‘পদ্মা সেতু বাংলাদেশের সক্ষমতার প্রতীক’

বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক মাহবুব উল আলম হানিফ বলেছেন, পদ্মা সেতুতে বাংলাদেশের মানুষের আবেগ মিশ্রিত। বিএনপি ও ড. ইউনুসসের ষড়যন্ত্রে দুর্নীতির মিথ্যা অভিযোগ তুলে পদ্মাসেতু নির্মাণে বিশ্বব্যাংক অর্থায়ন বন্ধ করিয়ে এই সেতু নির্মাণ আটকে দেওয়ার ষড়যন্ত্র করেছিলো। কিন্তু প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রজ্ঞা ও সাহসী পদক্ষেপের কারণে এ সেতু আজ উদ্বোধনের দ্বারপ্রান্তে রয়েছে। পদ্মাসেতু বাংলাদেশের সক্ষমতার প্রতীক।

গতকাল সোমবার (২৩ মে) বঙ্গবন্ধুকন্যা শেখ হাসিনার ৪২তম স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস উপলক্ষে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয় (বিএসএমএমইউ) আয়োজিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

আলোচনা সভায় তিনি বলেন, বিএনপি-জামায়েত হলো দেশ বিরোধী রাজনৈতিক অপশক্তি। পাকিস্তানের গোয়েন্দা সংস্থার আশীর্বাদে বিএনপির সৃষ্টি। তারা উন্নয়নে বিশ্বাসী নয়। ধ্বংসাত্মক কর্মকান্ড সাধন করাই তাদের প্রধান কাজ।

তিনি আরো বলেন, এখন বিএনপি-জামায়েত বাংলাদেশকে বর্তমান শ্রীলঙ্কার অবস্থায় দেখতে চায়। কিন্তু বাংলাদেশের অর্থনীতির ভিত্তি রেমিট্যান্স, গার্মেন্টস শিল্প ও কৃষিখাত। বর্তমানে এ তিনটি খাতে ভাল অবস্থানে আছে। বাংলাদেশের নাগরিক প্রগতিশীল চিন্তা ধারার মানুষ। এদেশের অবস্থা কখনো বর্তমান শ্রীলঙ্কা বা আফগানিস্তান অথবা পাকিস্তানের মতো হবে না।

আলোচনা সভায় সভাপতিত্ব করেন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ডা. মো. শারফুদ্দিন আহমেদ এবং সঞ্চালনা করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত রেজিস্ট্রার ডা. স্বপন কুমার তপাদার।

বঙ্গবন্ধুকন্যার স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস উপলক্ষে সভাপতির বক্তব্যে বিএসএমএমইউয় উপাচার্য বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দেশে ফেরায় দেশ ও জাতি কলঙ্কমুক্ত হয়েছে। শেখ হাসিনার দেশে ফেরার সিদ্ধান্ত দল হিসেবে আওয়ামী লীগকে, জাতি হিসেবে বাঙ্গালীকে এবং দেশ হিসেবে বাংলাদেশকে নিয়ে গেছে এক ভিন্ন উচ্চতায়। 

তিনি আরো বলেন, দেশের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র এখনো অব্যাহত রয়েছে। শেখ হাসিনা রাষ্ট্রীয় ক্ষমতায় থাকলে, বাংলাদেশ নিরাপদ, বাংলাদেশ মানুষ নিরাপদ থাকবে। উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখা ও মুক্তিযুদ্ধের চেতনা রক্ষায় ষড়যন্ত্রকারীদের বিরুদ্ধে সতর্ক ও ঐক্যবদ্ধ থাকতে হবে। 

আলোচনা সভায় বিএসএমএমইউয়ের উপ-উপাচার্য (গবেষণা ও উন্নয়ন) অধ্যাপক ডা. মো. জাহিদ হোসেন, উপ- উপাচার্য (একাডেমিক) অধ্যাপক ডা. এ কে এম মোশাররাফ হোসেন, উপ-উপাচার্য (প্রশাসন) অধ্যাপক ডা. ছয়েফ উদ্দিন আহমদ, কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক ডা. মোহাম্মদ আতিকুর রহমান, সার্জারি অনুষদের ডিন অধ্যাপক ডা. মোহাম্মদ হোসেন, মেডিসিন অনুষদের ডিন অধ্যাপক ডা. মাসুদা বেগম, নার্সিং ও মেডিক্যাল টেকনোলজি অনুষদের ডিন অধ্যাপক ডা. দেবব্রত বনিক, প্রক্টর অধ্যাপক ডা. মো. হাবিবুর রহমান দুলাল, গ্রন্থাগারিক অধ্যাপক ডা. হারিসুল হকসহ আরো অনেকে বক্তব্য রাখেন।

সাম্প্রতিক দেশকাল ইউটিউব চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন

Ad

মন্তব্য করুন

Epaper

সাপ্তাহিক সাম্প্রতিক দেশকাল ই-পেপার পড়তে ক্লিক করুন

Logo

ঠিকানা: ১০/২২ ইকবাল রোড, ব্লক এ, মোহাম্মদপুর, ঢাকা-১২০৭

© 2022 Shampratik Deshkal All Rights Reserved. Design & Developed By Root Soft Bangladesh

// //