গাজীপুরে পরকীয়ার বলি স্বামী, প্রেমিকসহ স্ত্রী গ্রেফতার

গাজীপুর প্রতিনিধি

প্রকাশ: ১৮ জুলাই ২০২১, ০৬:৩৫ পিএম

জাহিদুল ইসলাম হত্যার ঘটনায় গ্রেফতারকৃতরা

জাহিদুল ইসলাম হত্যার ঘটনায় গ্রেফতারকৃতরা

গাজীপুরের কাশিমপুরে স্ত্রীর পরকীয়ায় বাধা দেয়ায় স্বামী জাহিদুল ইসলামকে (৩০) হত্যা পর নির্মাণাধীন ঘরের মেঝের বালুর নিচে লুকিয়ে রাখা হয়। 

কুড়িগ্রাম ও জামালপুর জেলার বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে স্ত্রী রুপালী খাতুন (১৮) ও তার প্রেমিক মোহাম্মদ সুজন মিয়াকে (১৯) শনিবার রাতে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। 

এর আগে গত ১৬ জুলাই দুপুরে জিএমপি কাশিমপুর থানাধীন পশ্চিম শৈলডুবী এলাকায় ছোফর উদ্দিন ওরফে ছাফুরের নির্মাণাধীন ঘরের মেঝের বালুর নিচে জাহিদুল ইসলামের (৩০) অর্ধগলিত মৃতদেহ উদ্ধার করে পুলিশ।

গ্রেফতারকৃত রুপালী খাতুন কুড়িগ্রামের রৌমারী থানার বড়কান্দি গ্রামের শুকুর আলী দেওয়ানীর মেয়ে এবং জাহিদুলের স্ত্রী ও মোহাম্মদ সুজন মিয়া (১৯) জামালপুর জেলার বকশিগঞ্জ থানার নীলেরচর গ্রামের নজরুল ইসলাম সরকারের ছেলে।

গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের উপ-পুলিশ কমিশনার জাকির হাসান জানান, গত (১৬ জুলাই) লাশটি উদ্ধার করার পরে কাশিমপুর থানায় একটি মামলা রুজু হয়। পরে জিএমপি কাশিমপুর থানা পুলিশের একাধিক টিম কুড়িগ্রাম জেলা এবং জামালপুর জেলার বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে তাদের দুইজনকে গ্রেফতার করা হয়। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে হত্যাকাণ্ডের কথা স্বীকার করেছে গ্রেফতারকৃতরা। 

তাদের দেয়া তথ্যের বরাত দিয়ে জানান, জাহিদুলের স্ত্রী রুপালী খাতুনের সুজনের ৮ থেকে ৯ মাসের পরকীয়া প্রেমের সম্পর্ক ছিলো। ৬ জুলাই রাতে পূর্ব পরিকল্পনা অনুসারে জাহিদুল ইসলামকে রুপালী দুধের সাথে ঘুমের ঔষধ মিশে খাওয়ায়। ওই দিন গভীর রাতে সুজন ঘুমন্ত জাহিদুলের হাতপা চেপে ধরে এবং রুপালী তার বুকের উপর বসে বালিশ চাপা দিয়ে শ্বাসরোধে হত্যা করে। পরে দুইজন মিলে পাশের নির্মাণাধীন ঘরের বালির নিচে মরদেহ চাপা দিয়ে পালিয়ে যায়।

প্রধান সম্পাদক: ইলিয়াস উদ্দিন পলাশ | প্রকাশক: নাহিদা আকতার জাহেদী

ঠিকানা: ১০/২২ ইকবাল রোড, ব্লক এ, মোহাম্মদপুর, ঢাকা-১২০৭

Design & Developed By Root Soft Bangladesh