বিরতির পর নতুনভাবে শুরু পলির

বিনোদন রিপোর্ট

প্রকাশ: ০৯ ডিসেম্বর ২০২৩, ১০:০৯ এএম | আপডেট: ০৯ ডিসেম্বর ২০২৩, ১০:১২ এএম

কণ্ঠশিল্পী পলি ইসলাম। ছবি: সংগৃহীত

কণ্ঠশিল্পী পলি ইসলাম। ছবি: সংগৃহীত

বিরতির পর আবার নতুনভাবে জার্নি শুরু করলেন কণ্ঠশিল্পী পলি ইসলাম। ক্যারিয়ারের সুসময়ে প্রায় পাঁচ বছর গান থেকে দূরে ছিলেন তিনি। এ সময়ে সংসার ও করোনার কারণে তাকে বিরতি টানতে হয়। তবে এখন নিয়মিতই স্টেজ শো ও নতুন গান করছেন তিনি। 

পলি বলেন, ‘পাঁচ বছর আগে টিভি শো ও স্টেজ শো নিয়ে আমার বেশ ব্যস্ততা ছিল। এর মধ্যে হঠাৎ আমার বেবি আসে, আবার করোনাও শুরু হয়। তার জন্য আমাকে কিছু সময় গান থেকে দুরে থাকতে হয়েছে। এখন আমার বেবিও বড় হচ্ছে। তাই গানে ফেরার সিদ্ধান্ত নিয়েছি।’ 

তিনি আরও বলেন, ‘সব কিছু আমাকে নতুনভাবে শুরু করতে হচ্ছে। কারণ এ পাঁচ বছরে আমাদের সংগীতে বেশ বড় ধরনের একটা পরিবর্তন এসেছে।’ 

পলির ছোটবেলা থেকেই গানের সঙ্গে বসবাস। চাচার কাছেই প্রথম গানে হাতেখড়ি হয়। তার বাবাও গান করছেন। পরিবারেই তার সংস্কৃতি চর্চা ছিল। তবে গানকে পেশা হিসেবে নেওয়ার জন্য তার স্বামীর অবদান পুরোটা বলে জানান তিনি। 

এ বিষয়ে তার বক্তব্য, ‘পরিবার থেকেই গানের চর্চা শুরু করেছি। তবে কখনো ভাবিনি গান নিয়ে এত দূর আসতে পারব। গানকে পেশা হিসেবে নেওয়ার জন্য আমার স্বামী আমাকে সব রকম সহযোগিতা করেন। তার কারণেই এখন নিয়মিত গান করতে পারছি।’ 

এ গ্ল্যামার কন্যা ক্ল্যাসিকের ওপর তালিম নিয়েছেন। তবে স্টেজে সব ধরনের গানই তাকে গাইতে হচ্ছে। স্টেজে ফোক গানকেই বেশি প্রাধান্য দিয়ে থাকেন।

তিনি আরও বলেন, ‘ফোক গান আমাকে বেশি টানে। কিন্তু যখন স্টেজে উঠি তখন কোন ধরনের শ্রোতার সামনে আছি সেটা দেখেই গান করতে হয়।’ 

২০১০ সালে পলির ‘স্বপ্ন দেখে মন’ শিরোনামের একটি একক অ্যালবাম প্রকাশ হয়। সে সময় এ অ্যালবামের বেশ কয়েকটি গান শ্রোতাদের মধ্যে সাড়া ফেলে। আসছে নতুন বছরে প্রকাশের জন্য কয়েকটি গানের কাজ করছেন তিনি। অডিও গানের পাশাপাশি নাটক-সিনেমাতেও গাইতে চান তিনি। গান নিয়ে তার পরিকল্পনার কথাও জানান। 

তিনি বলেন, ‘এখন অনেক প্রতিযোগিতা করে টিকে থাকতে হয়। হয়তো সস্তা কোনো কাজ দিয়ে ভাইরাল হওয়া যাবে। কিন্তু সেটি দিয়ে দীর্ঘ সময় পথ চলা সম্ভব না। তাই আমি ভালো কিছু গান দিয়েই শ্রোতাদের মনে জায়গা করে নিতে চাই।’

সম্পাদক ও প্রকাশক: ইলিয়াস উদ্দিন পলাশ

ঠিকানা: ১০/২২ ইকবাল রোড, ব্লক এ, মোহাম্মদপুর, ঢাকা-১২০৭

Design & Developed By Root Soft Bangladesh