‘সরকার দেশকে শ্রীলংকার পরিণতির দিকে নিয়ে যাচ্ছে’

সরকার রাষ্ট্রকে শ্রীলংকার মতো পরিণতির দিকে এগিয়ে নিচ্ছে বলে মন্তব্য করেছেন জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান ও সংসদের বিরোধী দলীয় উপনেতা গোলাম কাদের।

আজ সোমবার (৮ আগস্ট) কাকরাইল জাতীয় পার্টির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে সামনে এক বিক্ষোভ সমাবেশে তিনি এসব কথা বলেন।

জ্বালানী তেলসহ দ্রব্যমূল্যের অস্বাভাবিক মূল্য বৃদ্ধির প্রতিবাদে আয়োজিত এই কর্মসূচিতে সভাপতিত্ব করেন দলটির মহাসচিব মুজিবুল হক চুন্নু।

জি এম কাদের বলেন, সরকার জনগণের ওপর জুলুম অত্যাচার চালিয়ে যাচ্ছে। রাষ্ট্রের অর্থনৈতিক প্রতিষ্ঠান বীমা ধ্বংস করে দিয়েছে। এই সরকার ক্ষমতায় থাকলে দেশের রাজনীতি শেষ করে দেবে। দেশে গণতন্ত্রের পরিবর্তে জমিদারি কায়দায় ইচ্ছাতন্ত্র চালু করবে।

তিনি বলেন, তেলের দাম যখন বিশ্ব বাজারে নিম্নমুখী তখন সরকার রাতের অন্ধকারে দাম বাড়িয়েছে। এতে করে দেশের প্রতিটি সেক্টরে প্রভাব পড়েছে। আইএমএফ এর পরামর্শে সরকার জনবিরোধী পদক্ষেপ নিয়েছে। সরকারের কাছে আমার প্রশ্ন আইএমএফ এদেশের মানুষকে জবাই করতে বললে আপনারা কি তাই করবেন?

জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান বলেন, জাতীয় সংসদে একাধিকবার আপনারা বলেছেন বিদ্যুৎ মজুদ আছে এমনকি বাংলাদেশ ব্যাংকেরও রিজার্ভ রয়েছে। শ্রীলংকায় ঋণ দিয়েছেন। ব্যাংকের রিজার্ভের কমতি নেই। এই কয়েকদিন আগে পদ্মা সেতু উদ্বোধনের সময় প্রধানমন্ত্রী নিজে বলেছেন অনেক টাকা রিজার্ভ রয়েছে। এক্ষেত্রে আমাদের প্রশ্ন বিদ্যুৎ এবং রিজার্ভ টাকা গেল কোথায়? কড়ায় গণ্ডায় হিসেবে দিতে হবে।

জি এম কাদের বলেন, দেশ কিন্তু শ্রীলংকার দিকে যাচ্ছে এ আশঙ্কা অনেক আগেই করেছি। কারণ শ্রীলংকার ওই সরকারের সাথে বর্তমান সরকারের মিল রয়েছে। ওখানে স্বৈরশাসক ছিল আর তারা মেগা প্রজেক্ট করেছে। ওখানের সরকারের জবাবদিহিতা ছিল না। ঠিক আমাদের দেশেও সরকারের জবাবদিহিতা নেই, মেগা প্রজেক্ট অনেক রয়েছে। এই মেগা প্রজেক্টগুলো চুরি করার জন্য নেওয়া হয়ে থাকে।

তিনি বলেন, ভারতের সরকার জনগণের সরকার। সেখানে স্বৈরশাসক নেই। ভারতের সরকারের কাছে জবাবদিহিতা চাওয়া যায়। আমাদের সরকারের কাছে জবাবদিহিতা চাওয়া যায় না। আমাদের সরকার হলো রাজা। এক সময় জমিদারি প্রথা ছিল সেই জমিদারি প্রথা রাজা। এ জন্যই এই সরকার সকল রাজনৈতিক দল ধ্বংস করার চেষ্টা করছে সরকার চাচ্ছে তার খেয়াল খুশি মতো রাজনীতি করবে দেশ পরিচালনা করবে।

সাম্প্রতিক দেশকাল ইউটিউব চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন

Ad

মন্তব্য করুন

Epaper

সাপ্তাহিক সাম্প্রতিক দেশকাল ই-পেপার পড়তে ক্লিক করুন

Logo

ঠিকানা: ১০/২২ ইকবাল রোড, ব্লক এ, মোহাম্মদপুর, ঢাকা-১২০৭

© 2022 Shampratik Deshkal All Rights Reserved. Design & Developed By Root Soft Bangladesh

// //