পশ্চিমবঙ্গে তৃতীয় দফায় ভোট পড়েছে ৮২ শতাংশ

ডেস্ক রিপোর্ট

প্রকাশ: ০৭ এপ্রিল ২০২১, ০২:১২ পিএম

ছবি: আনন্দবাজার পত্রিকা

ছবি: আনন্দবাজার পত্রিকা

আগের তুলনায় সামান্য কমলেও, দিনভর অশান্তির মধ্যেও ভারতের পশ্চিমবঙ্গের বিধানসভা নির্বাচনের তৃতীয় দফার ভোটে স্বতঃস্ফূর্তভাবেই সাড়া দিয়েছেন মানুষ। 

নির্বাচন কমিশনের প্রকাশিত পরিসংখ্যানে তেমনই ইঙ্গিত মিললো। কমিশন জানিয়েছে, গতকাল মঙ্গলবার (৬ এপ্রিল) অনুষ্ঠিত ভোটে সব মিলিয়ে রাজ্যে ৮২.৬২ শতাংশ ভোট পড়েছে। 

যদিও আগের দুই দফার তুলনায় তা খানিকটা কম। প্রথম দু’দফায় রাজ্যে ভোটের পরিমাণ গড়ে ৮৫ শতাংশ ছাপিয়ে গিয়েছিল।

গতকালে ভোটগ্রহণ চলাকালীন সবচেয়ে বেশি হিংসার সাক্ষী থেকেছে হাওড়া ও হুগলি। দুই জেলাতেই কার্যত পেশীশক্তির লড়াই হয়েছে তৃণমূল ও বিজেপির মধ্যে। পরিস্থিতি এমন দাঁড়ায় যে ইটবৃষ্টির মধ্যে মাথায় হেলমেট পড়ে বুথ পরিদর্শনে যেতে হয় উলুবেড়িয়া উত্তর বিধানসভা কেন্দ্রের তৃণমূল প্রার্থী নির্মল মাজিকে। ইটের আঘাতে আহত হন তার দেহরক্ষী। 

অন্যদিকে উলুবেড়িয়া দক্ষিণে আক্রান্ত হন বিজেপি প্রার্থী পাপিয়া অধিকারী। সেখানে তৃণমূল সমর্থকদের বিরুদ্ধে তাকে চড় মারার অভিযোগ ওঠে। তারপরেও ৮৩.৫৫ শতাংশ ভোট পড়ে হাওড়ায়।

তবে হাওড়ার তুলনায় হিংসায় অনেকাংশেই এগিয়ে ছিল হুগলি। গোঘাটে বুথে ভোট দিয়ে ফেরার পথে মৃত্যু হয় এক তৃণমূল নেতার। বিজেপির লোকজন তাকে ধাক্কা মেরে রাস্তায় ফেলে দেন ও তাতেই গুরুতর আঘাত পেয়ে তার মৃত্যু হয় বলে অভিযোগ করে তৃণমূল। আরামবাগ বিধানসভা কেন্দ্রের তৃণমূল প্রার্থী সুজাতা মণ্ডল খাঁর উপর একাধিক জায়গায় হামলা হয়। তারপরেও দিনের শেষে দেখা যায় ৮৩.৭৫ শতাংশ ভোট পড়েছে সেখানে।

দক্ষিণ ২৪ পরগনায় লড়াইটা তৃণমূল বনাম বিজেপির পরিবর্তে, তৃণমূল বনাম আইএসএফ হয়ে দাঁড়ায়। বোমা-গুলি নিয়ে আইএসএফ সন্ত্রাস চালিয়েছে বলে অভিযোগ করেন তৃণমূলের শওকত মোল্লা। তাকে বুথে ঢুকতে দেয়া হয়নি বলে অভিযোগ করেন। শকুন্তলায় আবার তৃণমূলের বিরুদ্ধে পাল্টা সন্ত্রাসের অভিযোগ তুলেছে আইএসএফ। পানাকুয়া, সাতগাছিয়াতেও দফায় দফায় অশান্তির খবর এসেছে। দিনের শেষে দেখা যায়, দক্ষিণ ২৪ পরগনায় ৮১.৬৪ শতাংশ ভোট পড়েছে।

বাংলার পাশাপাশি মঙ্গলবার পুদুচেরি, তামিলনাড়ু, কেরালা ও আসামেও ভোট ছিল। পুদুচেরি, তামিলনাড়ু ও কেরালায় যদিও এক দফাতেই ভোট হয়েছে। তাতে দিনের শেষে পুদুচেরিতে ভোট পড়েছে ৮১.৬৯ শতাংশ। তামিলনাড়ুতে ৭২.৭৮ শতাংশ ভোট পড়েছে ও কেরালায় ভোট পড়েছে ৭৪.০৪ শতাংশ। -আনন্দবাজার পত্রিকা

প্রধান সম্পাদক: ইলিয়াস উদ্দিন পলাশ | প্রকাশক: নাহিদা আকতার জাহেদী

ঠিকানা: ১০/২২ ইকবাল রোড, ব্লক এ, মোহাম্মদপুর, ঢাকা-১২০৭

Design & Developed By Root Soft Bangladesh