শৈত্যপ্রবাহ ২/৩ দিন অব্যাহত থাকতে পারে

নিজস্ব প্রতিবেদক

প্রকাশ: ১৬ জানুয়ারি ২০২১, ০২:১২ পিএম

নওগাঁসহ দেশের কয়েকটি অঞ্চলে মৃদু শৈত্যপ্রবাহ চলছে। ছবি: স্টার মেইল

নওগাঁসহ দেশের কয়েকটি অঞ্চলে মৃদু শৈত্যপ্রবাহ চলছে। ছবি: স্টার মেইল

রংপুর বিভাগসহ দেশের কয়েকটি অঞ্চলে মৃদু শৈত্যপ্রবাহ চলছে এবং এ শৈত্যপ্রবাহ আগামী দুই থেকে তিনদিন অব্যাহত থাকতে পারে বলে আবহাওয়া অফিস জানিয়েছে।

আজ শনিবার (১৬ জানুয়ারি) দেশে সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড হয়েছে শ্রীমঙ্গলে ৭ দশমিক ৯ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

আবহাওয়া অফিস জানায়, শ্রীমঙ্গল, পাবনা, বগুড়া, নওগাঁ, বদলগাছী, দিনাজপুর, চুয়াডাঙ্গা এবং রংপুর বিভাগের অনেক এলাকায় মৃদু শৈত্যপ্রবাহ বয়ে যাচ্ছে ও তা অব্যাহত থাকতে পারে।

আজ সকাল ৬টা থেকে আগামী ২৪ ঘন্টার আবহাওয়ার পূর্বাভাসে জানানো হয়েছে, আংশিক মেঘলা আকাশসহ সারা দেশে আবহাওয়া শুষ্ক থাকতে পারে। মধ্যরাত থেকে সকল পর্যন্ত দেশের নদী অববাহিকায় কোথাও কোথাও মাঝারি থেকে ঘন কুয়াশা পড়তে পারে। দেশের অন্যত্র হালকা থেকে মাঝারি কুয়াশা পড়তে পারে।

আবহাওয়া চিত্রের সংক্ষিপ্তসারে বলা হয়েছে, উপমহাদেশীয় উচ্চ্চাপ বলয়ের বর্ধিতাংশ পশ্চিমবঙ্গ ও তৎসংলগ্ন এলাকায় অবস্থান করছে। মৌসুমের স্বাভাবিক লঘুচাপ দক্ষিণ বঙ্গোপসাগরে অবস্থান করছে।

আবহাওয়া অধিদফতরের আবহাওয়াবিদ মো. শাহিনুল ইসলাম বলেছেন, উপমহাদেশীয় উচ্চচাপ বলয়ের বর্ধিত অংশের প্রভাবে এই মৃদু শৈত্যপ্রবাহ চলছে। এই উচ্চচাপ বলয়ের বর্ধিত অংশ ১৪ জানুয়ারি ভারতের পশ্চিমবঙ্গ ও পার্শ্ববর্তী অঞ্চলে প্রবেশ করে। গত বৃহস্পতিবার থেকে আমাদের দেশের বেশ কিছু অঞ্চল এই উচ্চচাপ বলয়ের প্রভাবে আসে। তবে ধীরে ধীরে এর প্রভাব কমে আসছে।

তিনি আরো বলেন, উচ্চচাপ বলয়টির কেন্দ্র এখন পশ্চিমবঙ্গে অবস্থান করছে। মৌসুমের স্বাভাবিক লঘুচাপ বঙ্গোপসাগরে অবস্থান করছে। আগামী দুই থেকে তিনদিন দেশে তাপমাত্রা প্রায় এখনকার মতোই থাকবে। এরপর বাড়তে পারে। 

আবহাওয়ার পূর্বাভাসে আরো জানানো হয়েছে, সারাদেশে আজ রাত ও দিনের তাপমাত্রা প্রায় অপরিবর্তিত থাকতে পারে। আগামী তিনদিনে আবহাওয়ার সামান্য পরিবর্তন হতে পারে।

আজ ঢাকায় সূর্যাস্ত সন্ধ্যা ৫টা ৩২ মিনিটে ও আগামীকাল ঢাকায় সূর্যোদয় ভোর ৬টা ৪৩ মিনিটে।

প্রধান সম্পাদক: ইলিয়াস উদ্দিন পলাশ | প্রকাশক: নাহিদা আকতার জাহেদী

অনলাইন সম্পাদক: আরশাদ সিদ্দিকী | ঠিকানা: ১০/২২ ইকবাল রোড, ব্লক এ, মোহাম্মদপুর, ঢাকা-১২০৭

Design & Developed By Root Soft Bangladesh