হন্ডুরাসে প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে বামপন্থী শিওমারা ক্যাস্ত্রোর জয়

প্রকাশ: ০১ ডিসেম্বর ২০২১, ১২:০৬ পিএম

জয়ের পর উল্লাস শিওমারা ক্যাস্ত্রোর। ছবি : ডয়চে ভেলে

জয়ের পর উল্লাস শিওমারা ক্যাস্ত্রোর। ছবি : ডয়চে ভেলে

এই প্রথমবার হন্ডুরাস শাসন করবেন বামপন্থী দল লিবার্টি অ্যান্ড রেভলিউশনারি পার্টির (এলআইবিআরএফ) প্রার্থী শিওমারা ক্যাস্ত্রো। এদিকে দেশটির প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে বামপন্থী নেত্রীর জয়কে ‘ঐতিহাসিক’ বলেছে যুক্তরাষ্ট্র।

ক্ষমতাসীন দক্ষিণপন্থী ন্যাশনাল পার্টি অব হন্ডুরাস গতকাল মঙ্গলবার (৩০ নভেম্বর) তাদের হার স্বীকার করে নিয়েছে। এর আগে গত রবিবার (২৮ নভেম্বর) দেশটিতে প্রেসিডেন্ট নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়।

অর্ধেকের বেশি ভোটগণনা হয়েছে; এতে শিওমারা পেয়েছেন ৫৩ শতাংশ ভোট এবং মূল প্রতিদ্বন্দ্বী দক্ষিণপন্থী নার্সি অ্যাসফুরা পেয়েছে ৩৪ শতাংশ ভোট।

হার স্বীকার করে নার্সি বলেন, আমি তাকে জয়ের জন্য অভিনন্দন জানাচ্ছি। আশা করি, ঈশ্বর তাকে পথ দেখাবেন। তার প্রশাসন হন্ডুরাসের ভালো করবে, গণতন্ত্রের চাহিদা মেটাবে এবং উন্নয়নের পথে চলবে।  

হন্ডুরাসের অনেক ভোটদাতার ভয় ছিল, ২০১৭ সালের মতো পরিস্থিতির পুনরাবৃত্তি না হয়। সেবার তীব্র প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ নির্বাচনের পর প্রতিবাদ শুরু হয়। ২৩ জন মারা যান।

শিওমারা জয়ের ফলে হন্ডুরাসে দক্ষিণপন্থী ন্যাশনাল পার্টি সরকারের অবসান হলো। বর্তমান প্রেসিডেন্ট জুলিয়ান অরল্যান্ডো হার্নান্ডেজের আমলে মানুষের ক্ষোভ তুঙ্গে ওঠে। প্রেসিডেন্টের বিরুদ্ধে অভিযোগ ওঠে, তিনি যুক্তরাষ্ট্রে মাদক পাচার কেলেঙ্কারিতে যুক্ত।

শিওমারার স্বামী ও এলআইবিআরই-র কোঅর্ডিনেটর ম্যানুয়েল জেলায়া ২০০৬ থেকে ২০০৯ পর্যন্ত হন্ডুরাসের প্রেসিডেন্ট ছিলেন। কিন্তু অভ্যুত্থানের ফলে তিনি ক্ষমতাচ্যূত হন।

এখন শিওমারা সরকারের সামনে বড় চ্যালেঞ্জ অপেক্ষা করে আছে। বেকারত্বের হার ১০ শতাংশ ছাড়িয়ে গেছে, সহিংসতা বাড়ছে, চাঁদাবাজি চলছে অবাধে। ২০২০ সালে উত্তর হন্ডুরাস দুইটি ভয়ংকর ঘূর্ণিঝড়ে বিধ্বস্ত হয়েছে।

মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী অ্যান্টনি ব্লিংকেন বলেছেন, তিনি শিওমারার সঙ্গে কাজ করার জন্য মুখিয়ে আছেন। হন্ডুরাসে ভোটের হার ছিল খুব ভালো। ভোট শান্তিতে হয়েছে, এর একটা ভালো প্রভাব গণতান্ত্রিক প্রক্রিয়ায় পড়বে। -ডয়চে ভেলে  

প্রধান সম্পাদক: ইলিয়াস উদ্দিন পলাশ | প্রকাশক: নাহিদা আকতার জাহেদী

ঠিকানা: ১০/২২ ইকবাল রোড, ব্লক এ, মোহাম্মদপুর, ঢাকা-১২০৭

Design & Developed By Root Soft Bangladesh