পাটুরিয়া-আরিচাঘাটে ঘরমুখো যাত্রীর ঢল

শিবালয় (মানিকগঞ্জ) প্রতিনিধি

প্রকাশ: ০৯ জুলাই ২০২২, ০১:৫৯ পিএম | আপডেট: ০৯ জুলাই ২০২২, ০২:০০ পিএম

পাটুরিয়া-দৌলতদিয়া ঘাট থেকে তোলা ছবি। ছবি: সংগৃহীত

পাটুরিয়া-দৌলতদিয়া ঘাট থেকে তোলা ছবি। ছবি: সংগৃহীত

পাটুরিয়া-দৌলতদিয়া আরিচা-কাজীরহাট নৌ-পথে ঈদে ঘরমুখো যাত্রীর ঢল নেমেছে। রাজধানীসহ দেশের বিভিন্ন অঞ্চল থেকে পাটুরিয়া-দৌলতদিয়া আরিচা-কাজীরহাট নৌ-পথে ফেরি পারাপারের জন্য ঘাট এলাকায় আসা বাস, কোচ, ট্রাক প্রাইভেট কারসহ বিভিন্ন যানবাহনের যাত্রীর ঘাট এলাকায় উপচে পড়া ভিড় রয়েছে।

  নৌপথে বর্তমানে ২১টি ফেরি ২২টি লঞ্চ দিয়ে যাত্রী যানবাহন পারাপার করা হলেও বেশির ভাগ ফেরির যান্ত্রিক ত্রুটির কারণে মাঝে মধ্যেই বিকল হয়ে মেরামতের জন্য ভাসমান কারখানা মধুমতিতে পড়ে থাকতে হচ্ছে। নৌপথে চলাচলরত ফেরিগুলো বার বার বিকল হয়ে পড়ায় ফেরি স্বল্পতা দেখা দেয়। ফলে ফেরি পারাপার যাত্রীদেরকে ঘাট এলাকায় এসে যানজটে পড়ে।

 কিন্তু পাটুরিয়া-দৌলতদিয়া নৌ-রুটে নদীতে স্রোত না থাকলে স্বাভাবিক সময়ে ফেরি পারাপার হতে সময় লাগে মাত্র ২৫ থেকে ৩০ মিনিট। প্রায় আধা ঘণ্টা সময়ের নৌ-রুট পাড়ি দিতে নদীতে স্রোতের কারণে সময় লাগছে ৪৫-৫০ মিনিট। এছাড়া গাবতলী থেকে শুরু করে মহাসড়কের সাভার, আমিনবাজার, নবীনগর ধামরাইসহ বিভিন্ন স্থানে যানজটের কারণে ধীরগতিতে যানবাহন চালিয়ে আসতে হচ্ছে বলে বাসচালকরা জানিয়েছেন।

আজ শনিবার (৯ জুলাই) সকালে সরেজমিন ঘুরে দেখা গেছে। আপনদের সাথে ঈদের আনন্দ উপভোগ করতে যাত্রীরা কয়েক দিন ধরে বাড়ি ফেরা শুরু করলেও আজ সকাল থেকে লঞ্চ ফেরিতে যাত্রীদের উপচে পড়া ভিড় ছিল।

আরিচা অফিসের বিআইডব্লিউটি সূত্রে জানা গেছে, নৌপথে চলাচলরত বেশিরভাগ ফেরি পুরোনো। কারণে প্রতিদিনই প্রায় দু-একটি ফেরি যান্ত্রিক ত্রুটির কারণে বিকল হয়ে পাটুরিয়া ভাসমান কারখানা মধুমতিতে পড়ে থাকতে হয়। বর্তমানে নৌপথে ২১টি ফেরি দিয়ে যানবাহন পারাপার করা হচ্ছে।

আরিচা অফিসের বিআইডব্লিউটিসির ডিজিএম খালেদ নেওয়াজ জানান, নৌপথে বর্তমানে ২১টি ফেরি দিয়ে যানবাহন পারাপার করা হচ্ছে। ঈদে ঘরমুখো যাত্রীদের কারণে বিভিন্ন যানবাহনের চাপ বৃদ্ধি পাওয়ায় আরিচা ঘাট এরাকায় যানজটের সৃষ্টি হয়।

প্রধান সম্পাদক: ইলিয়াস উদ্দিন পলাশ | প্রকাশক: নাহিদা আকতার জাহেদী

ঠিকানা: ১০/২২ ইকবাল রোড, ব্লক এ, মোহাম্মদপুর, ঢাকা-১২০৭

Design & Developed By Root Soft Bangladesh