কুষ্টিয়ায় আইনজীবীর বাসা থেকে ছাত্রীর মরদেহ উদ্ধার

কুষ্টিয়া প্রতিনিধি

প্রকাশ: ২৩ আগস্ট ২০২৩, ০১:৫৫ পিএম

প্রতীকী ছবি

প্রতীকী ছবি

কুষ্টিয়ায় মাহমুদুল হাসান নামে এক আইনজীবীর বাসা থেকে নার্সিং ইন্সটিটিউটের এক ছাত্রীর মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে।

তরুণীর নাম জান্নাতুল ফেরদৌস তুলি (২২)। তিনি সদর উপজেলার মোল্লাতেঘরিয়া গ্রামের ওহিদুল ইসলামের মেয়ে ও স্থানীয় একটি বেসরকারি নার্সিং ইন্সটিটিউটের প্রথম বর্ষের ছাত্রী।

গতকাল মঙ্গলবার (২২ আগস্ট) রাত ৮টার দিকে কুষ্টিয়া শহরের মজমপুর এলাকার জিলা স্কুলের সামনের একটি ৫তলা ভবনের ৩য় তলায় আইনজীবীর বাসা থেকে মরদেহটি উদ্ধার করে মডেল থানা পুলিশ।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানা যায়, মঙ্গলবার রাত ৮টার দিকে কুষ্টিয়া মডেল থানার পুলিশ জাতীয় জরুরি সেবা নম্বরের (৯৯৯) ফোন কল পেয়ে মফিজ উদ্দীন লেনের গোলাম নবীর বাড়িতে যান। সেখানে তিনতলার একটি ফ্ল্যাটের ভাড়াটে আইনজীবী মাহমুদুল হাসান ওরফে সুমনের ফ্ল্যাটের একটি কক্ষের দরজা ভেঙে পুলিশ ঝুলন্ত অবস্থায় জান্নাতুলের নিথর দেহ উদ্ধার করে। পরে তাকে কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালের জরুরি বিভাগে নেওয়া হলে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

কুষ্টিয়া মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সৈয়দ আশিকুর রহমান জানান, ছয় মাস আগে কুষ্টিয়া জর্জ কোর্টের আইনজীবী মাহমুদুল হাসান সুমন ফ্ল্যাটের তৃতীয় তলার একটি ইউনিট ভাড়া নেন ওই ছাত্রী। মঙ্গলবার বিকালের দিকে তুলি নদীর বাঁধে বেড়াতে যাওয়ার উদ্দেশ্যে বাড়ি থেকে বেরিয়ে ওই আইনজীবীর বাসায় আসেন। পরবর্তীতে রাতে তিনি ওই বাসার একটি কক্ষে ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা করেন। এ ঘটনার পর পরই আইনজীবীর লোকজনের সহায়তায় তাকে উদ্ধার করে কুষ্টিয়া ২৫০ বেড জেনারেল হাসপাতালের জরুরি বিভাগে নেওয়া হলে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

এদিকে নিহত জান্নাতুলের মা শরিফা খাতুন বলেন, ২২ আগস্ট তার জন্মদিন ছিল। সকাল ৮টার দিকে বান্ধবীর বাসায় যাবে বলে বাড়ি থেকে বের হন। তার বান্ধবীর সঙ্গে বেড়াতে যাওয়ার কথা ছিল। রাতে বড় মেয়ের জামাইকে ওই উকিল (মাহমুদুল হাসান) ফোন করে জানান, আমার মেয়ে আত্মহত্যা করেছে। আমার মেয়েকে হত্যা করা হয়েছে। আমি দোষীর শাস্তি চাই।

ওসি জানান, মরদেহ উদ্ধার করে মর্গে পাঠানো হয়েছে। ময়না তদন্তের পর মৃত্যুর প্রকৃত কারণ জানা যাবে।

সম্পাদক ও প্রকাশক: ইলিয়াস উদ্দিন পলাশ

ঠিকানা: ১০/২২ ইকবাল রোড, ব্লক এ, মোহাম্মদপুর, ঢাকা-১২০৭

Design & Developed By Root Soft Bangladesh