দাবানলে পুড়ছে টেক্সাস ১০ লাখ একর বন

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

প্রকাশ: ০২ মার্চ ২০২৪, ০৭:৫৪ পিএম | আপডেট: ০২ মার্চ ২০২৪, ০৭:৫৬ পিএম

টেক্সাসের ১০ লাখ একর বন পুরে ছাই। ছবি: সংগৃহীত

টেক্সাসের ১০ লাখ একর বন পুরে ছাই। ছবি: সংগৃহীত

ইতিহাসের সবচেয়ে ভয়াবহ দাবানলের কবলে পড়েছে যুক্তরাষ্ট্রের টেক্সাস। প্রদেশটির উত্তরাঞ্চলে ১০ লাখ একর বনভূমি গ্রাস করে ফেলেছে দাবানলটি।

বৃহস্পতিবার (২৯ ফেব্রুয়ারি) এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে আন্তর্জাতিক গণমাধ্যম বিবিসি।

বরফ পড়ায় আগুনের তীব্রতা কিছুটা কমেছে। তবে ওই দাবানলটি এখনও বেশ বিপজ্জনক এবং অনিয়ন্ত্রিত বলে জানানো হয়েছে প্রতিবেদনে।

দুইটি আলাদা দাবানল একত্রে মিলিত হওয়ায় এত বড় দাবানলটির সৃষ্টি হয়েছে। পাশের রাজ্য ওকলাহোমাতেও ছড়িয়ে পড়েছে দুর্যোগ। মাত্র তিন শতাংশ এলাকায় দাবানলটিকে নিয়ন্ত্রণ করা সম্ভব হয়েছে বলে জানিয়েছে বনবিভাগ।

বৃহস্পতিবার টেক্সাসে গিয়েছিলেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন। সফরকালে যুক্তরাষ্ট্র-মেক্সিকো সীমান্ত পরিদর্শন করেন তিনি। বাইডেন বলেছেন, ফেডারেল কর্মকর্তাদের দাবানল নিয়ন্ত্রণ করার জন্য সম্ভাব্য সব ধরনের প্রচেষ্টা চালাতে বলেছেন তিনি। পাশাপাশি দুর্গত এলাকা থেকে মানুষকে সরিয়ে নিয়ে যাওয়ার ওপরও জোর দিয়েছেন।

মার্কিন জাতীয় ইমার্জেন্সি ম্যানেজমেন্ট কর্তৃপক্ষ ইতোমধ্যেই জানিয়ে দিয়েছে, টেক্সাস ও ওকলাহোমাকে পুরো ক্ষতিপূরণ দেওয়া হবে।

এদিকে দাবানলের কারণে দুইজনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে। এখনও জ্বলছে দাবানলটি। তবে, এখন পর্যন্ত কত মানুষ ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছেন এবং কত ঘরবাড়ি পুড়ে গেছে তা নিশ্চিত হওয়া যায়নি। দাবানল পুরোপুরি নিয়ন্ত্রণে আসার পর ক্ষয়ক্ষতির পূর্ণ হিসাব পাওয়া যাবে।

অবশ্য মৌসুমের এই শুষ্ক সময়ে এ অঞ্চলে দাবানলের ঘটনা অস্বাভাবিক নয়। তাছাড়া এ বছর তাপমাত্রা অনেকটাই বেশি। এজন্যই দাবানল এমন তীব্রভাবে ছড়িয়েছে বলে জানিয়েছেন বিশেষজ্ঞরা। বন বিভাগের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, আরেকটি দাবানল তিন হাজার তিনশ একর জুড়ে জ্বলছিল। তবে সেটিকে নিয়ন্ত্রণ করা সম্ভব হয়েছে।

সম্পাদক ও প্রকাশক: ইলিয়াস উদ্দিন পলাশ

ঠিকানা: ১০/২২ ইকবাল রোড, ব্লক এ, মোহাম্মদপুর, ঢাকা-১২০৭

Design & Developed By Root Soft Bangladesh