মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত ৬ আসামির খালাস স্থগিত

নিজস্ব প্রতিবেদক

প্রকাশ: ২৩ নভেম্বর ২০২১, ০৮:২৫ পিএম

সুপ্রীম কোর্ট ভবন। ফাইল ছবি

সুপ্রীম কোর্ট ভবন। ফাইল ছবি

ময়মনসিংহের মুক্তাগাছায় শিশু ফরহাদ (৮) হত্যা মামলায় মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত ছয় আসামি এবং যাবজ্জীবনপ্রাপ্ত এক আসামিকে খালাস দিয়ে হাইকোর্টের রায় স্থগিত করেছেন আপিল বিভাগ।

মঙ্গলবার (২৩ নভেম্বর) হাইকোর্টের রায়ের বিরুদ্ধে রাষ্ট্রপক্ষের করা আবেদনের শুনানি নিয়ে আপিল বিভাগের চেম্বার বিচারপতি ওবায়দুল হাসান এ আদেশ দেন।

আদালতে রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল ড. মো.বশির উল্লাহ। 

মামলায় অভিযোগে বলা হয়, পূর্ব শত্রুতার জের ধরে এবং বাড়ির পাশে জুয়া খেলার প্রতিবাদ করাকে কেন্দ্র মুক্তাগাছার খেরুয়াজানি গ্রামের আইয়ুব আলীর সঙ্গে সাজাপ্রাপ্তদের বিরোধ চলছিল। ২০১০ সালের ৪ মে আসামিরা আইয়ুব আলীর শিশু পুত্র ফরহাদকে অপহরণ ও হত্যা করে মরদেহ গর্তে লুকিয়ে রাখা হয়। পরে পরিবারের লোকজন ঘটনার তিনদিন পর ফরহাদের গলিত মরদেহ ওই গর্ত থেকে উদ্ধার করে।

এ ব্যাপারে ফরহাদের পিতা আইয়ুব আলী বাদী হয়ে মুক্তাগাছা থানায় সাতজনের নামে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। পরে এসআই ওমর আলী তদন্ত করে সাত আসামির বিরুদ্ধে আদালতে চার্জশিট দাখিল করেন। বিচার শেষে ২০১৫ সালের ৯ নভেম্বর এ রায় ঘোষণা করেন আদালত। রায়ে পিতা-পুত্রসহ ছয় জনকে মৃত্যুদণ্ড ও এক নারীকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দেন।

দণ্ডপ্রাপ্তরা হলেন মুক্তাগাছার আব্দুল কুদ্দুস ও তার ছেলে সাহেব আলী, ইব্রাহিম ও তার ছেলে জুয়েল, আব্দুল মজিদ মধু এবং মোন্তাজ আলী। যাবজ্জীবন কারাদণ্ডপ্রাপ্ত আসামি হলেন আব্দুল কুদ্দুসের স্ত্রী কমলা খাতুন (৫০)। 

পরে ডেথ রেফারেন্স হাইকোর্টে আসে এবং আসামিরা আপিল করেন। দুটির একসঙ্গে শুনানি শেষে চলতি বছরের ১১ নভেম্বর আসামিদের খালাস দেন হাইকোর্ট। এই খালাসের রায় স্থগিত চেয়ে আপিল বিভাগে আবেদন করে রাষ্ট্রপক্ষ।

প্রধান সম্পাদক: ইলিয়াস উদ্দিন পলাশ | প্রকাশক: নাহিদা আকতার জাহেদী

ঠিকানা: ১০/২২ ইকবাল রোড, ব্লক এ, মোহাম্মদপুর, ঢাকা-১২০৭

Design & Developed By Root Soft Bangladesh