তারাবি-সাহরিতে বিদ্যুতের সংকট হবে না: প্রধানমন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক

প্রকাশ: ২৮ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ০৭:৩৮ পিএম | আপডেট: ২৮ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১১:১২ পিএম

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। ফাইল ছবি

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। ফাইল ছবি

তারাবি ও সাহরির সময়ে বিদ্যুতের সংকট হবে না বলে জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। একই সময়ে ভর্তুকি দিয়ে বিদ্যুৎ উৎপাদন করে বিতরণ করার কথা জানান তিনি।

আজ বুধবার (২৮ ফেব্রুয়ারি) জাতীয় সংসদে নাটোর-১ আসনের স্বতন্ত্র সংসদ সদস্য আবুল কালামের সম্পূরক প্রশ্নের জবাবে এ কথা জানান প্রধানমন্ত্রী। স্পিকার শিরীন শারমিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে সংসদ অধিবেশন শুরু হয়।

তারাবিতে নিরবচ্ছিন্ন বিদ্যুৎ বিষয়ে প্রশ্নের জবাবে সরকার প্রধান বলেন, আমরা অনেক অর্থ ব্যয় করে বিদ্যুৎ উৎপাদন করি। ভর্তুকি অর্থে তা বিতরণ করি। এখন বিশ্বব্যাপী তেল, এলএনজি ও পরিবহনসহ সবকিছুর মূল্য বেড়ে গেছে। তারপরও আমাদের নিরবচ্ছিন্ন বিদ্যুৎ সরবরাহের প্রচেষ্টা রয়েছে।

তিনি আরও বলেন, এটা ঠিক যে যেহেতু আমাদের জ্বালানি তেল ও এলএনজির সংকট আছে। সেহেতু সময়-সময়ে...তা ছাড়া জানেন যে, যান্ত্রিক ব্যাপার...। কোনো কোনো কারণে বিদ্যুৎ উৎপাদন হ্রাস পায় বা ব্যাহত হয়।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, আমরা ইতিমধ্যে সিদ্ধান্ত নিয়েছি, তারাবির নামাজ ও সাহরির সময় বিদ্যুতের সমস্যা হবে না। বরং বিদ্যুৎ সাশ্রয়ের সময় যদি প্রয়োজন হয়, যদি প্রয়োজন হয় দিনের কোনো একসময় যখন চাহিদা কম তখন দুই-তিন ঘণ্টা যদি লোডশেডিং কর যায়, সহনীয় পর্যায়ে থাকবে, তাহলে কিন্তু আর বিদ্যুতে সংকট হবে না। বিশেষ করে তারাবি ও সাহরির সময়ে সংকট হবে না। আমাদের প্রচেষ্টা সেইভাবে থাকবে।

একসময় দেশে ১০-১২ ঘণ্টা লোডশেডিং থাকলেও এখন সেই অবস্থা নেই উল্লেখ করে শেখ হাসিনা বলেন, তবে আমার মনে হয় মাঝে মাঝে (লোডশেডিং) থাকা ভালো। না হলে মানুষ অতীতকে ভুলে যাবে। অন্তত উপলব্ধি করবে কোথায় ছিলাম, আর কোথায় আছি।

সম্পাদক ও প্রকাশক: ইলিয়াস উদ্দিন পলাশ

ঠিকানা: ১০/২২ ইকবাল রোড, ব্লক এ, মোহাম্মদপুর, ঢাকা-১২০৭

Design & Developed By Root Soft Bangladesh