বাংলাদেশ এখন আইসিইউতে আছে: নুর

গণ অধিকার পরিষদের সদস্য সচিব ও ডাকসুর সাবেক ভিপি নুরুল হক নুর বলেছেন, বর্তমান সরকার গত ১৩ বছরে দেশকে মুমূর্ষু অবস্থায় নিয়ে গেছে, দেশ এখন আইসিইউতে আছে। এ পরিস্থিতি থেকে মুক্তির উপায় একটিই, সেটি হলো অবাধ, সুষ্ঠু ও অংশগ্রহণমূলক নির্বাচন।

আজ শুক্রবার (১৩ মে) জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে বাংলাদেশ যুব অধিকার পরিষদের উদ্যোগে ভোজ্যতেল ও নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যমূল্যের লাগামহীন ঊর্ধ্বগতির প্রতিবাদে আয়োজিত বিক্ষোভ সমাবেশে তিনি এসব কথা বলেন।

নুরুল হক নুর বলেন, খেয়াল করে দেখবেন, সব জিনিসের দাম বাড়ছে। সংসদের ৬২ শতাংশ এমপি ব্যবসায়ী। তারা ব্যবসায়ী সিন্ডিকেটের সাথে জড়িত। প্রতি সপ্তাহে দ্রব্যমূল্যের ঊর্ধ্বগতি লেগেই আছে। সময় থাকতে আপনারা ভালো হয়ে যান। এই ব্যবসায়ী অবৈধ সংসদ সদস্যদের পতন না হওয়া পর্যন্ত বাজারে দ্রব্যমূল্যের ঊর্ধ্বগতি ঠিক হবে না, জনগণের মুক্তি মিলবে না। আর সরকার যদি নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসপত্রের দাম না কমায় তাহলে আমাদের পরবর্তী কর্মসূচি হবে সচিবালয় ঘেরাও।

গণ অধিকার পরিষদের সদস্য সচিব আরো বলেন, আমাদের লক্ষ্য ক্ষমতায় যাওয়া নয়, এ সরকারকে হঠানো নয়, আমাদের লক্ষ্য রাষ্ট্রের কার্যকর সংস্কার। দেশকে একটি প্রকৃত রাষ্ট্র হিসেবে গড়ে তোলা। আমরা চাই একটি অংশগ্রহণমূলক নির্বাচন, দেশের গণতান্ত্রিক ব্যবস্থা ফিরিয়ে আনা।

আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর উদ্দেশে নুরুল হক নুর বলেন, আপনারা কি দেখছেন না বর্তমান সরকার চারদিক থেকে কালো মেঘে আচ্ছন্ন হয়ে গেছে? এখনও আপনারা সরকারের উন্নয়নের গুণগান গেয়ে যাচ্ছেন। এখনও আপনারা বিরোধী দলের নেতাকর্মী দেখলে পেটাচ্ছেন। আপনারা কেন এ নিষেধাজ্ঞা (র‌্যাব ইস্যুতে যুক্তরাষ্ট্রের) পেলেন, এটা কি জনগণের পক্ষে দাঁড়িয়ে পেয়েছেন? না কি জনগণের বিপক্ষের সরকারের পাশে দাঁড়িয়েই এ নিষেধাজ্ঞা পেয়েছেন আপনারা।

সমাবেশে আরো উপস্থিত ছিলেন গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ও ট্রাস্টি ড. জাফরুল্লাহ চৌধুরী, বাংলাদেশ যুব অধিকার পরিষদের সাধারণ সম্পাদক নাদিম হাসান, সাংগঠনিক সম্পাদক মুনতাজুল ইসলাম, যুগ্ম আহ্বায়ক মুহাম্মদ রাশেদ খান, ফারুক হাসন, মাহফুজুর রহমান, সোহরাব হাসান, আবু হানিফ, যুগ্ম সদস্য সচিব আতাউল্লাহ, সাইফুল্লাহ হায়দার, মশিউর রহমান, বাংলাদেশ যুব অধিকার পরিষদের সভাপতি মুনজুর মোর্শেদ মামুন, শ্রমিক অধিকার পরিষদের সভাপতি আব্দুর রহমান, ছাত্র অধিকার পরিষদের সাংগঠনিক সম্পাদক মোল্লা প্রমুখ।

Ad

মন্তব্য করুন

Epaper

সাপ্তাহিক সাম্প্রতিক দেশকাল ই-পেপার পড়তে ক্লিক করুন

Logo

ঠিকানা: ১০/২২ ইকবাল রোড, ব্লক এ, মোহাম্মদপুর, ঢাকা-১২০৭

© 2022 Shampratik Deshkal All Rights Reserved. Design & Developed By Root Soft Bangladesh

// //