ভোটকেন্দ্রের সিসিটিভি ক্যামেরা খুলে ফেলা হচ্ছে : তৈমুর

নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশন (নাসিক) নির্বাচনের স্বতন্ত্র মেয়র প্রার্থী তৈমুর আলম খন্দকার অভিযোগ করেছেন, নারায়ণগঞ্জের যেসব ভোটকেন্দ্রে সিসিটিভি ক্যামেরা আছে, সেগুলো খুলে ফেলা হচ্ছে।

ক্যামেরা না খোলার জন্য নির্বাচন কমিশনের (ইসি) কাছে অনুরোধ করে তিনি বলেন, আমার লোকজনও যদি কেন্দ্রে সহিংসতা করে তবে সেটা সিসিটিভি ক্যামেরায় ধরা পড়বে। তৃতীয় চোখ হিসেবে সাক্ষী থাকুক সিসিটিভি। অন্য কেউ সহিংসতা করলে সেটাও ধরা পড়বে।

গতকাল শুক্রবার (১৪ জানুয়ারি) প্রচার শেষে রাত ১০টার দিকে নগরীর মাসদাইরে নিজ বাসভবনে সংবাদ সম্মেলনে এমন অভিযোগ করেন তিনি।

তৈমুর আলম বলেন, নির্বাচন কমিশন বলছে- ইভিএম মেশিন নষ্ট হলে বা হ্যাং করলে তা মেরামতের জন্য প্রতি কেন্দ্রে একজন করে টেকনিশিয়ান থাকবে। মেশিন মেরামত করার আগে এজেন্টদের দেখিয়ে যেন তা করা হয়।

পাশাপাশি নির্বাচনি এজেন্টদের কেন্দ্রে প্রবেশ ও ভোটগণনা পর্যন্ত নিরাপত্তা দেওয়ার দাবিও জানান তিনি।

নাসিক নির্বাচনকে ঘিরে নগরীর বিভিন্ন বাড়িঘর, হোটেল, সার্কিট হাউজ, ডাকবাংলোয় বহিরাগত লোকজনে ভরে গেছে অভিযোগ করে তিনি বলেন, ভোটের দিন তারা কেন্দ্রে বিশৃঙ্খলা করতে পারে।

তিনি বলেন, নারায়ণগঞ্জের বিভিন্ন হোটেলগুলো চেক করলেই দেখতে পারবেন বিভিন্ন জেলার সরকার দলীয় নেতারা এখানে অবস্থান করছে। সার্কিট হাউস, ডাক বাংলাকে নির্বাচনের কাজে ব্যাবহার করা হচ্ছে। আইনানুসারে সরকারি কোনো গাড়ি ও ডাকবাংলো ব্যাবহার করার নিয়ম নেই। এটা আচরণবিধি লঙ্ঘন। এই আচরণবিধি লঙ্ঘন করেই সরকারি দলের মেহমানরা নির্বাচনকে প্রভাবিত করার চেষ্টা করছে।

তিনি আরও বলেন, আচরণবিধি লঙ্ঘনের ব্যাপারে নির্বাচন কমিশনকে বারবার জানানো হয়েছে। তারা শুধু আশ্বাস দিয়েছে কোনো কার্যকর ব্যবস্থা নেয়নি। জনগণের মনের ধারণা নির্বাচন কমিশন একটা ঠুঁটো জগন্নাথ। তারা সেই পথেই হাঁটছেন। এরপরও আমি নির্বাচন কমিশনের ওপর আস্থা রাখতে চাই।

এদিকে নির্বাচনে প্রচার-প্রচারণার শেষদিন গতকাল বিকেলে তৈমুর আলমের মিছিল-পথসভায় বিএনপির পাশাপাশি জাতীয় পার্টির নেতাকর্মীরাও অংশ নিয়েছেন। 

এসময় ভোটারদের উদ্দেশে তিনি বলেন, ভাগ্যের পরিবর্তন চাইলে সব ভয়-ডর দূরে সরিয়ে হাতি মার্কায় ভোট দিতে স্মার্টকার্ড নিয়ে ভোটকেন্দ্রে যাবেন। ১৮ বছরের চাপা ক্ষোভ-বঞ্চনা থেকে মুক্তি পেতে ভোটাররা হাতি মার্কায় ভোট দেবেন। 

মন্তব্য করুন

Epaper

সাপ্তাহিক সাম্প্রতিক দেশকাল ই-পেপার পড়তে ক্লিক করুন

Logo

ঠিকানা: ১০/২২ ইকবাল রোড, ব্লক এ, মোহাম্মদপুর, ঢাকা-১২০৭

© 2022 Shampratik Deshkal All Rights Reserved. Design & Developed By Root Soft Bangladesh

// //