ভারতে বাণিজ্য মেলায় বাংলাদেশি নকশিকাঁথা, জামদানি ও পাটপণ্য

ডেস্ক রিপোর্ট

প্রকাশ: ১৪ নভেম্বর ২০২১, ০১:০৯ পিএম

ভারত আন্তর্জাতিক বাণিজ্য মেলা (আইআইটিএফ)

ভারত আন্তর্জাতিক বাণিজ্য মেলা (আইআইটিএফ)

ভারতের রাজধানী নয়াদিল্লিতে ৪০তম ভারত আন্তর্জাতিক বাণিজ্য মেলা (আইআইটিএফ)-২০২১-এ বিভিন্ন বাংলাদেশি পণ্য- বিশেষ করে দেশের ঐতিহ্যবাহী নকশিকাঁথা, জামদানি শাড়ি, ঢাকাই মসলিন শাড়ি, পাট ও কাঠের কারুকাজ প্রদর্শন করা হবে।

মেলা সূত্র জানায়, দেশের অর্থনীতি, রফতানি সম্ভাবনা, অবকাঠামো, সরবরাহ চেইন, চাহিদা ও দেশের প্রাণোচ্ছ্বল জনমিতির ওপর ফোকাস করার লক্ষ্যে মেলাটি আজ ১৪ নভেম্বর থেকে ২৭ নভেম্বর পর্যন্ত শহরের প্রগতি ময়দানে ‘আত্মনির্ভর ভারত’ থিম নিয়ে সংস্কারকৃত প্রদর্শনী হলে অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে।

বিশ্বব্যাপী কোভিড-১৯ মহামারির কারণে ১৯৭৯ সালে সূচনার দ্বিতীয়বার মেলাটি গত বছর অনুষ্ঠিত হতে পারেনি।

ইন্ডিয়া ট্রেড প্রমোশন অর্গানাইজেশন (আইটিপিও) নতুন হলসহ ৭০ হাজার বর্গমিটারের বেশি আয়তনের এলাকায় মেলার আয়োজন করছে। স্থানীয় অংশগ্রহণকারীদের সাথে বাংলাদেশসহ বিশ্বের নয়টি দেশ আইআইটিএফে তাদের পণ্য নিয়ে অংশগ্রহণ করছে।

আইটিপিও’র ম্যানেজিং ডিরেক্টর এলসি গোয়াল মিডিয়াকে জানান, মেলায় তিন হাজারের বেশি  প্রদর্শক, রাজ্য সরকার ও কেন্দ্রীয় মন্ত্রণালয় অংশগ্রহণ করবে, যা বাণিজ্য ও শিল্পের জন্য সোর্সিং, ক্রেতা খোঁজা, ব্যবসায়িক আদান-প্রদান, প্রযুক্তি স্থানান্তরের সুযোগ এবং বাজারে অ্যাক্সেসের জন্য একটি দুর্দান্ত প্ল্যাটফর্ম প্রদান করে। .

আইআইটিএফ প্রদর্শক ও দর্শনার্থী অংশগ্রহণের দিক থেকে বিশ্বের বৃহত্তম বাণিজ্য মেলাগুলোর অন্যতম।

গোয়াল বলেন, তবে বিদেশি অংশগ্রহণ এ বছর কম হবে। এ বছর আফগানিস্তান, বাংলাদেশ, বাহরাইন, কিরগিজস্তান, নেপাল, শ্রীলঙ্কা, সংযুক্ত আরব আমিরাত, তিউনিসিয়া ও তুরস্ক- এ নয়টি দেশ মেলায় অংশ নিচ্ছে।

এদিকে বাংলাদেশ হাইকমিশন সূত্রে জানা গেছে, এবারের মেলায় পণ্য নিয়ে অংশ নিতে রপ্তানি উন্নয়ন ব্যুরোর (ইপিবি) মাধ্যমে পাঁচটি বাংলাদেশি ব্যবসা প্রতিষ্ঠানকে তালিকাভুক্ত করা হয়েছে। সেগুলো হলো- বাংলাদেশ লোকশিল্প ও কারুশিল্প ফাউন্ডেশন, প্রাণ এগ্রো লিমিটেড, আধুনিক জামদানি ও থ্রি পিস, আধুনিকা, জেডএম ট্রেডার্স।

বাংলাদেশের স্টলে প্রদর্শিত পণ্যের মধ্যে রয়েছে- নকশিকাঁথা, জামদানি, ঢাকাই মসলিন, মিরপুর কাতান, রাজশাহী সিল্ক, বুটিক ও সব ধরনের শাড়ি, পাটের পণ্য, কাঠের কারুপণ্য এবং পানীয়, মিষ্টান্ন ও রান্নার আইটেম।

সূত্র জানায়, এ মেলার লক্ষ্য করোনার কারণে বিরাট চ্যালেঞ্জের মুখোমুখি হওয়া ভারতীয় ব্যবসায়িক ভ্রাতৃত্বের অদম্য চেতনা তুলে ধরা। বাণিজ্য মেলার কার্যদিবস ১৩-১৮ নভেম্বর এবং সাধারণ জনগণের জন্য ১৯-২৭ নভেম্বর। দর্শনার্থীদের অতিরিক্ত আকর্ষণের মধ্যে রয়েছে অতীতের মতো রাজ্য দিবস উদযাপন, সেমিনার ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান। -বাসস

প্রধান সম্পাদক: ইলিয়াস উদ্দিন পলাশ | প্রকাশক: নাহিদা আকতার জাহেদী

ঠিকানা: ১০/২২ ইকবাল রোড, ব্লক এ, মোহাম্মদপুর, ঢাকা-১২০৭

Design & Developed By Root Soft Bangladesh