পুঠিয়ায় সড়ক নির্মাণের সপ্তাহ না ঘুরতেই উঠে যাচ্ছে কার্পেটিং

পুঠিয়া (রাজশাহী) প্রতিনিধি

প্রকাশ: ১৮ মার্চ ২০২৪, ১২:৩০ পিএম

 হাত লাগালেই উঠে যাচ্ছে সেই পিচ ঢালাই। ছবি: প্রতিনিধি

হাত লাগালেই উঠে যাচ্ছে সেই পিচ ঢালাই। ছবি: প্রতিনিধি

৬০ লাখ টাকায় রাজশাহীর পুঠিয়া উপজেলার শিলমাড়িয়া ইউনিয়নের টুলটুলি পাড়া হতে ছাঁতারপাড়া ব্রিজ পর্যন্ত দেড় কিলোমিটার সড়ক নির্মাণে ব্যাপক অনিয়মের অভিযোগ উঠেছে। সপ্তাহ না ঘুরতেই উঠে যাচ্ছে কার্পেটিং। সংস্কারে ব্যবহার করা হয়েছে খুবই নিম্নমানের সামগ্রী। হাত দিয়েই তোলা যাচ্ছে রাস্তার পিচ ঢালাই কার্পেটিং।

সম্প্রতি উপজেলার টুলটুলি পাড়া থেকে ছাঁতারপাড়া পর্যন্ত সংস্কার কাজের পিচ ঢালাই কাজ শেষ করা হয়েছে। সেখানে ব্যাপক নিম্নমানের কাজ হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে। পরে এলাকার মানুষের অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে সরজমিনে গিয়ে দেখা মিলে এর সত্যতাও। এমনভাবে পিচ ঢালাই করা হয়েছে তাতে হাত লাগালেই উঠে যাচ্ছে সেই পিচ ঢালাই। এখন মানুষের প্রশ্ন এই রাস্তা টিকবে কতদিন।

জানা যায়, রাজশাহীর ‘নতুন’ নামের এক ঠিকাদার ওই কাজ করে। কাজটি করার পর কাজের গুনগতমান নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে। এ নিয়ে এলাকাবাসীদের সাথে কথা হলে ক্ষোভ ঝাড়েন সংশ্লিষ্টদের ওপর। আবার অনেকেই সংশ্লিষ্টদের ভয়ে মুখ খুলতেও সাহস পায়নি। কেউ কেউ ওই নিম্নমানের সামগ্রী দিয়ে কাজে বাধা দিলেও তা শুনেনি কেউ। ওই এলাকার সাধারণ মানুষরা চাইছেন আবারো খুব দ্রুত টেকসই কাজ করা হোক। বর্ষা আসার আগেই সংস্কার চান তারা। তা না হলে আবারও ভুগতে হবে ওই এলাকার মানুষদের।

স্থানীয় গ্রাম প্রধান আব্দুল কুদ্দুসসহ একাধিক ব্যক্তি বলেন, আমরা নিম্নমানের কাজ দেখে ঠিকাদার ও উপজেলা প্রকৌশলীকে বহুবার বলেছি তারা কোন কর্ণপাত করেনি। তারা তাদের মত কাজ করেছে। পরে বিষয়টি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাকেও জানিয়েছি। কিন্তু কাজ শেষে দেখা যায়, হাত দিয়েই তোলা যাচ্ছে রাস্তার পিচ।

এবিষয়ে ঠিকাদার ‘নতুন’ এর ম্যানেজার হোসেন আলী বলেন, এসব বিষয়ে আমার জানা নেই। অন্যদিকে ওই কাজ করা ঠিকাদার ‘নতুন’ এর সাথে কথা হলে তিনি বলেন, আপনাদের সাথে পরে কথা বলব। এই বলে ফোন কেটে দেন তিনি।

উপজেলা পরিষদ ভাইস চেয়ারম্যান মৌসুমি রহমান জানান, ওই রাস্তার সংস্কার কাজ নিম্নমানের হয়েছে এটা তিনি ভিডিওতে দেখেছেন। তিনি ইউএনওর সাথে কথা বলে ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে জানান।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে পুঠিয়া উপজেলা প্রকৌশলী পারভেজ নেওয়াজ খান বলেন, ওই রাস্তার কাজে কোন অনিয়ম হয়নি। ২৫ মিলির কার্পেটিং এর রাস্তার উপর দিয়ে ২০-৩০ টনের ওভার লোডিং ট্রাক চলাচলে রাস্তার ব্যাপক ক্ষতি হচ্ছে।

সম্পাদক ও প্রকাশক: ইলিয়াস উদ্দিন পলাশ

ঠিকানা: ১০/২২ ইকবাল রোড, ব্লক এ, মোহাম্মদপুর, ঢাকা-১২০৭

Design & Developed By Root Soft Bangladesh