ঈদের সাজে স্নিগ্ধতার আভা

ডেস্ক রিপোর্ট

প্রকাশ: ০৭ এপ্রিল ২০২৪, ১২:২১ পিএম

ফাইল ছবি।

ফাইল ছবি।

ঈদে চৈত্রের কাঠফাটা রোদ বা বৃষ্টি, ভ্যাপসা গরম যা-ই থাকুক না কেন, মেকআপের ক্ষেত্রে হালকাই বেশি মানানসই। তাই ঈদের সাজ হওয়া চাই সজীব ও স্নিগ্ধ। সকাল বা গরমের দুপুরে ভারী মেকআপ অস্বস্তির কারণ হতে পারে। তবে রাতের সাজ হতে পারে জমকালো। ন্যুড, হালকা ঘরানার মেকআপ বা জমকালো- যেটাই হোক না কেন, ঈদের সাজ জুড়ে থাকবে স্নিগ্ধতার আভা। 

মেকআপের শুরুতেই মুখ ফেসওয়াশ দিয়ে ধুয়ে-মুছে ত্বকের সঙ্গে মানানসই ময়েশ্চারাইজার ব্যবহার করতে হবে। এতে ত্বক কোমল হবে এবং ত্বকের সঙ্গে মেকআপ খুব সহজেই মিশে যাবে। এর পর প্রাইমার লাগাতে হবে। আর গরমে মেকআপ স্থায়ী করতে প্রাইমারের জুড়ি নেই। এই আবহাওয়ায় সব ত্বকের জন্যই লাইটওয়েট ফর্মুলার ম্যাট ফাউন্ডেশন খুব ভালো কাজ করে। এটি তরল বা পাউডার, দুই রকমেরই হতে পারে। এর আগে চোখের নিচে ও ত্বকের দাগযুক্ত স্থানে কনসিলার লাগিয়ে ভালোমতো মিশিয়ে নিতে হবে। শেষে খুব হালকা ব্লাশন দিয়ে ত্বকের স্বাভাবিক রঙকে তুলে আনতে হবে। এখন গোলাপি ও পিচ রঙের ব্লাশন খুব বেশি চলছে।

এরপর আইব্রো এঁকে নিতে হবে। পরে আইব্রো ডিফাইন দেখাতে ছোট ব্রাশে একটু কনসিলার নিয়ে আইব্রোর চারপাশে লাগিয়ে নিয়ে ব্লেন্ড করে নিতে হবে। চোখের সাজের জন্য পোশাকের রঙের সঙ্গে মিলিয়ে অথবা কন্ট্রাস্ট রঙের আইশ্যাডো দিতে হবে। একই রঙের কয়েকটি শেড মিলিয়ে লাগালে চোখের রঙটি ভালোভাবে ফুটে ওঠে। চোখের ইনার কর্নার এবং আইব্রো বোন একটি রোজগোল্ড শিমারি আইশ্যাডো দিয়ে হাইলাইট করতে হবে। এরপর আইল্যাশ কার্লার দিয়ে চোখের পাপড়ি কার্ল করে মাশকারা দিতে হবে। মাশকারা দেওয়ার পর আইলাইনার দিয়ে নিতে হবে। চাইলে চোখে কাজল এবং ফলস আইল্যাশ লাগাতে পারেন।

সবশেষে পোশাকের সঙ্গে ম্যাচ করে লিপস্টিক ব্যবহার করতে হবে এবং সেটিং স্প্রে দিতে হবে। মেকআপ যতই হালকা হোক না কেন, সেটিং স্প্রে ব্যবহার করা না হলে ঘামে কিংবা বৃষ্টির পানিতে মেকআপ গলে যেতে পারে। 

সম্পাদক ও প্রকাশক: ইলিয়াস উদ্দিন পলাশ

ঠিকানা: ১০/২২ ইকবাল রোড, ব্লক এ, মোহাম্মদপুর, ঢাকা-১২০৭

Design & Developed By Root Soft Bangladesh