জলদস্যুদের হাতে আটক হয়েছেন নাটোরের জয় মাহমুদ

নাটোর প্রতিনিধি

প্রকাশ: ১৩ মার্চ ২০২৪, ১২:২৩ পিএম

জলদস্যুদের হাতে আটক জয় মাহমুদ। ছবি: নাটোর প্রতিনিধি

জলদস্যুদের হাতে আটক জয় মাহমুদ। ছবি: নাটোর প্রতিনিধি

ভারত মহাসাগরে বাংলাদেশি পণ্যবাহী একটি জাহাজ এবং ২৩ নাবিক ও ক্রুকে আটক করেছে সোমালিয়ান জলদস্যুরা। ভুক্তভোগীদের মধ্যে রয়েছেন নাটোরের বাগাতিপাড়া উপজেলার জয় মাহমুদ।

আজ মঙ্গলবার (১২ মার্চ) দুপুরে এ ঘটনা ঘটে। তবে জলদস্যুদের হাতে আটকের পর জয় মাহমুদ তার মায়ের সঙ্গে ফোনে কথা বলেছেন। এ ঘটনা শোনার পর থেকেই দুশ্চিন্তায় রয়েছেন তার পরিবার ও আত্মীয়-স্বজনরা।

মঙ্গলবার দুপুরে ভারত মহাসাগর থেকে জাহাজটিসহ ২৩ বাংলাদেশি নাবিক ও ক্রুকে আটক করে জলদস্যুরা। জলদস্যুদের হাতে জিম্মি জয় মাহমুদ নাটোর জেলার বাগাতিপাড়ার সালাইনগর এলাকার জিয়াউর রহমানের ছেলে। তিনি ওই জাহাজের অর্ডিনারি সি-ম্যান বা (সাধারণ নাবিক) হিসেবে কর্মরত রয়েছেন।

জানা গেছে, বাংলাদেশের এমভি আবদুল্লাহ নামে একটি পণ্যবাহী জাহাজ কয়লা নিয়ে ভারত মহাসাগর হয়ে মোজাম্বিক থেকে আরব আমিরাতের আল-হামরিয়া বন্দরের দিকে যাচ্ছিল। পরে মঙ্গলবার (১২ মার্চ) দুপুরে জাহাজটিতে হামলা চালিয়ে তা দখলে নেয় প্রায় ৫০ জন সোমালিয়ান জলদস্যু। তাদের অনেকের হাতে অস্ত্র ছিল বলে জানা গেছে।

জয়ের চাচাতো ভাই মো. মারুফ আলী বলেন, দুপুর দেড়টার দিকে ভাই ফোন দিয়ে বলে যে তাদের জাহাজ জলদস্যুরা আক্রমণ করেছে। আমার সঙ্গে আর কথা নাও হতে পারে। বাড়িতে কাউকে কিছু বলিস না। ফোন নিয়ে নিতে পারে বলে ফোন কেটে দেয়। পরবর্তীতে আমি আবার মেসেজ করলে ভাই সন্ধ্যা ৬টা ৪০ মিনিটে মেসেজ  করে বলে ফোন নিয়ে নিয়েছে আর কথা হবে না।

ভুক্তভোগী ব্যক্তি জয় তার মা রোজিনা বেগমকে বলেন, মা আমার ফোনে এমবি থাকবে না, কথা নাও হতে পারে। আমার সঙ্গে হয়তো এক-দুই মাস কথা নাও হতে পারে। ঈদে শপিংসহ যা কেনা লাগে তোমরা কিনে নিও। 

জয়ের বাবা জিয়াউর রহমান বলেন, বাড়িতে এসে জানতে পারি যে আমার ছেলেসহ ২৩ জন জলদস্যুদের হাতে আটক হয়েছে। আমার ছেলেসহ নাবিকদের দ্রুত উদ্ধার করে দেশে ফেরত আনার দাবি করছি সরকারের কাছে।

সম্পাদক ও প্রকাশক: ইলিয়াস উদ্দিন পলাশ

ঠিকানা: ১০/২২ ইকবাল রোড, ব্লক এ, মোহাম্মদপুর, ঢাকা-১২০৭

Design & Developed By Root Soft Bangladesh