স্বামীকে হত্যায় অর্থ সঞ্চয় করেছিলেন তিনি

ডেস্ক রিপোর্ট

প্রকাশ: ১৩ জুন ২০২২, ০৭:৪৯ পিএম

প্রতীকী ছবি

প্রতীকী ছবি

ভারতে এক রিকশাচালককে হত্যার অভিযোগে তার স্ত্রীকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। পুলিশ জানিয়েছে, স্বামীর নির্যাতন সইতে না পেরে সারা জীবনের সঞ্চয় খরচ করে এ হত্যাকাণ্ড ঘটিয়েছেন স্ত্রী।

গতকাল রবিবার (১২ জুন) ভারতীয় সংবাদ মাধ্যম আনন্দবাজারের এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

প্রতিবেদনে বলা হয়, আমেদাবাদের এলিসব্রিজ এলাকায় বেশ কিছু দিন আগে এক রিকশাচালকের ক্ষতবিক্ষত মরদেহ উদ্ধার হয়। পুলিশ কিছুতেই এই হত্যাকাণ্ডের কোনো সূত্র খুঁজে পাচ্ছিল না। প্রাথমিকভাবে পুলিশের ধারণা ছিল, কোনো বিবাহ-বহির্ভূত সম্পর্ক, টাকাপয়সা লেনদেন নিয়ে শত্রুতার জেরে খুন হয়েছেন তিনি। এই ঘটনায় যে রিকশাচালকের স্ত্রীর হাত রয়েছে, তা প্রথমে ধরতেই পারেননি তদন্তকারীরা। এরপর এলিসব্রিজ এবং তার আশপাশের প্রায় ২০০টি সিসিটিভি ফুটেজ খতিয়ে দেখে প্রকৃত খুনির খোঁজ পায় পুলিশ।

এই ঘটনায় পাঁচ ভাড়াটে খুনিকে গ্রেপ্তার করা হয়। গ্রেপ্তার করা হয়েছে রিকশাচালক শান্তিলালের স্ত্রী রুপেলকেও।

পুলিশ জানিয়েছে, শান্তিলাল এবং রুপেলের বিয়ে হয়েছে ২০ বছর আগে। তাদের একটি সন্তানও রয়েছে। শান্তিলাল রিকশা চালিয়ে উপার্জন করতেন। আর রুপেল কাজ করতেন রেশমের। রুপেলের অভিযোগ, তার স্বামী তাকে প্রতিদিন যৌন এবং মানসিকভাবে নিপীড়ন করতেন। স্বামীর সেই অত্যাচার থেকে মুক্তি পেতে তাকে হত্যার ষড়যন্ত্র করেন রুপেল। এর জন্য তিনি তার সারা জীবনের সঞ্চয়ের চার লাখ টাকা খরচ করে ভাড়াটে খুনিদের কাজে লাগান।

পুলিশ আরো জানায়, শান্তিলালকে এর আগে ১০ বার খুনের চেষ্টা করা হয়েছিল। কিন্তু প্রতিবারই সেই চেষ্টা ব্যর্থ হয়। এরপর খুনিরা যাত্রী সেজে শান্তিলালের রিকশায় ওঠে। তার পরই তাকে পালড়ী নামে একটি জায়গায় নিয়ে গিয়ে ছুরিকাঘাত করে হত্যা করে।

প্রধান সম্পাদক: ইলিয়াস উদ্দিন পলাশ | প্রকাশক: নাহিদা আকতার জাহেদী

ঠিকানা: ১০/২২ ইকবাল রোড, ব্লক এ, মোহাম্মদপুর, ঢাকা-১২০৭

Design & Developed By Root Soft Bangladesh