টক দই নিয়ে বাগবিতণ্ডা, মারধরে কনের বাবার মৃত্যু

ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধি

প্রকাশ: ০৭ অক্টোবর ২০২১, ০৩:০৫ পিএম

ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার মানচিত্র

ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার মানচিত্র

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার কসবা উপজেলায় বরযাত্রীকে পরিবেশন করা দই টক হওয়ার কারণে বরপক্ষের লোকজনের মারধরে কনের বাবার মৃত্যু হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে। 

গতকাল বুধবার (৬ অক্টোবর) রাতে কসবা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে কনের বাবা ইকবাল হোসেনের (৫০) মৃত্যু হয়। তিনি কসবা উপজেরার গোপীনাথপুর ইউনিয়নের গণকমুড়া গ্রামের মৃত আব্দুল গফুরের ছেলে।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, গত মঙ্গলবার (৫ অক্টোবর) দুপুরে ইকবাল হোসেনের মেয়ে কারিমার সঙ্গে পার্শ্ববর্তী বিষ্ণাউড়ি গ্রামের দুলাল মিয়ার ছেলে পারভেজ মিয়ার বিয়ের দিন ধার্য ছিল। বরযাত্রী আসতে দেরি হওয়ায় তাদের খাবার আলাদা করে রাখা হয়। পরবর্তীতে বরযাত্রী আসার পর তাদেরকে খাবার ও দই পরিবেশন করা হলে দুইজন বরযাত্রী দই টক হয়ে গেছে বলে অভিযোগ করেন। এ নিয়ে দুপক্ষের মধ্যে কথাকাটাকাটি হয়। পরে বয়োজ্যেষ্ঠরা বিষয়টি মিমাংসা করে দেন। এরপর বিয়ের আনুষ্ঠানিকতা সম্পন্ন হয়।

নিহতের স্বজনদের অভিযোগ, গতকাল বুধবার রাত ১০টার দিকে গ্রামের বাজারে চা খেতে গেলে কনের বাবা ইকবালকে বরপক্ষের কয়েকজন যুবক দই টক হওয়া নিয়ে আবারও কটু কথা বলেন। এ নিয়ে বাগবিতণ্ডার একপর্যায়ে ওই যুবকরা ইকবালকে মারধর করেন। এতে তিনি অসুস্থ হয়ে পড়লে তাকে কসবা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে সেখানে তার মৃত্যু হয়।

কসবা থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আলমগীর ভূইয়া জানান, বিয়ের খাবার নিয়ে বরপক্ষের মারধরে কনের বাবার মৃত্যু হয়েছে বলে জানতে পেরেছি। তবে এ বিষয়ে থানায় এখনও পর্যন্ত কেউ অভিযোগ করেনি। অভিযোগ পেলে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে।

প্রধান সম্পাদক: ইলিয়াস উদ্দিন পলাশ | প্রকাশক: নাহিদা আকতার জাহেদী

ঠিকানা: ১০/২২ ইকবাল রোড, ব্লক এ, মোহাম্মদপুর, ঢাকা-১২০৭

Design & Developed By Root Soft Bangladesh