মিয়ানমারের কাছে অস্ত্র রপ্তানি করে যাচ্ছে ইসরায়েল

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

প্রকাশ: ০৮ জুলাই ২০২২, ০৯:৩৪ এএম

মিয়ানমার সেনাবাহিনীর কয়েকজন সদস্য। ছবি: এএফপি

মিয়ানমার সেনাবাহিনীর কয়েকজন সদস্য। ছবি: এএফপি

মানবাধিকার সংগঠনগুলোর হুঁশিয়ারি উপেক্ষা করে মিয়ানমারের কাছে অস্ত্র রপ্তানি করে যাচ্ছে ইসরায়েল। মিয়ানমার সরকার দেশটির মুসলমানদের বিরুদ্ধে চালানো দমন অভিযানে এসব অস্ত্র ব্যবহার করেছে। 

হিব্রু ভাষায় প্রকাশিত দৈনিক ইয়াদিউত আহারোনত গতকাল বৃহস্পতিবার (৭ জুলাই) এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে।

বিশ্বের বিভিন্ন দেশের স্বৈরশাসকদের কাছে সমরাস্ত্র বিক্রি করে ইসরায়েল। এসব স্বৈরশাসক প্রকাশ্যে নিজ দেশের জনগণের মানবাধিকার লঙ্ঘন করে যাচ্ছে।

দৈনিক ইয়াদিউত আহারোনত লিখেছে, মিয়ানমারের সামরিক জান্তা ইসরায়েলর অন্যতম অস্ত্র ক্রেতা। ২০১৭ সালে যখন মিয়ানমার সরকার রোহিঙ্গা মুসলমানদের বিরুদ্ধে ভয়াবহ গণহত্যা চালায় তখন আন্তর্জাতিক সমাজের হুঁশিয়ারি উপেক্ষা করে দেশটির সরকারের কাছে সমরাস্ত্র রপ্তানি করে তেল আবিব।

হিব্রু ভাষার দৈনিকটি জানিয়েছে, ইতাই ম্যাক নামের একজন ইসরায়েলি আইনজীবী ২০১৭ সালে মিয়ানমারের কাছে অস্ত্র বিক্রি বন্ধ করতে ইসরায়েলর সর্বোচ্চ আদালতে আবেদন জানিয়েছিলেন। কিন্তু তা সত্ত্বেও মিয়ানমারের সেনাপ্রধান ওই বছর তেল আবিব সফরে যান এবং বিভিন্ন ধরনের বিপুল পরিমাণ অস্ত্র কেনার চুক্তি করেন।

আন্তর্জাতিক সংস্থাগুলোর হিসাব অনুযায়ী, ২০১৭ সালে মিয়ানমার সরকারের ভয়াবহ গণহত্যা ও পদ্ধতিগত শুদ্ধি অভিযান থেকে বাঁচতে প্রায় ১০ লাখ রোহিঙ্গা মুসলমান বাংলাদেশে পালিয়ে যায়। ওই বছর কয়েক হাজার মুসলমান মিয়ানমারের সেনাবাহিনীর হাতে নৃশংসভাবে নিহত হন। বাংলাদেশের বিভিন্ন শরণার্থী শিবিরে বর্তমানে ১০ লাখের বেশি রোহিঙ্গা শরণার্থী জীবনযাপন করছে।

সূত্র: রেডিও তেহরান

প্রধান সম্পাদক: ইলিয়াস উদ্দিন পলাশ | প্রকাশক: নাহিদা আকতার জাহেদী

ঠিকানা: ১০/২২ ইকবাল রোড, ব্লক এ, মোহাম্মদপুর, ঢাকা-১২০৭

Design & Developed By Root Soft Bangladesh