নৌ-রেলপথে স্বস্তি, সড়কে ভোগান্তি

নিজস্ব প্রতিবেদক

প্রকাশ: ১৩ জুলাই ২০২২, ০৮:৪৪ এএম

ঢাকা-মাওয়া এক্সপ্রেসওয়ে থেকে তোলা ছবি। ছবি: সংগৃহীত

ঢাকা-মাওয়া এক্সপ্রেসওয়ে থেকে তোলা ছবি। ছবি: সংগৃহীত

ঈদুল আযহার তিন দিনের সরকারি ছুটি শেষ হয়েছে গত সোমবার (১১ জুলাই)। গতকাল মঙ্গলবার (১২ জুলাই) দেশের অফিস-আদালত খুলেছে। এদিন সকাল থেকেই নৌ, রেল ও সড়কপথে রাজধানীমুখী মানুষেরা ফিরতে শুরু করেন। ফেরার পথে সড়কপথে যানজটের ভোগান্তিতে পড়তে হয়েছে যাত্রীদের। তবে নৌ ও রেলপথে ছিলো স্বস্তির স্পর্শ। 

ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বারের হিসাব অনুযায়ী, ছুটি শেষে গতকাল মঙ্গলবার ঢাকায় সাড়ে চার লাখ মানুষ ফিরেছে। ঢাকা থেকে বের হওয়া এবং ঢাকা প্রবেশ করা মোবাইল ফোনের সিমের হিসাব দিয়ে গতকাল বিকেলে ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে জানান, ঈদুল আযহার পরদিন গত সোমবার ঢাকা ছেড়েছেন ১৩ লাখ ৮ হাজার ৬৭৮ জন মানুষ। আর ছুটি শেষে ঢাকায় ফিরেছেন চার লাখ ৪৮ হাজার ৬২৭ জন।

গতকাল মঙ্গলবার সকালে সদরঘাটে সরেজমিনে দেখা যায়, গতকাল ভোর থেকেই যাত্রীদের পদচারণায় চিরচেনা রূপে ফিরতে শুরু করে এ লঞ্চঘাট। একের পর এক ভিড়তে থাকে বরিশাল, ভোলা, ঝালকাঠি, পিরোজপুর, বরগুনা, পটুয়াখালীসহ দক্ষিণাঞ্চলের বিভিন্ন রুটের যাত্রীবোঝাই লঞ্চগুলো। অনেকেই ঘাটে নেমে সরাসরি রওনা করেন কর্মস্থলে। টার্মিনালের অতিরিক্ত চাপ কমাতে ঘাটে ভেড়া লঞ্চগুলোকে নিরাপদে যাত্রী নামিয়ে দ্রুত টার্মিনাল ছাড়তে মাইকিং করে বারবার নির্দেশ দেন বিআইডব্লিউটিএ’র কর্মকর্তারা, যাতে অন্য লঞ্চগুলোও ঘাটে ভিড়ে নিরাপদে যাত্রী নামাতে পারে। 

ঝালকাঠি থেকে আসা বেসরকারি একটি প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তা বোরহান কবির বলেন, পরিবারের সাথে ঈদ শেষে আবার ঢাকায় ফিরলাম। আসতে কোনো ভোগান্তি হয়নি। 

সুন্দরবন লঞ্চের মাস্টার সবুজ মিয়া বলেন, ছুটির শেষ দিন হওয়ায় আজ যাত্রীর চাপ বেশি ছিল। তবে নিরাপদে পৌঁছাতে পেরেছি। 

সদরঘাট নৌ-নিরাপত্তা ও ট্রাফিক বিভাগের কর্মকর্তা রফিকুল ইসলাম জানান, গতকাল মঙ্গলবার থেকে ঈদের ফিরতি যাত্রা শুরু হয়েছে। গতকাল মঙ্গলবার ভোর ৪টা থেকে সকাল ৮টা পর্যন্ত টার্মিনালে ভিড়েছে ৭০টির মতো লঞ্চ। এক লাখের ওপর নগরবাসী পরিবারের সাথে ঈদ শেষে নৌপথে ঢাকায় ফিরেছেন। এবারের ঈদের যাত্রা স্বস্তির হয়েছে। নৌপথে কোথাও কোনো দুর্ঘটনার খবর পাওয়া যায়নি। একইসাথে অতিরিক্ত ভাড়া আদায়ের খবরও আমরা পাইনি।

গতকাল মঙ্গলবার ঈদের ফিরতি ঢাকা যাত্রায় রেলপথেও ব্যাপক ভিড় দেখা গেছে। তবে কোনো পথেই ভোগান্তির অভিযোগ পাওয়া যায়নি। গতকাল মঙ্গলবার সকাল থেকে ঢাকার কমলাপুর স্টেশনে যেসব ট্রেন আসছে, সবই ছিল যাত্রীতে পূর্ণ। 

চট্টগ্রাম থেকে আসা সুবর্ণ এক্সপ্রেসের যাত্রী ইমাম হোসেন রানা জানান, ঈদের তিন দিন আগে ঢাকা ছেড়েছিলেন। ছুটি কাটিয়ে ফিরলেন। যাওয়ার সময় কিছুটা ভিড় ও ভোগান্তি হলেও ফেরার সময় সবকিছু স্বাভাবিক ছিল। ট্রেনও ঠিক সময়ে এসেছে। একই অভিজ্ঞতার কথা জানান চাঁপাইনবাবগঞ্জে ঈদ কাটিয়ে আসা বনলতা এক্সপ্রেসের যাত্রী ফজলে রাব্বি। 

এদিকে নৌ ও রেলপথের পাশাপাশি সড়কপথেও রাজধানীতে ফিরতে শুরু করেছেন মানুষজন। গতকাল মঙ্গলবার সকাল থেকে ঢাকায় সড়কপথে ফেরা লোকজনের উপস্থিতি ছিল চোখে পড়ার মতো। গাবতলী, সায়েদাবাদ, মহাখালী ও গুলিস্তানের বাস টার্মিনালে দেখা যায়, দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে কর্মজীবীরা মানুষেরা পরিবার-পরিজন নিয়ে ঢাকায় আসছেন।

সড়ক পাশে পদ্মা সেতু জাজিরা প্রান্তের গতকাল দীর্ঘ দিন কিলোমিটারের যানজট দেখা যায়। অনেকে আবার রাজধানী প্রবেশের পরও ভোগান্তিতে পড়েছেন বলে জানিয়েছেন।

প্রধান সম্পাদক: ইলিয়াস উদ্দিন পলাশ | প্রকাশক: নাহিদা আকতার জাহেদী

ঠিকানা: ১০/২২ ইকবাল রোড, ব্লক এ, মোহাম্মদপুর, ঢাকা-১২০৭

Design & Developed By Root Soft Bangladesh