কাঁঠালের মজাদার রেসিপি

ডেস্ক রিপোর্ট

প্রকাশ: ০১ জুলাই ২০২১, ০১:০৯ পিএম | আপডেট: ০১ জুলাই ২০২১, ০১:১৪ পিএম

কাঁঠালের বিরিয়ানি।

কাঁঠালের বিরিয়ানি।

কাঁঠাল স্বাস্থ্যকর খাবার। রসালো ফল কাঁঠালের সময় এখন। কাঁঠাল নানাভাবে খাওয়া যায়। চলুন আজ আমরা জেনে নিই কাঁঠালের কিছু মজাদার রেসিপি। 

কাঁঠালের বিরিয়ানি
উপকরণ
পোলাওর চাল ৩ কাপ, কাঁচা কাঁঠাল ২ কাপ, পেঁয়াজকুচি ১ কাপ, আদাবাটা ১ টেবিল চামচ, রসুনবাটা ২ চা-চামচ, জিরাগুঁড়া ১ চা-চামচ, ধনেগুঁড়া ১ চা-চামচ, বিরিয়ানি মসলা ১ টেবিল চামচ, হলুদগুঁড়া ১ চা-চামচ, মরিচ গুঁড়া ১ চা-চামচ, এলাচি, দারুচিনি ও তেজপাতা কয়েকটা, কাঁচা মরিচ ৮-১০টি, বেসন ১ টেবিল চামচ, তেল আধা কাপ, ঘি ১ টেবিল চামচ ও লবণ স্বাদমতো।

প্রণালি
পোলাওর চাল পরিষ্কার করে ধুয়ে পানি ঝরিয়ে রাখুন। কাঁঠালের ওপরের সবুজ অংশ ফেলে টুকরা করে নিন। কাঁঠালের টুকরার সাথে সামান্য হলুদ, মরিচ, জিরা, আদা ও রসুনবাটা, লবণ ও বেসন মেখে আধা ঘণ্টা রেখে দিন। একটি পাত্রে ১ চা-চামচ তেল দিয়ে টুকরাগুলোর দুই পাশ হালকা ভেজে নিন। একটা পাত্রে তেল গরম করে পেঁয়াজ ভেজে অর্ধেক তেল ও অর্ধেকটা ভাজা পেঁয়াজ তুলে রাখুন। গরমমসলা ও বাটা মসলা দিয়ে ভাজুন। গুঁড়া মসলা, লবণ ও সামান্য পানি দিয়ে মসলা কষান, এবার ভাজা কাঁঠাল দিয়ে ১ কাপ পানি দিয়ে ঢেকে দিন। পানি শুকিয়ে তেল ওপরে উঠে এলে কাঁঠালের টুকরাগুলো তুলে নিন। পেঁয়াজ ভাজার বাকি তেল ঢেলে দিন। এবার পোলাওর চাল ঢেলে কয়েক মিনিট ভাজুন। ১ কাপ গরম পানি দিয়ে মাঝারি আঁচে ঢেকে দিন। পানি অর্ধেক শুকিয়ে এলে কাঁঠালের টুকরা, কাঁচা মরিচ ৮-১০টি ও স্বাদ বুঝে লবণ দিয়ে নেড়ে চুলার আঁচ কমিয়ে দমে রাখুন। চাল সেদ্ধ হয়ে পানি শুকিয়ে গেলে উপরে ১ টেবিল চামচ ঘি ও পেঁয়াজ বেরেস্তা ছড়িয়ে আরও কয়েক মিনিট মৃদু আঁচে দমে রেখে চুলা বন্ধ করে দিন।


কাঁঠালের কেক
উপকরণ
পাকা কাঁঠালের রস ১ কাপ, ময়দা ১ কাপ, দুধের গুড়া আধা কাপ, ডিম ৪টা, চিনি ১ কাপ, বেকিং পাউডার ১ চা-চামচ ও ঘি ১ টেবিল চামচ, তেল আধা কাপ।

প্রণালি
ডিম ও চিনি ভালোভাবে ফেটিয়ে নিন। কাঁঠালের রসের সাথে মেশান। ময়দা ও বেকিং পাউডার, গুড়া দুধ চেলে অল্প অল্প করে এর সাথে মেশান। ঘি ও তেল ঢেলে ভালোভাবে মিশিয়ে কেকের ডাইসে ঘি বা তেল ব্রাশ করে প্রি-হিট ওভেনে ১৬০ ডিগ্রি তাপে ৩০ মিনিট বেক করুন অথবা চুলায় অল্প আঁচে তৈরি করে নিন।


কাঁচা কাঁঠালের এঁচোড় ভুনা
উপকরণ
কাঁচা কাঁঠাল ৩ কাপ, পেঁয়াজকুচি আধা কাপ, আদাবাটা ১ চা- চামচ, রসুনবাটা ২ চা-চামচ, জিরাগুঁড়া ১ চা-চামচ, ধনেগুঁড়া ১ চা-চামচ, হলুদগুঁড়া ১ চা-চামচ, মরিচ গুঁড়া ১ চা-চামচ, এলাচি ৪/৫ টা, দারুচিনি ২/৩ টা ও তেজপাতা ১টা, কাঁচা মরিচ স্বাদমতো, তেল আধা কাপ, চিংড়ি মাছ ১ কাপ ও  লবণ স্বাদমতো।

প্রণালি
কাঁঠালের ওপরের সবুজ অংশ ফেলে টুকরা করে নিন। কাঁঠালের টুকরা গুলো সামান্য পানি দিয়ে জ্বালান। পানি ফুটে আসলে কাঁঠালের টুকরা গুলো একটি পাত্রে উঠিয়ে নিন। এবার অন্য একটি পাত্রে তেল গরম করে চিংড়ি মাছ গুলো ভেজে ১টি পাত্রে তুলেনিন।  এবার গরম তেলে মসলা দিয়ে ভাজুন। সামান্য পানি দিয়ে মসলা কষান। এবার কাঁঠাল দিয়ে ১ কাপ পানি দিয়ে ঢেকে দিন। পানি শুকিয়ে তেল ওপরে ভেসে আসলে ভেজে রাখা চিংড়ি গুলো দিয়ে দিন। এবার কয়েক মিনিট  ভাজুন। ১ কাপ গরম পানি দিয়ে মাঝারি আঁচে ঢেকে দিন। পানি অর্ধেক শুকিয়ে এলে কয়েকটা কাঁচা মরিচ ও স্বাদ বুঝে লবণ দিয়ে নেড়ে আরো কয়েক মিনিট মৃদু আঁচে দমে রেখে চুলা বন্ধ করে দিন।

প্রধান সম্পাদক: ইলিয়াস উদ্দিন পলাশ | প্রকাশক: নাহিদা আকতার জাহেদী

ঠিকানা: ১০/২২ ইকবাল রোড, ব্লক এ, মোহাম্মদপুর, ঢাকা-১২০৭

Design & Developed By Root Soft Bangladesh