মজুদকারীদের গণধোলাই দেয়া উচিত: প্রধানমন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক

প্রকাশ: ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ০১:০৩ পিএম | আপডেট: ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ০২:৫৭ পিএম

গণভবনে মিউনিখ নিরাপত্তা সম্মেলন নিয়ে সংবাদ সম্মেলনে কথা বলছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার। ছবি: বিটিভি

গণভবনে মিউনিখ নিরাপত্তা সম্মেলন নিয়ে সংবাদ সম্মেলনে কথা বলছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার। ছবি: বিটিভি

যারা সরকার উৎখাতের আন্দোলন করে তাদেরও দ্রব্যমূল্য অবৈধ মজুদে কিছু কারসাজি আছে এমন মন্তব্য করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, এর আগেও এমন হয়েছে যে, পেঁয়াজের খুব অভাব। কিন্তু পরে দেখা গেলো বস্তা বস্তা পেঁয়াজ পানিতে ফেলে দেয়া হচ্ছে। এমন লোকদেরকে গণধোলাই দেয়া উচিত। কারণ সরকার কিছু করতে বললে, সরকারের দোষ হবে। তার থেকে পাবলিক যদি এটার প্রতিকার করে তাহলে কেউ কিছু বলতে পারবে না।

আজ শুক্রবার (২৩ ফেব্রুয়ারি) সকালে গণভবনে মিউনিখ নিরাপত্তা সম্মেলনে’ যোগদান ও জার্মানি সফর পরবর্তী সংবাদ সম্মেলনে এ কথা বলেন প্রধানমন্ত্রী।

এ সময় প্রধানমন্ত্রী বলেন, ১৫ বছর আগেও ভাতের হাহাকার ছিল। ভিক্ষুকরা তখন ভাত আর ভাতের ফেন ভিক্ষা চাইতো। এখন তো তা নেই। আগে মানুষ গরীব ছিলো। একবেলা ভাত জুটতো কপালে। এখন কিন্তু তা নেই।

দেশে যথেষ্ঠ পরিমাণে পেঁয়াজ উৎপাদন হচ্ছে জানিয়ে তিনি বলেন, কোন কোন এলাকায় পেঁয়াজ উৎপাদন হয় তা নিয়েও আমরা কাজ করে যাচ্ছি। আগামীতে বাহির থেকে পেঁয়াজ আনতে হবে না।

তবে আমদানির বিষয়ে তিনি বলেন, আমদানির কথা বলতে হয় এখানেও কিছু কারণ রয়েছে। তারমধ্যে মূল কারণ হচ্ছে, যারা এগুলো অবৈধভাবে লুকিয়ে থাকে তারা যেন সেগুলো বের করে। এটাই আমাদের মূল উদ্দেশ্য। এটা বাস্তবতা। এখানে লুকোনোর কিছু নেই।

দ্বাদশ সংসদ নির্বাচনে বিজয়ের মধ্য দিয়ে টানা চতুর্থ মেয়াদে সরকার গঠনের পর আজ প্রথমবারের মতো সংবাদ সম্মেলনে এসেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। সংবাদ সম্মেলনে সম্প্রতি জার্মানি সফর, ‘মিউনিখ নিরাপত্তা সম্মেলন’-এ যোগদান ও বিভিন্ন দেশের প্রতিনিধিদের সঙ্গে বৈঠকের নানা অভিজ্ঞতা জানান তিনি।

সম্পাদক ও প্রকাশক: ইলিয়াস উদ্দিন পলাশ

ঠিকানা: ১০/২২ ইকবাল রোড, ব্লক এ, মোহাম্মদপুর, ঢাকা-১২০৭

Design & Developed By Root Soft Bangladesh