ব্যাংক একীভূত হওয়া নিয়ে আতঙ্কের কিছু নেই: বাংলাদেশ ব্যাংক

নিজস্ব প্রতিবেদক

প্রকাশ: ০৪ মার্চ ২০২৪, ০৯:০৯ পিএম

বাংলাদেশ ব্যাংক। ছবি- সাম্প্রতিক দেশকাল

বাংলাদেশ ব্যাংক। ছবি- সাম্প্রতিক দেশকাল

বিশ্বের অন্যান্য দেশে যেভাবে ব্যাংক একীভূত হয়, এদেশেও সেভাবেই হবে। এ নিয়ে আতঙ্কিত হওয়ার কিছু নেই বলে জানিয়েছেন বাংলাদেশ ব্যাংকের মুখপাত্র মেজবাউল হক।

আজ সোমবার (৪ মার্চ) বিকেলে ব্যাংক মালিকদের সংগঠন বিএবি নেতাদের সাথে বাংলাদেশ ব্যাংক গভর্নরের বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের এসব কথা জানান তিনি।

কেন্দ্রীয় ব্যাংকের মুখপাত্র জানান, ব্যাংকের খেলাপি ঋণের পরিমাণ কমানোসহ সুশাসন নিশ্চিতে ১১টি কর্ম পরিকল্পনা দেওয়া হয়েছে। তাদেরকে প্রয়োজনীয় সূচকে দ্রুত সংশোধনের লক্ষ্য দেয়া হয়েছে। নির্ধারিত সময়ের মধ্যে লক্ষ্যপূরণে ব্যর্থ হলে তাদের মার্জার বা অ্যাকুইজিশনের উদ্যোগ নেয়া হবে।

মেজবাউল জানান, দুর্বল ব্যাংকগুলো শক্তিশালী ব্যাংকের সঙ্গে একীভূত হবে।

বিএবি সভাপতি নজরুল ইসলাম মজুমদার সাংবাদিকদের জানান, দেশের ১০ ভাগ ব্যাংক দুর্বল অবস্থানে আছে। এসব ব্যাংক একীভূত করার বিষয়ে চিন্তা থাকলেও, উদ্বেগের কিছু নেই বলে মনে করেন তিনি।

২০১৩ সালে বাণিজ্যিক কার্যক্রম শুরুর কয়েক বছরের মধ্যেই ঋণ অনিয়ম-জালিয়াতিতে ডুবে যায় ফার্মার্স ব্যাংক। ভোগান্তিতে পড়েন আমানতকারীরা। ২০১৮ সালে চারটি সরকারি ব্যাংক ও আইসিবি ব্যাংকটির বড় অংশ অধিগ্রহণের পর পদ্মা নামে নতুন করে যাত্রা শুরু করলেও সুফল মেলেনি।

এরপর ব্যাংকখাতে ঋণ অনিয়মের একের পর এক ঘটনা সামনে আসে। খেলাপী ও বেনামী ঋণে ১ ডজনের বেশি ব্যাংক চরম তারল্য সংকট পড়ে। এর জেরে দেশের ব্যাংকখাতে খেলাপী ঋণ ছাড়ায় দেড় লাখ কোটি টাকা। আইএমএফ, বিশ্বব্যাংকসহ বিভিন্ন ঋণদাতা সংস্থা বলছে, এদেশের ব্যাংকখাতে বড় ধরনের সংস্কার জরুরি।

সম্পাদক ও প্রকাশক: ইলিয়াস উদ্দিন পলাশ

ঠিকানা: ১০/২২ ইকবাল রোড, ব্লক এ, মোহাম্মদপুর, ঢাকা-১২০৭

Design & Developed By Root Soft Bangladesh