গাজা উপত্যকা সম্পূর্ণ অবরুদ্ধ, মানবিক বিপর্যয়ের আশঙ্কা

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

প্রকাশ: ১০ অক্টোবর ২০২৩, ০১:৪২ পিএম | আপডেট: ১০ অক্টোবর ২০২৩, ০২:১১ পিএম

ইসরাইলের হামলায় এখন পর্যন্ত ৫৬০ ফিলিস্তিনি মারা গেছেন এবং আহত হয়েছেন ৩ হাজারের বেশি। ছবি: সংগৃহীত

ইসরাইলের হামলায় এখন পর্যন্ত ৫৬০ ফিলিস্তিনি মারা গেছেন এবং আহত হয়েছেন ৩ হাজারের বেশি। ছবি: সংগৃহীত

ফিলিস্তিনের গাজা উপত্যকা সম্পূর্ণ অবরুদ্ধ করার ঘোষণা দিয়েছে ইসরায়েল। বন্ধ করা হচ্ছে খাবার, পানি ও বিদ্যুৎ সরবরাহ। এতে বোমার আঘাতে বিধ্বস্ত গাজায় নেমে এসেছে ভয়ানক মানবিক বিপর্যয়।

ফিলিস্তিনের মুক্তি আন্দোলনের সশস্ত্র গোষ্ঠী হামাসের হামলার জবাবে গত শনিবার (৮ অক্টোবর) থেকে গাজায় বোমা হামলা চালাচ্ছে ইসরায়েলের বিমানবাহিনী। এরই মধ্যে গতকাল সোমবার উপত্যকাটি সম্পূর্ণভাবে অবরুদ্ধ করার ঘোষণা দেওয়া হলো।

গাজা সম্পূর্ণ অবরোধ করার অর্থ হচ্ছে, গাজা উপত্যকায় জীবনধারণের জন্য প্রয়োজনীয় কোনো কিছুই ঢুকতে দেবে না ইসরায়েল।

গাজায় স্থল অভিযানের জন্য সেনা সমাবেশও ঘটানো হয়েছে। এ লক্ষ্যে তিন লাখ সংরক্ষিত সেনাকে বাহিনীতে যুক্ত করেছে ইসরায়েল।

গতকাল দেশটির প্রতিরক্ষামন্ত্রী ইওয়াভ গ্যালান্ট বলেছেন, ‘আমি গাজা উপত্যকা সম্পূর্ণ অবরোধের নির্দেশ দিয়েছি। বিদ্যুৎ, খাবার, গ্যাসসহ সবকিছুই সেখানে বন্ধ থাকবে।’

এদিকে গাজা থেকে আল জাজিরার সাংবাদিক তারেক আবু আজউম জানান, ফিলিস্তিনি ভূখণ্ডে সারারাত ধরে দক্ষিণের শহর খান ইউনিসকে লক্ষ্য করে অসংখ্য বিমান হামলা চালিয়েছে ইসরাইল।

তিনি ফিলিস্তিনি স্বাস্থ্য কর্মকর্তাদের উদ্ধৃতি দিয়ে বলেন, চারটি অ্যাম্বুলেন্স ইসরাইলি গুলিতে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। গাজা উপত্যকায় ধারাবাহিকভাবে ইসরাইলি হামলা চলতে থাকলে মানবিক বিপর্যয় হতে পারে।

এদিকে হামাসের হামলায় নিহত ইসরাইলিদের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৯০০ জনে। নিহতদের মধ্যে বহু সেনাসদস্য, নারী ও শিশু রয়েছে। এছাড়া আহত হয়েছে আরও প্রায় ২৫০০ ইসরাইলি। 

তবে, ইসরাইলের অভ্যন্তরে হামাসের নজিরবিহীন হামলার পর গাজায় তাদের ‘গুঁড়িয়ে দিতে’ শুরু করেছে ইসরাইল। গোটা উপত্যকাজুড়ে চলছে বোমা হামলা। এখন পর্যন্ত ৫৬০ ফিলিস্তিনি মারা গেছেন এবং আহত হয়েছেন ৩ হাজারের বেশি।

সম্পাদক ও প্রকাশক: ইলিয়াস উদ্দিন পলাশ

ঠিকানা: ১০/২২ ইকবাল রোড, ব্লক এ, মোহাম্মদপুর, ঢাকা-১২০৭

Design & Developed By Root Soft Bangladesh