ঠাকুরগাঁওয়ে সৎ মাকে হত্যার অভিযোগ

ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধি

প্রকাশ: ০৫ মে ২০২১, ০৭:০৯ পিএম

আম বাগান থেকে নারীর মরদেহ উদ্ধার। ছবি: ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধি

আম বাগান থেকে নারীর মরদেহ উদ্ধার। ছবি: ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধি

ঠাকুরগাঁওয়ে সৎ মা পারভীন আক্তারকে (৫০) হত্যার পর বাড়ির পাশের আম বাগানে ফেলে রাখার অভিযোগ উঠেছে ছেলে সোহেল রানার (৩৫) বিরুদ্ধে। সোহেল রানা উপজেলার বাদামবাড়ী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক।

বুধবার (৫ মে) সকালে জেলার বালিয়াডাঙ্গী উপজেলার বড়পলাশবাড়ী ইউনিয়নের বাদামবাড়ী বাজারের পাশে দাড়িয়াবস্তী গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। নিহত পারভীন আক্তার ওই গ্রামের ইসরাইল হকের দ্বিতীয় স্ত্রী ও উপজেলার দুওসুও ইউনিয়নের মহিষমারী গ্রামের কাসেম হাজীর মেয়ে।

পর্যবেক্ষণ শেষে বালিয়াডাঙ্গী থানা পুলিশ দুপুরে আম বাগান থেকে ওই নারীর মরদেহ উদ্ধার করে মর্গে পাঠিয়েছে। এর আগে মঙ্গলবার রাত থেকে নিখোঁজ ছিলেন পারভীন।

নিহতের মা ফেন্সি বেগম জানান, দীর্ঘদিন ধরে আমার মেয়ের খাওয়া-দাওয়া বন্ধসহ নানাভাবে অত্যাচার করে আসছিল তার সৎ ছেলে সোহেল রানা। তাকে হত্যার পর বাগানে ফেলে রেখে আমাদের খবর দিয়েছে। আমি আমার মেয়ে হত্যার সুষ্ঠু বিচার দাবি করছি।

স্থানীয় চেয়ারম্যান আমিনুল ইসলাম জানান, ঘটনাটি পুলিশ তদন্ত করছে। ইতিমধ্যে সোহেল রানা ও তার বাবা ইসরাইল হককে (৬৪) জিজ্ঞাসাবাদের জন্য থানায় নিয়েছে পুলিশ।

বালিয়াডাঙ্গী থানার ওসি হাবিবুল হক প্রধান বলেন, পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে মরদেহ উদ্ধার করে মর্গে পাঠিয়েছে। বিষয়টি বেশ স্পর্শকাতর, তদন্ত চলছে।

প্রধান সম্পাদক: ইলিয়াস উদ্দিন পলাশ | প্রকাশক: নাহিদা আকতার জাহেদী

ঠিকানা: ১০/২২ ইকবাল রোড, ব্লক এ, মোহাম্মদপুর, ঢাকা-১২০৭

Design & Developed By Root Soft Bangladesh