খাৎনা করতে গিয়ে শিশুর মৃত্যু

দুই চিকিৎসককে জেলগেটে জিজ্ঞাসাবাদের নির্দেশ

নিজস্ব প্রতিবেদক

প্রকাশ: ২১ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ০৪:২৮ পিএম

আহনাফ তাহমিন আইহাম। ছবি: সংগৃহীত

আহনাফ তাহমিন আইহাম। ছবি: সংগৃহীত

খাৎনা করতে গিয়ে মতিঝিল আইডিয়াল স্কুল অ্যান্ড কলেজের চতুর্থ শ্রেণির শিক্ষার্থী আহনাফ তাহমিন আইহামের (১০) মৃত্যুর ঘটনায় গ্রেপ্তার দুই চিকিৎসকে জেলগেটে দুই দিনের জিজ্ঞাসাবাদের নির্দেশ দিয়েছেন আদালত।

রিমান্ডে নেয়া আসামিরা হলেন- জেএস ডায়াগনস্টিক অ্যান্ড মেডিকেলের পরিচালক চিকিৎসক এস এম মুক্তাদির ও চিকিৎসক মাহাবুব মোরশেদ।

আজ বুধবার (২১ ফেব্রুয়ারি) তাদেরকে আদালতে হাজির করে রিমান্ড আবেদন করেন মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা হাতিরঝিল থানার উপ-পরিদর্শক রুহুল আমিন। শুনানি শেষে ঢাকার মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট রাজেশ চৌধুরীর আদালত এ আদেশ দেন।

এর আগে দুপুরে জেএস ডায়াগনস্টিক অ্যান্ড মেডিকেলের সব ধরনের কার্যক্রম বন্ধ করার নির্দেশ দিয়ে নোটিশ ঝুলিয়ে দেয় স্বাস্থ্য অধিদপ্তর। স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের পরিচালক (হাসপাতাল ও ক্লিনিক) ডা. আবু হোসেন মো. মইনুল আহসান জানান, পরবর্তী নির্দেশনা না দেয়া পর্যন্ত জেএস হাসপাতালের সব কার্যক্রম বন্ধ থাকবে। 

প্রসঙ্গত, মঙ্গলবার (২০ ফেব্রুয়ারি) বিকেল ৫টার দিকে রাজধানীর মালিবাগের জেএস হাসপাতালের অপারেশন রুমে সুন্নাতে খৎনার জন্য এনেস্থেশিয়া দেয়া হয় শিশুটিকে। যাতে গভীর ঘুমে তলিয়ে যায় আইহাম। পরিস্থিতি খারাপের দিতে যেতে থাকলে আরেকটি হাসপাতাল থেকে আনা হয় চিকিৎসক। কিন্তু পরীক্ষা করে দেখা যায়, চিরঘুমে চলে গেছে শিশুটি।

এ ঘটনায় তার বাবা ফখরুল ইসলাম মামলা দায়ের করেছেন। ডা. এস এম মুক্তাদিরসহ ৩ জন নামীয় আর ৫ জন অজ্ঞাতনামার বিরুদ্ধে মামলা করেছেন তিনি। এ ঘটনায় দুইজনকে গ্রেপ্তার করেছে হাতিরঝিল থানা পুলিশ। 

প্রসঙ্গত, এর আগেও এই হাসপাতালকে অনুমোদনহীন ওষুধ রাখার জন্য ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছিল।

সম্পাদক ও প্রকাশক: ইলিয়াস উদ্দিন পলাশ

ঠিকানা: ১০/২২ ইকবাল রোড, ব্লক এ, মোহাম্মদপুর, ঢাকা-১২০৭

Design & Developed By Root Soft Bangladesh