ইসির সুইচ শেখ হাসিনার হাতে: রিজভী

নিজস্ব প্রতিবেদক

প্রকাশ: ০৪ ডিসেম্বর ২০২৩, ০৯:১৮ পিএম

বিএনপির জ্যেষ্ঠ যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী। ফাইল ছবি

বিএনপির জ্যেষ্ঠ যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী। ফাইল ছবি

নির্বাচন কমিশনের ভূমিকা নিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করে বিএনপির জ্যেষ্ঠ যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী বলেছেন, প্রধান নির্বাচন কমিশনারসহ নির্বাচন কমিশনারবৃন্দ আধা-রোবট হয়ে গেছেন। তাদের দৌলতেই শেখ হাসিনা ভোটারবিহীন নির্বাচনের বৈতরণী পার করতে চাচ্ছেন। নানা কৌশল করছে সেগুলো তারা বাস্তবায়ন করছেন। কারণ এই রোবটদের সুইচ আছে শেখ হাসিনার হাতে।

আজ সোমবার (৪ ডিসেম্বর) বিকেলে ভার্চুয়াল সংবাদ সম্মেলনে ‘একতরফা’ নির্বাচনের প্রসঙ্গ টেনে তিনি এ কথা বলেন।

গত ২৮ অক্টোবর ঢাকায় সংঘর্ষের জের ধরে সমাবেশ ভণ্ডুল হয়ে যাওয়ার পর বিএনপির বিপুল সংখ্যক নেতাকর্মী গ্রেপ্তার হয়েছেন। তার মধ্যে আত্মগোপনে থেকে দলীয় কর্মসূচি ঘোষণার পাশাপাশি মুখপাত্রের ভূমিকায় আছেন রিজভী।

জনপ্রিয় রাজনৈতিক দলগুলোকে সরিয়ে নামকাওয়াস্তে দল গঠন করে তাদের ভোটের মাঠে নামানো হয়েছে বলে অভিযোগ করে রিজভী বলেন, একতরফা নির্বাচনকে লোক দেখানো বৈধতা দিতে সরকারের প্রস্তুতি ছিল প্রার্থী বেচাকেনার হাট জমিয়ে তোলার। কর্মীবিহীন নাম সর্বস্ব দলের নেতাদের পকেটে পুরতে উদয়াস্ত খেটেও সুবিধা করতে পারেনি সরকারি দলের আজ্ঞাবহ গোয়েন্দা কর্মকর্তারা।

তিনি বলেন, একদিকে যেমন চলেছে প্রার্থী বেচাকেনা, তেমনই তাদের রাজি করাতে কাজে লাগানো হয়েছে চাপ প্রয়োগের কৌশলও। মামলা, হামলা, হুমকি- কোনো কিছুই বাদ যায়নি এ থেকে। কথিত দু-তিনটি রাজদল বা কুইন্স পার্টি নামকাওয়াস্তে গঠন করে বিএনপিসহ সকল জনপ্রিয় দলকে দূরে সরিয়ে তাদের নির্বাচনের পাতানো খেলার মাঠে নামানো হয়েছে।

সম্প্রতি দলবদলে নৌকা থেকে নির্বাচনে দাঁড়ানো বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান শাহজাহান ওমরের নাম না নিয়ে  রিজভী বলেন, নির্বাচন কমিশন অবাধ ও সুষ্ঠু নির্বাচনের কথা বলে যাচ্ছেন। এই প্রহেলিকার উত্তর লুকিয়ে আছে সাম্প্রতিক কিছু ঘটনায়। বাসে আগুন দেওয়ার মামলায় অভিযুক্ত আসামি তেলেসমাতির জামিনে এক ঘণ্টায় কারামুক্ত হয়ে নৌকায় চড়ে-স্বঘোষিত হ্যাডমওয়ালা ব্যক্তির মুখ থেকে শুনলাম… ২ কোটি দিয়া প্রত্যেককে ইলেকশনে দাঁড় করানো হয়েছে! তিনিই বলেছেন, এগুলো তো ফকিন্নি পার্টি। দু-তিন কোটি টাকা পাইছে, দাঁড় করাইছে।

বিএনপির জ্যেষ্ঠ যুগ্ম মহাসচিব বলেন, ওবায়দুল কাদের সাহেব প্রতিনিয়ত শব্দবাজি ফাটিয়ে মানুষের জীবন অতিষ্ঠ করে তুলেছেন। তিনি এখন বলেন, ২৯টি নিবন্ধিত দল নিয়ে তারা অংশগ্রহণমূলক নির্বাচন করছেন। তাদের এই ২৯ দলের মধ্যে তিন-চারটি বাদে অন্যগুলোর নামও শোনেনি কেউ।

রিজভী বলেন, স্বগৃহে ইলেকশন থিয়েটারে রঙ্গনাটক মঞ্চস্থ করতে যাদের আনা হয়েছে, তারা হল আওয়ামী লীগের সঙ্গ-অনুষঙ্গ। এটা আসলে বাকশালের নতুন ভার্সন, আপডেটেড বাকশাল ২.০ ভার্সন। এই তথাকথিত বাকশাল সঙ্গীদের নিয়ে সুপার-ইমপোজড নির্বাচনের আজব তামাশা করছেন শেখ হাসিনা।

গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে ৩৫৫ জন বিএনপি নেতাকর্মীকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে দাবি করে তিনি বলেন, এ সময়ে ১৪টি মামলা করা হয়েছে, যাতে অন্তত ১ হাজার ২৬৫ জনকে আসামি করা হয়েছে।

সম্পাদক ও প্রকাশক: ইলিয়াস উদ্দিন পলাশ

ঠিকানা: ১০/২২ ইকবাল রোড, ব্লক এ, মোহাম্মদপুর, ঢাকা-১২০৭

Design & Developed By Root Soft Bangladesh