জীবন সায়াহ্নে পাকিস্তানে থাকতে চান পারভেজ মুশাররফ

ডেস্ক রিপোর্ট

প্রকাশ: ১৬ জুন ২০২২, ০৭:৫০ পিএম

পাকিস্তানের সাবেক রাষ্ট্রপতি পারভেজ মুশাররফ। ফাইল ছবি

পাকিস্তানের সাবেক রাষ্ট্রপতি পারভেজ মুশাররফ। ফাইল ছবি

জীবন সায়াহ্নের সময়টা পাকিস্তানে কাটাতে চান দেশটির সাবেক প্রেসিডেন্ট পারভেজ মুশাররফ।

সম্প্রতি একটি সংবাদমাধ্যমকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে এ ইচ্ছা প্রকাশ করেছেন তিনি।

পারভেজ মুশাররফ বেশ কিছুদিন ধরে অসুস্থ। দুবাইয়ের একটি হাসপাতালে তিন সপ্তাহ চিকিৎসাধীন থাকার পরে চলতি সপ্তাহে ছাড়া পেয়েছেন। গত সপ্তাহে তার মৃত্যুর ভুয়া খবরও ছড়িয়ে পড়েছিল সামাজিক মাধ্যমে। সাবেক এই পাক সেনাশাসক এবার পাকিস্তানে ফিরতে ব্যাকুল।

পারভেজ মুশাররফ ২০১৬ সাল থেকে দুবাইয়ে স্বেচ্ছানির্বাসিত। ২০১৯ সালের ডিসেম্বর দেশদ্রোহের অভিযোগে পাক সন্ত্রাসদমন আদালত তাকে ফাঁসির সাজা দিয়েছিল। ২০০৭ সালে সংবিধান বাতিল করে সাংবিধানিক জরুরি অবস্থা ঘোষণার জন্য তিন সদস্যের বেঞ্চ তাকে মৃত্যুদণ্ডের আদেশ দিয়েছে।

২০১৪ সালে তার বিরুদ্ধে রাষ্ট্রদ্রোহের অভিযোগে চার্জ গঠন হয়েছিল। সাক্ষাৎকারে পারভেজ মুশাররফ জানান, পাকিস্তানে থাকা তার বন্ধুরা এবং ‘প্রভাবশালী মহল’ তাকে দেশে ফেরাতে সক্রিয়।

১৯৯৯ সালের অক্টোবরে রক্তপাতহীন সেনা অভ্যুত্থানে তৎকালীন পাক প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরিফকে সরিয়ে ক্ষমতা দখল করেন সেনাপ্রধান পারভেজ মুশাররফ। প্রবল গণআন্দোলন এবং পাক সুপ্রিম কোর্টের হস্তক্ষেপের জেরে ২০০৮ এর ১৮ অগস্ট প্রেসিডেন্ট পদ থেকেও ইস্তফা দিতে বাধ্য হন তিনি।

২০১৩-এ নির্বাচন লড়তে দেশে ফিরলেও দেশদ্রোহিতার মামলায় গ্রেপ্তার হন তিনি। নিজের ফার্মহাউসেই গৃহবন্দি করে রাখা হয় তাকে। চিকিৎসার জন্য ২০১৬ সালে তাকে দুবাই যাওয়ার অনুমতি দেয় সুপ্রিম কোর্ট। সে বছর মার্চ থেকে সংযুক্ত আরব আমিরাতে রয়েছেন তিনি। সূত্র : আনন্দবাজার

প্রধান সম্পাদক: ইলিয়াস উদ্দিন পলাশ | প্রকাশক: নাহিদা আকতার জাহেদী

ঠিকানা: ১০/২২ ইকবাল রোড, ব্লক এ, মোহাম্মদপুর, ঢাকা-১২০৭

Design & Developed By Root Soft Bangladesh