ঝিনাইদহে হত্যা মামলার প্রধান আসামি গ্রেপ্তার

ঝিনাইদহ প্রতিনিধি

প্রকাশ: ১১ সেপ্টেম্বর ২০২৩, ০৮:১০ পিএম

হত্যার অভিযোগে গ্রেপ্তারকৃত ব্যক্তি। ছবি: ঝিনাইদহ প্রতিনিধি

হত্যার অভিযোগে গ্রেপ্তারকৃত ব্যক্তি। ছবি: ঝিনাইদহ প্রতিনিধি

ঝিনাইদহের চাঞ্চল্যকর অমিতাভ সাহা হত্যার সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগে রাজলু ওরফে রাজু নামে এক ব্যক্তিকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

আজ সোমবার (১১ সেপ্টেম্বর) বিকেলে এক সংবাদ সম্মেলনে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ইমরান জাকারিয়া এই তথ্য নিশ্চিত করেন।

পুলিশের দাবি রবিবার রাতে ভারতে পালিয়ে যাওয়ার সময় মেহেরপুর সীমান্ত থেকে রাজলুকে গ্রেপ্তার করা হয়। তিনি ঝিনাইদহ সদর উপজেলার হাটগোপালপুর এলাকার মুনাব্বর হোসেনের ছেলে। প্রেস ব্রিফিংয়ে হত্যার মোটিভ ও ক্লু উদঘাটনে পুলিশ মাঠে রয়েছে বলে জানানো হয়।

অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ইমরান জাকারিয়া বলেন, অমিতাভ সাহা গত ৩১ আগস্ট মাগুরা জেলা শহর থেকে নিখোঁজ হন। নিখোঁজের পর গত ৩ সেপ্টেম্বর ঝিনাইদহ শহরের ধোপাঘাটা ব্রিজ এলাকায় তার বস্তাবন্দী লাশ খুঁজে পায় পুলিশ। নিহত অমিতাভ সাহা মাগুরার মোহাম্মদপুর উপজেলার বিনোদপুর গ্রামের অশোক সাহার ছেলে। তিনি ঝিনাইদহ আদালত চত্বরে একটি ক্যান্টিন পরিচালনা করতেন। লাশ উদ্ধারের পর তার স্ত্রী তিশা নন্দি মরদেহটি অমিতাভের বলে শনাক্ত করেন।

তিনি আরো বলেন, রাজলু প্রাথমিকভাবে ঘটনার সাথে সম্পৃক্ততা স্বীকার করেছেন। তবে তিনি এমন কিছু তথ্য প্রমাণ দিয়েছেন যে, ঘটনার বিশদ তদন্তের স্বার্থে তা প্রকাশ করা সম্ভব হচ্ছে না।

তিনি বলেন, আদালতের কাছে আমরা রাজলুর রিমান্ড চাইবো। আশা করি যেহেতু বিষয়টি চাঞ্চল্যকর খুব দ্রুতই এ ব্যাপারে একটা ভালো ফলাফল আমরা জানাতে সক্ষম হবো।

স্ত্রী তিশা নন্দি অভিযোগ করে বলেন, ঝিনাইদহ হাটগোপালপুর এলাকার রাজলু ওরফে রাজু নামে এক ব্যক্তি চাকরি দেওয়ার নাম করে গত ৩১ আগস্ট অমিতাভ সাহাকে ডেকে নিয়ে যান। এরপর থেকেই তিনি নিখোঁজ ছিলেন। তাকে পরিকল্পিতভাবে হত্যা করা হয়েছে বলেও তিনি দাবি করেন।

সংবাদ সম্মেলনে আরো উপস্থিত ছিলেন, সদর সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মীর আবিদুর রহমান ও সদর থানার ওসি শেখ সোহেল রানা, ডিবি ওসি শাহীন উদ্দীন প্রমুখ।

সম্পাদক ও প্রকাশক: ইলিয়াস উদ্দিন পলাশ

ঠিকানা: ১০/২২ ইকবাল রোড, ব্লক এ, মোহাম্মদপুর, ঢাকা-১২০৭

Design & Developed By Root Soft Bangladesh