উত্তরাঞ্চলে শীতের তীব্রতা বেড়েছে

নিজস্ব প্রতিবেদক

প্রকাশ: ১০ জানুয়ারি ২০২৪, ১০:০৬ এএম

কুয়াশা ছড়িয়ে পড়ায় শীতের তীব্রতা বেড়েছে। ছবি: সংগৃহীত

কুয়াশা ছড়িয়ে পড়ায় শীতের তীব্রতা বেড়েছে। ছবি: সংগৃহীত

দেশের উত্তরাঞ্চলে শীতের তীব্রতা বেড়েছে। প্রতিবছর জানুয়ারি মাসে তাপমাত্রা নিচে নেমে এলেও, এবছর তার তুলনায় দেশের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ১২ থেকে ১৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস। যা যা এই সময়ের স্বাভাবিক তাপমাত্রার চেয়ে ২ থেকে ৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস বেশি।

তবে সারা দেশে কুয়াশা ছড়িয়ে পড়ায় শীতের তীব্রতা বেড়েছে। বিশেষ করে উত্তরাঞ্চলের মানুষ শীতে বেশি কষ্ট পাচ্ছে। এক কথায় উত্তরাঞ্চলে জেঁকে বসেছে শীত। সেই তুলনায় রাজধানীসহ অন্যান্য এলাকায় শীতের তীব্রতা কম।

আবহাওয়া অধিদপ্তর জানিয়েছে, বাংলাদেশের ওপর একটি ঘন কুয়াশার চাদর ছড়িয়ে পড়ছে। এরই মধ্যে তা দেশের অর্ধেকেরও বেশি এলাকা দখল করে নিয়েছে। ভারতের দিল্লি, বিহার ও পশ্চিমবঙ্গ হয়ে বাংলাদেশে প্রবেশ করেছে এই কুয়াশা। যার কারণে শীতের অনুভূতি বেড়ে গেছে।

তবে আজ বুধবার (১০ জানুয়ারি) কুয়াশা দেশের বেশির ভাগ এলাকায় ছড়িয়ে পড়তে পারে। ফলে শীতের অনুভূতি আরো বাড়তে পারে। দুপুরের দিকে রোদের দেখা মিললে শীতের অনুভূতি কিছুটা কমতে পারে। তবে বিকেল থেকে আবারো শীত বাড়তে পারে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া অধিদপ্তর।

আবহাওয়াবিদ ওমর ফারুক বলেন, কুয়াশার কারণে দিনের বেলা রোদ কম দেখা যাচ্ছে। এতে ভূপৃষ্ঠের তাপমাত্রা খুব একটা কমছে না। যে কারণে শীতের অনুভূতি বেশি থাকছে।

আবহাওয়া অধিদপ্তরের পূর্বাভাস অনুযায়ী, দেশের বেশির ভাগ এলাকায় কুয়াশা বেড়ে যাওয়ার কারণে দৃষ্টিসীমা কমে আসতে পারে। যে কারণে সড়ক, নৌ ও আকাশপথে চলাচলে সমস্যা হতে পারে। আগামী দু-তিন দিন কুয়াশা ও শীতের অনুভূতি দুই-ই বাড়তে পারে। আগামীকাল বৃহস্পতিবার (১১ জানুয়ারি) উত্তরাঞ্চলের কয়েকটি জেলায় শৈত্যপ্রবাহ শুরু হতে পারে।

আবহাওয়াবিদদের মতে, জানুয়ারি সবচেয়ে শীতলতম মাস। এ সময়ে বেশির ভাগ এলাকার সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ৮ থেকে ১২ ডিগ্রি সেলসিয়াসের মধ্যে থাকে। কিন্তু এবার ডিসেম্বরের মতো জানুয়ারিজুড়ে স্বাভাবিকের চেয়ে তাপমাত্রা বেশি রয়েছে। মাসের বাকি সময়ে একই রকম কম শীত থাকতে পারে।

আবহাওয়া অধিদপ্তরের হিসাবে, মঙ্গলবার দেশের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল রাজশাহীতে ১১ ডিগ্রি সেলসিয়াস। রাজধানী ঢাকায় সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল ১৫ দশমিক ৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস। দেশের অন্যান্য এলাকার সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ১২ থেকে ১৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস পর্যন্ত ছিল। আর সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ২১ থেকে ২৯ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

সম্পাদক ও প্রকাশক: ইলিয়াস উদ্দিন পলাশ

ঠিকানা: ১০/২২ ইকবাল রোড, ব্লক এ, মোহাম্মদপুর, ঢাকা-১২০৭

Design & Developed By Root Soft Bangladesh