উল্কি ব্যবহারে সতর্ক থাকুন

ডেস্ক রিপোর্ট

প্রকাশ: ২৮ মার্চ ২০২১, ১০:৫৬ এএম

আন্তর্জাতিক ফ্যাশন জগতে বেশ কয়েক বছর ধরে ট্যাটু বা উল্কি জনপ্রিয় হচ্ছে। পোশাক যেমনই হোক শরীরজুড়ে এই শিল্পের কাজ বদলে দিতে পারে আপনার সৌন্দর্য। 

ট্যাটু এক ধরনের শিল্প, যেখানে অমোচনীয় কালি ত্বকের রঙ পরিবর্তন করার জন্য বা অন্য কোনো উদ্দেশে ত্বকের ওপর অংশে ব্যবহার করা হয়। 

গ্ল্যামার জগতের অভিনেতা অভিনেত্রী থেকে শুরু করে এন্টারটেইনমেন্ট জগতের অনেকেই ট্যাটু ব্যবহার করে থাকেন ফ্যাশনের অনুষঙ্গ হিসেবে। আবার অনেক প্রেমিক-প্রেমিকা নিজেদের ভালোবাসাকে আরো মজবুত করার জন্য একে অপরের নাম নিজেদের শরীরে ট্যাটু করে চিরস্থায়ী করে রাখে। 

পিঠে, কোমরে, হাতে, পায়ে, পেটে, মুখে সব জায়গায় ট্যাটু আঁকা যায়। আধুনিক ফ্যাশনে ট্যাটুর কোনো বিকল্প হয় না। যেকোনো ফ্যাশনে নারীদের জন্য শাড়ি, সাথে ব্লাউজ, লিপস্টিক, নেলপালিশের মতোই আনুষঙ্গিক হিসেবে থাকতে পারে ট্যাটু। শাড়ি পরলে ব্লাউজের ডিজাইন অনুযায়ী উন্মুক্ত অংশে ট্যাটু করা যায়, যেকোনো স্লিভলেস পোশাকের জন্য হাতে ট্যাটু করা যায়। নাভির চারপাশে ট্যাটু করা যায়। অনেক ফুটবলার পায়ে ও হাতে অনেকটা অংশজুড়ে ট্যাটু করে। 

তবে ট্যাটু করার আগে কয়েকটি বিষয় মনে রাখতে হবে। যেমন, যেখানে ট্যাটু করবেন সেখান থেকে কার যন্ত্রপাতি যেন সঠিকভাবে স্টেরিলাইজ করা আছে কি না।

১. খালি পেটে বা মদ্যপ অবস্থায় ট্যাটু করতে বসা যাবে না।

২. যেকোনো রকম অসুস্থ অবস্থায় ট্যাটু করানো যায় না।

৩. ট্যাটু করানোর পর সঠিক আহার ও বিশ্রাম প্রয়োজন।

৪. ত্বকের যে জায়গায় ট্যাটু করা হবে, সেই জায়গা যেন পরিষ্কার থাকে।

৫. ট্যাটু করার জায়গা অন্তত ২৪ ঘণ্টা ব্যান্ডেজ করে রাখা দরকার। ট্যাটু করা অংশে লাল বা ফোলা হলে আইসপ্যাক দিতে হবে।

প্রধান সম্পাদক: ইলিয়াস উদ্দিন পলাশ | প্রকাশক: নাহিদা আকতার জাহেদী

ঠিকানা: ১০/২২ ইকবাল রোড, ব্লক এ, মোহাম্মদপুর, ঢাকা-১২০৭

Design & Developed By Root Soft Bangladesh