশের নির্বাচনব্যবস্থা ভেঙে পড়েছে। মানুষ রক্তাক্ত নির্বাচন চায় না। দেশের মানুষ খুনোখুনির নির্বাচন পছন্দ করে না।’

তিনি বলেন, ‘ভোটে ভিন্ন মতাবলম্বীদের মাঠে দাঁড়াতে দেয় না ক্ষমতাসীনরা। ক্ষমতার জোরে তারা বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় জয়ী হতে চান। কোথাও কোথাও ক্ষমতাসীনরা প্রশাসনের সহায়তায় নির্বাচনব্যবস্থা কলুষিত করছে। প্রশাসন ও আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা নির্বাচনে ভোট ডাকাতি ও অব্যবস্থাপনার সঙ্গে জড়িয়ে যাচ্ছেন, এটা জাতির জন্য লজ্জাজনক।’ নির্বাচন কমিশন মানুষের আস্থা হারিয়ে ফেলেছে বলে মন্তব্য করেন তিনি।

দলের সিনিয়র কো-চেয়ারম্যান ব্যারিস্টার আনিসুল ইসলাম মাহমুদ বলেন, ‘নির্বাচন কমিশন প্রতিষ্ঠানটি ধ্বংস হয়ে গেছে। চলমান ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) নির্বাচনে প্রমাণ হয়েছে নির্বাচন কমিশন পুরোপুরি ব্যর্থ। আবারও ব্যর্থ হবে এমন নির্বাচন কমিশন আমরা চাই না।’

জাতীয় পার্টি মহাসচিব মো. মুজিবুল হক চুন্নু বলেন, দেশের মানুষ আওয়ামী লীগ ও বিএনপির ওপর বিরক্ত। নির্বাচন কমিশন আইন করতে হবে। সময় নেই এ কথা বললে চলবে না। সরকার চাইলে আমরা নির্বাচন কমিশন গঠন আইন করে দেবো। প্রয়োজনে জানুয়ারি মাসে অনুষ্ঠেয় সংসদ অধিবেশনে আমরা আইনটি তুলতে পারবো। আমরা আর কারও সঙ্গে জোট করবো না, আমরা এককভাবে নির্বাচন করবো। গোলাম মোহাম্মদ কাদেরের নেতৃত্বে কেউ জোটে আসতে চাইলে সেটা ভেবে দেখা যাবে।

আলোচনা শেষে মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান পরিবেশন করেন জাতীয় সাংস্কৃতিক পার্টির সদস্যরা। সভায় আরও বক্তব্য দেন দলটির প্রেসিডিয়াম সদস্য সাহিদুর রহমান টেপা, অ্যাডভোকেট শেখ মুহাম্মদ সিরাজুল ইসলাম, মীর আব্দুস সবুর আসুদ, হাজী সাইফুদ্দিন আহমেদ মিলন, লিয়াকত হোসেন খোকা প্রমুখ।

মন্তব্য করুন

Epaper

সাপ্তাহিক সাম্প্রতিক দেশকাল ই-পেপার পড়তে ক্লিক করুন

Logo

ঠিকানা: ১০/২২ ইকবাল রোড, ব্লক এ, মোহাম্মদপুর, ঢাকা-১২০৭

© 2022 Shampratik Deshkal All Rights Reserved. Design & Developed By Root Soft Bangladesh

// //