১৭০০ বাংলাদেশি শ্রমিক ফেরত পাঠিয়ে দিচ্ছে সৌদি কোম্পানি

কূটনৈতিক প্রতিবেদক

প্রকাশ: ১৭ জুন ২০২২, ১১:০৭ এএম

সৌদিতে অবস্থানরত বাংলাদেশি শ্রমিকরা কর্মঘণ্টা শুরুর আগে হাজিরা দিচ্ছেন। ছবি: সংগৃহীত

সৌদিতে অবস্থানরত বাংলাদেশি শ্রমিকরা কর্মঘণ্টা শুরুর আগে হাজিরা দিচ্ছেন। ছবি: সংগৃহীত

সৌদি আরবে মদিনায় অবস্থিত ‘বিয়াহ্‌ ক্লিনিং কোম্পানি’ নামে একটি বেসরকারি প্রতিষ্ঠান প্রায় এক হাজার ৭০০ বাংলাদেশি কর্মীকে ফাইনাল এক্সিট দিয়ে বাংলাদেশে ফেরত পাটিয়ে দিচ্ছে।

গত বুধবার (১৫ জুন) খবরটি নিশ্চিত করেছেন জেদ্দায় অবস্থিত বাংলাদেশ কনস্যুলেটের শ্রম কাউন্সিলর কাজী ইমদাদুল হক।

তিনি জানান, ওই কোম্পানিতে দুই হাজার ২২৫ জন বাংলাদেশি শ্রমিক কাজ করেন। বেতন বাড়ানোর জন্য বাংলাদেশি শ্রমিকরা কয়েক দিন ধরে কর্মবিরতিসহ বিভিন্ন আন্দোলন করে আসছিলেন। অন্যদিকে শ্রমিকদের চুক্তি শেষ হয়ে যাওয়ায় কোম্পানির উচ্চপদস্থ কর্মকর্তারা এসব শ্রমিকদের ছাঁটাইয়ের সিদ্ধান্ত নিয়েছেন।

তবে কোম্পানিতে কর্মরত কয়েকজন শ্রমিকরা ভিন্ন কথা জানিয়েছেন। তারা বলছেন, যারা ছাঁটাইয়ের শিকার হয়েছেন তারা সবাই সাধারণ শ্রমিক। ভুক্তভোগীরা সবাই কোম্পানির সুপারভাইজারদের সিন্ডিকেটের শিকার হয়েছেন। সুপারভাইজাররা কম বেতনে কাজের ধরণ পাল্টে অন্য শ্রমিকদের চাকরি দিচ্ছেন।

তবে এ বিষয়ে জেদ্দা কনস্যুলেট লেবার কাউন্সিলর কাজী এমদাদুল ইসলামের কাছে জানতে চাইলে তিনি জানান, গত দুদিন থেকেই আমরা এ বিষয়ে মদিনা লেবার মিনিস্ট্রিসহ ওই কোম্পানির উচ্চপদস্থ কর্মকর্তাদের সাথে দফায় দফায় আলাপ-আলোচনা করছি। বর্তমানে জেদ্দা কনস্যুলেটের লেভার কাউন্সিলরের একটি প্রতিনিধি দল সেখানে অবস্থান করছেন।

তিনি আরো বলেন, আমরা ওই কোম্পানিতে কর্মরত কয়েকজনের সাথে কথা বলেছি। শ্রমিকরা আমাদের জানিয়েছেন, ওই কোম্পানিতে দীর্ঘ ১৭-১৮ বছর কাজ করেছেন তারা। সব পাওনা বুঝে নিয়ে দেশে যেতে চান তারা।

প্রধান সম্পাদক: ইলিয়াস উদ্দিন পলাশ | প্রকাশক: নাহিদা আকতার জাহেদী

ঠিকানা: ১০/২২ ইকবাল রোড, ব্লক এ, মোহাম্মদপুর, ঢাকা-১২০৭

Design & Developed By Root Soft Bangladesh