কক্সবাজারে ২ সহোদরের হাত-পা কেটে নিয়েছে দুর্বৃত্তরা

কক্সবাজার প্রতিনিধি

প্রকাশ: ০৬ এপ্রিল ২০২৪, ১২:২৫ পিএম

কক্সবাজার জেলার মানচিত্র

কক্সবাজার জেলার মানচিত্র

কক্সবাজারের চকরিয়ায় দুই গ্রুপের মধ্যে ‘আধিপত্য বিস্তারের জেরে’ হামলা চালিয়ে দুই সহোদরের হাত-পা কেটে নিয়েছে প্রতিপক্ষের লোকজন। এ ঘটনায় গুলিবিদ্ধ হয়েছে অপর একজন। 

গতকাল শুক্রবার (৫ এপ্রিল) রাত ১০ টার দিকে চকরিয়া উপজেলার বদরখালী বাজারে এ ঘটনা ঘটে।

চকরিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শেখ মোহাম্মদ আলী এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

আহতরা হলেন- চকরিয়ার বদরখালী ইউনিয়নের মগপাড়ার বাসিন্দা রিয়াদ ও ছোটন। এছাড়া ঘটনায় জিহান নামের তাদের অপর ভাই গুলিবিদ্ধ হয়েছে।

পুলিশ জানিয়েছে, বিবাদমান দুপক্ষের লোকজনই নানা অপরাধে অভিযুক্ত। দুপক্ষের লোকজনের বিরুদ্ধে রয়েছে একাধিক মামলা। হামলায় আহত ছোটন একটি হত্যা এবং রিয়াদ ডাকাতিসহ নানা অপরাধে একাধিক মামলা রয়েছে।

স্থানীয়দের বরাতে মোহাম্মদ আলী বলেন, বদরখালীতে স্থানীয় নজরুল ও বাহাদুরের লোকজনের সাথে রিয়াদ ও ছোটনের লোকজনের মধ্যে দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলছিল। এলাকায় আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে বিরোধের জেরের মধ্যে চলতো হামলা ও পাল্টা হামলা। দুবছর আগে দুপক্ষের সংঘর্ষে একজন খুন হন। এতে রিয়াদ ও ছোটনসহ তাদের লোকজনের জড়িত থাকার অভিযোগ রয়েছে। ওই মামলায় ছোটনসহ তাদের পক্ষের অনেকে আসামি। এ ঘটনায় প্রতিপক্ষের লোকজন ক্ষিপ্ত ছিল।

চকরিয়া থানার ওসি শেখ মোহাম্মাদ আলী বলেন, শুক্রবার রাতে পূর্ব বিরোধের জেরে বদরখালী বাজারে রিয়াদ, ছোটন ও জিহান সহ আরও কয়েকজন অবস্থান করছিল। এসময় প্রতিপক্ষের লোকজন প্রকাশ্যে সশস্ত্র অবস্থায় তাদের উপর হামলে পড়ে। এতে হামলাকারীরা ছোটনের এক হাত এবং রিয়াদের এক পা কেটে ফেলে। হামলায় গুলিবিদ্ধ হয়েছে তাদের অপর এক ভাই। হামলাকারী পালিয়ে যাওয়ার পর স্থানীয়রা আহতদের উদ্ধার করে চকরিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। এসময় চিকিৎসক তাদের মধ্যে দুজনের অবস্থা আশংকাজনক হওয়ায় চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠিয়েছে।

ওসি আরো জানান, প্রাথমিকভাবে আধিপত্য বিস্তারের জেরে এ হামলার ঘটনা ঘটেছে বলে তথ্য পাওয়া গেছে। তারপরও ঘটনার কারণ জানার পাশাপাশি জড়িতদের চিহ্নিত করে গ্রেপ্তারে পুলিশ খোঁজখবর নিচ্ছে।

সম্পাদক ও প্রকাশক: ইলিয়াস উদ্দিন পলাশ

ঠিকানা: ১০/২২ ইকবাল রোড, ব্লক এ, মোহাম্মদপুর, ঢাকা-১২০৭

Design & Developed By Root Soft Bangladesh