বাসের হাহাকার, ট্রাক-পিকআপে চেপে ঈদযাত্রা

সাভার প্রতিনিধি

প্রকাশ: ০৮ জুলাই ২০২২, ১২:৩৪ পিএম

রাজধানীর গাবতলী থেকে তোলা ছবি। ছবি: সংগৃহীত

রাজধানীর গাবতলী থেকে তোলা ছবি। ছবি: সংগৃহীত

পরিবার-পরিজনের সাথে করতে ঈদ সবাই মুখিয়ে থাকেন। আর মাত্র একদিন পর ঈদুল আযহা। যারা বাড়ি গিয়ে ঈদ করবেন তাদের মধ্যে ৯৫ শতাংশ মানুষ রাজধানী ছাড়ছেন আজ শুক্রবার (৮ জুলাই)। কিন্তু মহাসড়কে যেনো বাসের হাহাকার চলছে। বহু মানুষ বাস না পেয়ে কিংবা অতিরিক্ত ভাড়ার কারণে ট্রাক ও পিকআপে চেপে বাড়ির উদ্দেশে রওনা হয়েছেন।

আজ শুক্রবার সকালে সাভারের হেমায়েতপুর, রেডিওকলোনি, সিঅ্যান্ডবি ও নবীনগরসহ বিভিন্ন এলাকায় যাত্রীদের ঝুঁকি নিয়ে ট্রাক ও পিকআপে চড়তে দেখা গেছে।

বাসে জায়গা না পেয়ে হেমায়েতপুর থেকে আরিচা যাওয়ার জন্য ট্রাকে চেপে বসেছিলেন পোশাকশ্রমিক আরমান আলী। তিনি বলেন, ‘বাস পাওয়া যাচ্ছিল না। দুয়েকটি যা পাওয়া যাচ্ছিল, ভাড়া চাচ্ছিল কয়েকগুণ বেশি। তাই ২০০ টাকা দিয়ে ট্রাকে করে বাড়ি যাচ্ছি।’

রাজধানীর গাবতলী থেকে তোলা ছবি। ছবি: সংগৃহীত

আজ শুক্রবার সকাল থেকেই ঢাকা-আরিচা মহাসড়কে যানবাহনের চাপ বাড়তে থাকে। আমিনবাজার থেকে নবীনগর পর্যন্ত যান চলাচল অনেকটা স্বাভাবিক থাকলেও নবীনগর থেকে ধামরাইয়ের ঢুলিভিটা পর্যন্ত প্রায় সাত কিলোমিটার এলাকায় যানজটে সৃষ্টি হয়েছে।

এছাড়া ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়কের নবীনগর থেকে চন্দ্রা পর্যন্ত থেমে থেমে চলছে যানবাহন। কোথাও কোথাও তৈরি হয়েছে যানজট।

এ ব্যাপারে ঢাকা ট্রাফিক উত্তর অঞ্চলের পরিদর্শক (প্রশাসন) আব্দুস সালাম বলেন, ‘সড়কের পরিস্থিতি স্বাভাবিক করতে আমরা কাজ করছি। আশা করছি দ্রুত পরিস্থিতি স্বাভাবিক হবে।’

যাত্রীরা বলছেন, বাড়ি গিয়ে ঈদ করা নিয়েই এখন শঙ্কা দেখা দিয়েছে। এতো যানজট আগে কখনো তারা দেখেননি বলেও জানিয়েছেন তারা।

প্রধান সম্পাদক: ইলিয়াস উদ্দিন পলাশ | প্রকাশক: নাহিদা আকতার জাহেদী

ঠিকানা: ১০/২২ ইকবাল রোড, ব্লক এ, মোহাম্মদপুর, ঢাকা-১২০৭

Design & Developed By Root Soft Bangladesh